ZTE Axon 40 Ultra: বিশ্বের প্রথম আন্ডার ডিসপ্লে সেলফি ক্যামেরা ও স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১ প্রসেসরের ফোন লঞ্চ হল

zte-axon-40-ultra-launched-price-cny-4998-specifications-features-availability

ZTE আজ অর্থাৎ ৯ই মে দেশীয় বাজারে Axon 40 Ultra নামের একটি নতুন স্মার্টফোনের ঘোষণা করলো। এটি বিশ্বের প্রথম স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১ চিপসেট সহ আসা স্মার্টফোন যা একটি আন্ডার-ডিসপ্লে ক্যামেরা সহযোগে এসেছে। এই প্রিমিয়াম ফ্ল্যাগশিপ হ্যান্ডসেটের সামনে একটি কার্ভড-এজ ডিসপ্লে প্যানেল এবং পেছনে তিনটি ৬৪-মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা দেখা যাবে। আর ওভার হিটিংয়ের সমস্যা থেকে ইউজারদের রেহাই দিতে এই নয়া ডিভাইসে ভিসি লিকুইড কুলিং সিস্টেম বিদ্যমান থাকছে। আসুন ZTE Axon 40 Ultra স্মার্টফোনের দাম এবং সমস্ত স্পেসিফিকেশন জেনে নেওয়া যাক।

ZTE Axon 40 Ultra ডিজাইন এবং ডিসপ্লে

সদ্য আগত, জেডটিই এক্সন ৪০ আল্ট্রা স্মার্টফোনের পরিমাপ ১৬৩.২x৭৩.৫x৮.৪ মিমি এবং ওজন প্রায় ২০৪ গ্রাম। ডিভাইসটির বিশেষত্বগুলির মধ্যে অন্যতম হল এর ফ্রন্ট ডিজাইন। ফোনে থাকা OLED ডিসপ্লে প্যানেলে পাঞ্চ-হোল কাটআউট বা কোনো প্রকারের নচ দেখা যাবে না। কারণ এটিকে একটি আন্ডার-ডিসপ্লে ক্যামেরার সাথে এসেছে।

এবার আসা যাক ডিসপ্লে ফিচারের প্রসঙ্গে। জেডটিই এক্সন ৪০ আল্ট্রা ফোনে একটি ৬.৮১-ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (২,৪৮০x১,১১৬ পিক্সেল) AMOLED ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে, যা ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট, ১০০% DCI-P3 কালার গ্যামেট, ১০-বিট কালার এবং ৪০০ পিপিআই পিক্সেল ডেন্সিটি সাপোর্ট করে। এমনকি আন্ডার-ডিসপ্লে এলাকা অর্থাৎ যেখানে সেলফি ক্যামেরা অবস্থিত সেখানেও প্রত্যেকটি ডিসপ্লে ফিচার সমান ভাবে কাজ করবে। নিরাপত্তার জন্য, এতে ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর রয়েছে।

ZTE Axon 40 Ultra এর স্পেসিফিকেশন

ZTE Axon 40 Ultra ফোনে স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১ মোবাইল প্ল্যাটফর্ম প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। ফোনটি ১৬ জিবি পর্যন্ত LPDDR5 র‌্যাম এবং ১ টেরাবাইট পর্যন্ত UFS 3.1 স্টোরেজ সহ এসেছে। এই ফ্ল্যাগশিপ মডেলটি অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক আমিফ্যাভার কাস্টম ইউজার ইন্টারফেস দ্বারা চালিত।

পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এই ফোনে, ৮০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজি সমর্থিত ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে। যদিও এতে ওয়্যারলেস চার্জিংয়ের সমর্থন পাওয়া যাবে না। তাপ অপচয়ের জন্য, এই ফোনে ভিসি লিকুইড কুলিং ইউনিট উপস্থিত, যা ডিভাইসের ভিতরে ৩৬,৩৫৬মিমি² এলাকা জুড়ে অবস্থান করে আছে।

নবাগত এই ফ্ল্যাগশিপ ফোনের অন্যান্য ফিচারের মধ্যে সামিল রয়েছে, ডিটিএস আল্ট্রা সমর্থন সহ ডুয়াল স্পিকার এবং একটি এক্স-অ্যাক্সিস লিনিয়ার মোটর। কানেক্টিভিটির জন্য এতে, ওয়াই-ফাই ৬ই, ব্লুটুথ ৫.২, ডুয়াল-ফ্রিকোয়েন্সি জিপিএস, এনএফসি, ডুয়াল-সিম স্লট এবং একটি ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট অন্তর্ভুক্ত।

ZTE Axon 40 Ultra ফোনের ক্যামেরা সেটআপ

ZTE Axon 40 Ultra স্মার্টফোনে ২.২৪ মাইক্রোমিটার (μm) পিক্সেল সহ একটি ১৬ মেগাপিক্সেল আন্ডার-ডিসপ্লে সেলফি ক্যামেরা রয়েছে। তৃতীয় প্রজন্মের এই আন্ডার-স্ক্রিন ক্যামেরা টেকনোলজিতে, একটি ইন্ডিপেন্ডেন্ট পিক্সেল ড্রাইভার, একটি ডিস্ট্রিবিউটেড ট্রান্সপারেন্ট সার্কিট এবং একটি ডেডিকেটেড ইউডিসি (UDC) প্রো স্ক্রিন ডিসপ্লে চিপ সমন্বিত আছে। সংস্থার দাবি অনুসারে, Axon 40 Ultra অন্যান্য ফ্ল্যাগশিপ ফোনের ন্যায় ‘টপনচ কোয়ালিটির’ সেলফি অফার করবে।

অন্যদিকে, এক্সন ৪০ আল্ট্রা স্মার্টফোনের পিছনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপে দেওয়া হয়েছে। এগুলি হল, ফুল-পিক্সেল অম্নিডিরেক্শন অটোফোকাস এবং OIS সমর্থিত ৬৪ মেগাপিক্সেল Sony IMX787 প্রাইমারি সেন্সর, ৬৪ মেগাপিক্সেল Sony IMX787 আল্ট্রা-ওয়াইড সেন্সর এবং OIS সক্ষম ৬৪ মেগাপিক্সেল টেলিফটো পেরিস্কোপ সেন্সর। এই রিয়ার ক্যামেরা সেটআপটি – একটি ফ্লিকার সেন্সর, একটি ToF সেন্সর এবং অডিও জুম ও অডিও রিকোগনিগাশনের জন্য একটি ট্রাই-মাইক্রোফোন সেটআপের সাপোর্ট সহ এসেছে। এছাড়া, তিনটি সেন্সরই ৮কে (8K) রেজোলিউশনের ভিডিও শুট করতে সক্ষম।

ZTE Axon 40 Ultra দাম এবং প্রাপ্যতা

জেডটিই এক্সন ৪০ আল্ট্রা স্মার্টফোনকে ৪টি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে নিয়ে আসা হয়েছে। যার মধ্যে, ৮ জিবি র‌্যাম+২৫৬ জিবি স্টোরেজ যুক্ত বেস ভ্যারিয়েন্টের দাম ৪,৯৯৮ ইউয়ান বা ভারতীয় মূল্যে প্রায় ৫৭,৫০০ টাকা রাখা হয়েছে। এছাড়া, ১২ জিবি র‌্যাম+২৫৬ জিবি স্টোরেজ, ১২ জিবি র‌্যাম+৫১২ জিবি স্টোরেজ এবং ১৬ জিবি র‌্যাম+১ টেরাবাইট স্টোরেজ অপশনকে যথাক্রমে ৫,২৯৮ ইউয়ান (প্রায় ৬১,০০০ টাকা), ৫,৭৯৮ ইউয়ান (প্রায় ৬৬,৮০০ টাকা) এবং ৭,২৯৮ ইউয়ান (প্রায় ৮৪,০০০ টাকা) মূল্যে লঞ্চ করা হয়েছে। এটি – ব্ল্যাক এবং সিলভার কালের অপশনে এসেছে।

প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি, চীনে আগামী ১৩ই মে ZTE Axon 40 Ultra ফোনটিকে প্রথমবার বিক্রির জন্য উপলব্ধ করা হবে। যদিও, ভারত বা গ্লোবাল মার্কেটে কতদিনে এই ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইসটিকে লঞ্চ করা হবে, সেই সম্পর্কিত কোনো তথ্য এখনো প্রকাশ্যে আনেনি সংস্থাটি।

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

শুভেচ্ছা বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী। তিনি একদিকে যেমন ফটোগ্রাফার, তেমনি পাশাপাশি লেখিকাও। এছাড়াও তার শখের মধ্যে আছে বই পড়া, গান গাওয়া, ছবি আঁকা এবং ওয়েব ডিজাইন। শুভেচ্ছা আমাদের টেকগাপ পরিবারের একজন নতুন সদস্য।