YouTube দিচ্ছে প্রতি মাসে হাজার হাজার টাকা আয়ের সুযোগ, কারা, কীভাবে পাবেন জেনে নিন

প্রতিদ্বন্দ্বী টিকটক (TikTok) এবং ইনস্টাগ্রামের (Instagram) ব্যবসায় থাবা বসাতে এবার আরও আগ্রাসী ইউটিউব (Youtube)! গুগলের (Google) মালিকানাধীন এই সংস্থা সম্প্রতি তাদের স্বল্প দৈর্ঘের ভিডিও তৈরীর প্ল্যাটফর্ম ইউটিউব শর্টসের (Youtube Shorts) জন্য ১০০ মিলিয়ন ডলারের বিশেষ ফান্ড বরাদ্দ করেছে। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ইউটিউব শর্টসের আওতায় ভিডিও বানানো অসংখ্য ক্রিয়েটর আর্থিকভাবে লাভবান হতে পারেন। তবে সেক্ষেত্রে তাকে মনোনয়নের যোগ্য হতে হবে। তা না হলে কোনরকম আর্থিক ফায়দার কল্পনা অলীক!

Youtube Shorts এর জন্য ১০০ মিলিয়ন ডলারের ফান্ড

১০০ মিলিয়ন ডলারের ফান্ড মঞ্জুরির পর ইউটিউব স্বল্প দৈর্ঘ্যের কনটেন্ট প্রস্তুতকারকদের হাতে লভ্যাংশের কিছু পরিমাণ অর্থ তুলে দেবে। চলতি মাস থেকেই ইউটিউব শর্টসের ভিডিও নির্মাতাগণ সংস্থার তরফ থেকে আর্থিক পুরষ্কার পেয়ে যাবেন। এভাবে একজন ভিডিও প্রস্তুতকারক প্রতি মাসে ১০০ থেকে ১০,০০০ ডলার (ভারতীয় মুদ্রায় ৭,৪০০-৭,৪০,০০০ টাকা) আয় করতে পারবেন। এক্ষেত্রে যার ভিডিও যত বেশী ‘ভাইরাল’ এবং অধিক সংখ্যক মানুষের সক্রিয়তা আকর্ষণে সহায়ক হবে, সেই ব্যক্তি ইউটিউবের তরফে তত বেশী অর্থ পুরস্কার হিসেবে জিতে নিতে সক্ষম হবেন।

তবে একথা না হয় বোঝা গেলো যে, ভিউয়ারশিপ বা দর্শনসংখ্যার উপরে ভিত্তি করেই Youtube ভিডিও নির্মাতাদের পুরস্কৃত করবে। কিন্তু পুরস্কৃত হতে চাইলে কনটেন্ট সরবরাহকারী চ্যানেলটিকেও তার দাবী পেশ করতে হবে। চ্যানেলের সামগ্রিক ফলাফলের ক্ষেত্রে স্বল্প দৈর্ঘ্যের ভিডিওগুলির অবদান বিচার-বিবেচনা করে Youtube উক্ত চ্যানেলের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তি বা সংস্থার অ্যাকাউন্টে লভ্যাংশের অর্থ পাঠিয়ে দেবে। প্রতি মাসে ভিডিওগুলির জনপ্রিয়তাকে বারবার খতিয়ে দেখা হবে। ফলে আপলোডের মাস বা তার কিছুদিনের মধ্যে যাদের ভিডিও খুব একটা জনপ্রিয় হয়নি, পরবর্তীকালে তারাও পুরস্কৃত হতে পারেন। এক্ষেত্রে একাধিক দিক বিবেচনার সাথে শর্টসের সামগ্রিক বৃদ্ধির হার পুরস্কারের পরিমাণকে নিয়ন্ত্রণ করবে।

আপাতত ভারত, আমেরিকা, ব্রিটেন, ব্রাজিল, জাপান, ইন্দোনেশিয়া, মেক্সিকো, রাশিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং নাইজেরিয়ার ভিডিও প্রস্তুতকারকেরা ইউটিউবের আলোচ্য ফান্ডের দ্বারা লাভবান হতে পারবেন। খুব তাড়াতাড়ি অন্যান্য দেশের বাসিন্দারাও পুরস্কারের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

আর্থিক পুরস্কার লাভের জন্য মনোনয়নের শর্ত

১. ক্রিয়েটর হিসেবে আপনার চ্যানেল থেকে গত ১৮০ দিনের মধ্যে অন্তত একটি স্বল্প দৈর্ঘ্যের ভিডিও আপলোড হওয়া আবশ্যক।

২. ইনস্টাগ্রাম বা অন্য কোন প্ল্যাটফর্ম থেকে চুরি করা বা সেই মাধ্যমের লোগোযুক্ত ভিডিও নয়, একমাত্র প্রকৃত নতুন কনটেন্টগুলি পুরস্কারের জন্য বিবেচিত হবে। আবার অন্য কোন ক্রিয়েটরের চ্যানেল থেকে ভিডিও সংগ্রহ ও আপলোড করে পুরস্কারের জন্য আবেদন করা যাবে না।

৩. এছাড়া ক্রিয়েটরকে বয়সের দিক থেকে উপযুক্ত হতে হবে। যেমন ভারতে ১৮ বছরের উর্ধ্বে সমস্ত ইউটিউবার এই আর্থিক পুরস্কারের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

৪. পুরস্কার দাবী করতে হলে ইউটিউবের যাবতীয় শর্তাবলী ক্রিয়েটরকে মেনে নিতে হবে। এছাড়া চ্যানেলের সঙ্গে সক্রিয় অ্যাডসেন্স‌ (AdSense) অ্যাকাউন্ট যুক্ত থাকা জরুরী।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

স্মার্টফোন, গাড়ি-বাইক সহ প্রযুক্তি দুনিয়ার সব গুরুত্বপূর্ণ খবর সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের Google News ও Twitter পেজ, সঙ্গে অ্যাপ ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।