Xiaomi 11i HyperCharge থেকে OnePlus Nord 2 5G, এই মুহূর্তে ৩০ হাজার টাকার কমের সেরা ফোন দেখুন

৩০,০০০ টাকার নিচে উপলব্ধ ৫টি 'বেস্ট-সেলিং' মিড-রেঞ্জ 5G স্মার্টফোনের দাম ও ফিচার জেনে নিন

xiaomi-11i-hypercharge-to-oneplus-nord-2-best-smartphones-under-30000-right-now

‘মাল্টিটাস্কার’ তকমা প্রাপ্ত মুঠোবন্দি যন্ত্র ওরফে স্মার্টফোনের চাহিদা এখন তুঙ্গে। তবে এই ডিভাইসটি যদি ফিচারের দিক থেকে শক্তিশালী না হয়, তবে সময়ের সাথে সেটির পারফরম্যান্স ধীর হতে শুরু করবে। আর এমনটা হলে তার প্রভাব সরাসরি আপনার কাজে পড়বে। তাই, হালফিলে স্মার্টফোন নির্মাতা সংস্থাগুলি তাদের হ্যান্ডসেটকে, অধিক র‌্যাম, অ্যাডভান্স প্রসেসর এবং শক্তিশালী ব্যাটারির সাথে সজ্জিত করে নিয়ে আসছে। এই প্রতিবেদনে আমরা ৩০,০০০ টাকার নিচে উপলব্ধ এমনই ৫টি ‘বেস্ট-সেলিং’ মিড-রেঞ্জ 5G স্মার্টফোনের দাম ও ফিচার প্রসঙ্গে আলোচনা করবো। আসুন তাহলে দেখে নেওয়া যাক এই তালিকা।

৩০,০০০ টাকার নিচে উপলব্ধ স্মার্টফোনের তালিকা

OnePlus Nord 2 5G : ওয়ানপ্লাস নর্ড ২ ৫জি স্মার্টফোনে আছে একটি ৬.৪৩ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (২,৪০০x১,০৮০ পিক্সেল) অ্যামোলেড ডিসপ্লে। এটি অক্টা-কোর মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ১২০০-এআই (AI) প্রসেসর সহ এসেছে। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক অক্সিজেনওএস ১১.৩ (OxygenOS 11.3) কাস্টম স্কিন দ্বারা চালিত হবে। ক্যামেরা ফ্রন্টের প্রসঙ্গে বললে, ৫০ মেগাপিক্সেল (অ্যাপারচার : এফ/১.৮৮) প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল (অ্যাপারচার : এফ/২.২৫) সেকেন্ডারি সেন্সর এবং ২ মেগাপিক্সেল (অ্যাপারচার : এফ/২.৫) সেন্সর সহ ট্রিপল-রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ দেখা যাবে ওয়ানপ্লাসের এই স্মার্টফোনে। এছাড়া, সেলফি বা ভিডিও কলিংয়ের জন্য থাকছে ৩২ মেগাপিক্সেলের (অ্যাপারচার : এফ/২.৪৫) ফ্রন্ট ক্যামেরা। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এই ফোনে ৪,৫০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে।

দাম : সংস্থার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট অনুসারে OnePlus Nord 2 5G ফোনের ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ অপশনের দাম ২৭,৯৯৯ টাকা।

Poco F3 GT : অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক এমআইইউআই ১২.৫ কাস্টম ওএস চালিত পোকো এফ৩ জিটি স্মার্টফোনে ৬.৬৭ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪০০ পিক্সেল) টার্বো অ্যামোলেড ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। যার রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ এবং টাচ স্যাম্পলিং রেট ৪৮০ হার্টজ। এতে মিডিয়াটেক ডায়মেনসিটি ১২০০ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। পোকো এফ৩ জিটি ফোনের ক্যামেরা মডিউলে তিনটি সেন্সর বর্তমান, যার চারিপাশে দেখা যাবে অ্যাম্বিয়েন্ট লাইট। এর প্রাইমারি সেন্সরটি ৬৪ মেগাপিক্সেলের। এছাড়া, ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর অন্তর্ভুক্ত সেটআপে। সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য এতে ২০ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। এরোস্পেস গ্রেড অ্যালুমিনিয়াম ফ্রেম নির্মিত এই হ্যান্ডসেটে ৫,০৬৫ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে। যার সাথে ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। ফোনটি ভেপার চেম্বার কুলিং সিস্টেম সহ এসেছে এবং IP53 রেটিং প্রাপ্ত।

দাম : Poco F3 GT স্মার্টফোনের বিক্রয় মূল্য ২৬,৯৯৯ টাকা। এই দাম ফোনের ৮ জিবি ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ অপশনের।

Samsung Galaxy M32 5G : স্যামসাং গ্যালাক্সি এম৩২ ৫জি স্মার্টফোনে রয়েছে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ প্রোটেকশন ও ৬০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সহ ৬.৫ ইঞ্চির এইচডি প্লাস (৭২০x১,৬০০ পিক্সেল) TFT ইনফিনিটি-ভি ডিসপ্লে। এই ফোনে মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৭২০ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক ওয়ানইউআই ৩.১ কাস্টম ওএস দ্বারা চালিত হবে। ফটোগ্রাফির জন্য স্যামসাং গ্যালাক্সি এম সিরিজের এই ফোনে কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এগুলি হল, ৪৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স, ৫ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো শুটার ও ২ মেগাপিক্সেল লাইভ ফোকাস লেন্স। একই ভাবে, ফোনের সামনে থাকছে ১৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। Knox সিকিউরিটি ফিচারের সাথে আসা স্যামসাং গ্যালাক্সি এম ৩২ ৫জি স্মার্টফোনে, ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে, যার সাথে ১৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে।

দাম : Samsung সংস্থার অফিসিয়াল সাইট অনুযায়ী, Samsung Galaxy M32 5G ফোনের ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ অপশনের দাম ১৮,৯৯৯ টাকা।

Xiaomi 11i 5G, Xiaomi 11i HyperCharge 5G : গত ৬ই জানুয়ারি যৌথ ভাবে ভারতে লঞ্চ করা হয়েছিল – শাওমি ১১আই ৫জি ও শাওমি ১১আই হাইপারচার্জ ৫জি স্মার্টফোনকে। ফোন দুটির স্পেসিফিকেশন প্রায় অনুরূপ। যেমন দুটি মডেলেই কর্নিং গরিলা গ্লাস ভিক্টাস প্রটেকশন সহ একটি ৬.৬৭ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪০০ পিক্সেল) অ্যামোলেড পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে রয়েছে। এই ডিসপ্লে, ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট, ৩৬০ হার্টজ টাচ স্যাম্পলিং রেট, ১২০০ নিটস ব্রাইটনেস সাপোর্ট করবে। শাওমির এই ফোনটি ৬এনএম প্রসেসিং নোড ভিত্তিক মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৯২০ ৫জি প্রসেসর সহ এসেছে। আর অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে এতে অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক এমআইইউআই ১২.৫ এনহ্যান্সড এডিশন কাস্টম স্কিন পাওয়া যাবে। এই ফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এই ক্যামেরাগুলি হল, ডুয়েল ISO সাপোর্ট সহ ১০৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর (HM2), ১২০° ফিল্ড-অফ-ভিউ সহ ৮ মেগাপিক্সেল সুপার ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স ও ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর। আবার ডিসপ্লের পাঞ্চ হোলের মধ্যে ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা উপস্থিত। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ১১আই ৫জি ফোনে দেওয়া হয়েছে ৫,১৬০ এমএএইচ ব্যাটারি, যা ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। আর, ১১আই হাইপারচার্জ ৫জি ফোনে ১২০ ওয়াট সুপার ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৪,৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি আছে।

দাম : সংস্থার নিজস্ব সাইট থেকে, Xiaomi 11i 5G ফোনের ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ অপশন ২৬,৯৯৯ টাকায় কেনা যাবে। আবার, Xiaomi 11i HyperCharge 5G ফোনের ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের দাম থাকছে ২৮,৯৯৯ টাকা।

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

শুভেচ্ছা বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী। তিনি একদিকে যেমন ফটোগ্রাফার, তেমনি পাশাপাশি লেখিকাও। এছাড়াও তার শখের মধ্যে আছে বই পড়া, গান গাওয়া, ছবি আঁকা এবং ওয়েব ডিজাইন। শুভেচ্ছা আমাদের টেকগাপ পরিবারের একজন নতুন সদস্য।