হোয়াটসঅ্যাপে ঘুরছে ‘বিনামূল্যে বিয়ার’ পাওয়ার মেসেজ, ভুলেও লিংকে ক্লিক করবেন না

যখনই কোনো ঘটনা ঘটে সেই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়ো খবর পোস্ট হবেনা তা যেন ভাবাই যায়না। করোনা ভাইরাস নিয়েও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভুয়ো পোস্ট করতে শুরু করেছে একশ্রেণীর মানুষ। কয়েকদিন ধরেই হোয়াটসঅ্যাপে একটি মেসেজ ফরোয়ার্ড করা হচ্ছে, যেখানে দাবি করা হয়েছে যে, হাইনেকেন ব্র্যান্ড লকডাউনে বিনামূল্যে বিয়ার অফার করছে। এই মেসেজে দাবি করা হয়েছে, কোম্পানি দ্বারা পরিচালিত একটি সমীক্ষায় অংশগ্রহণের পরিবর্তে চারটি বিয়ার কেগ বিনামূল্যে পাওয়া যাবে।

এই মেসেজটিকে বিশ্বাস করে আপনি যদি সার্ভে তে অংশগ্রহণ করেন তাহলে বড়সড়ো বিপদের মুখোমুখি হতে পারেন। Heineken এর তরফে ইতিমধ্যেই জনসাধারণ কে সতর্ক করে বলা হয়েছে, হোয়াটসঅ্যাপে শেয়ার করা এই মেসেজটি এক প্রকারের স্ক্যাম এবং কোম্পানি এই জাতীয় কোনও অফার আনেনি। এই ধরণের স্ক্যাম খুব সাধারণ এবং এই ‘ফিশিং’ অ্যাটাকের উদ্দেশ্য আপনার ব্যক্তিগত ডেটা চুরি করা এবং আপনাকে ভয় দেখিয়ে বা ডেটা বিক্রি করে অর্থ উপার্জন করা।

হোয়াটসঅ্যাপের এই ভাইরাল হওয়া মেসেজটি একজন টুইটার ইউজার কোম্পানির সাথে শেয়ার করেছিলেন এবং এটি সম্পর্কে জানতে চেয়েছিলেন। এর জবাবে কোম্পানি জানিয়েছে, ‘হ্যাঁ, এটি একটি স্ক্যাম। দয়া করে এখানে দেওয়া লিঙ্কটিতে ক্লিক করবেন না এবং এটি আমাদের নজরে আনার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।’ এই মেসেজের লিঙ্কটিতে ক্লিক করলে ইউজারদের একটি ভুয়ো হাইনেকেন ওয়েবসাইটে রিডাইরেক্ট করা হচ্ছে এবং তার থেকে বিভিন্ন তথ্য জানতে চাওয়া হচ্ছে।

ভুয়ো সাইটে বলা হয়েছে, যে বিনামূল্যে বিয়ার পেতে একটি ‘কুইক ওয়ান মিনিট সার্ভে’ পূরণ করতে হবে। এ জাতীয় কোনও মেসেজকে বিশ্বাস করে ভুল করবেন না। যখনই কোনো ওয়েবসাইট ভিজিট করবেন তখনই চেষ্টা করবেন ওয়েবসাইটটি কোম্পানির নিজস্ব কিনা। হ্যাকাররা এইসময় হুবহু জাল ওয়েবসাইট বানিয়ে মানুষকে প্রতারণার চেষ্টা করছে।

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।