Vivo V25E বাজারে আসার আগে দেখা গেল IMEI ডেটাবেসে, কি ফিচার থাকবে

রুটমাইগ্যালাক্সি-এর সাম্প্রতিক রিপোর্ট অনুযায়ী, V2201 মডেল নম্বর সহ একটি নতুন ভিভো ফোনকে আইএমইআই (IMEI) ডেটাবেসে খুঁজে পাওয়া গেছে

ভিভো (Vivo) বর্তমানে তাদের V25 সিরিজের একটি নতুন স্মার্টফোনের ওপর কাজ করছে বলে জানা গেছে। চলতি মাসের শুরুর দিকে একটি রিপোর্টে এই লাইনআপে অন্তর্ভুক্ত Vivo V25 এবং V25 Pro-এর ভারতীয় মডেলগুলির বিশদ বিবরণ শেয়ার করা হয়। তবে এও শোনা যাচ্ছে যে, সংস্থাটি গ্লোবাল মার্কেটে Vivo V25E নামে আরেকটি V-সিরিজের ডিভাইস শীঘ্রই লঞ্চ করার পরিকল্পনা করছে। কিছুদিন আগে এই ডিভাইসটিকে ইউরোপের ইইসি (EEC) সার্টিফিকেশন সাইটে স্পট করা হয়েছিল। আর এখন একটি নতুন রিপোর্ট থেকে জানা গেছে যে, এই ভিভো ফোনটি আইএমইআই (IMEI) ডেটাবেসে তালিকাভুক্ত হয়েছে, যা এর আসন্ন লঞ্চের দিকেই ইঙ্গিত করছে।

Vivo V25E-কে দেখা গেল IMEI-এর সাইটে

রুটমাইগ্যালাক্সি (Root My Galaxy)-এর সাম্প্রতিক রিপোর্ট অনুযায়ী, V2201 মডেল নম্বর সহ একটি নতুন ভিভো ফোনকে আইএমইআই (IMEI) ডেটাবেসে খুঁজে পাওয়া গেছে। এই লিস্টিং নিশ্চিত করে যে, এটি “ভিভো ভি২৫ই” নামের সাথে বাজারে আসবে। এমাসের শুরুতে V2201 মডেল নম্বর যুক্ত হ্যান্ডসেটটিকে ইউরোপিয়ান ইকোনমিক কমিউনিটি (EEC)-এর সার্টিফিকেশনের সাইটে দেখা গেছে। যদিও ভিভো ভি২৫ই ভারতের বাজারে লঞ্চ হবে কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়, তবে এর ইইসি তালিকাটি ইঙ্গিত দিচ্ছে যে, এটি ইউরোপের মার্কেটে শীঘ্রই আত্মপ্রকাশ করতে পারে।

প্রসঙ্গত, ভিভো ভি২৫ই-এর স্পেসিফিকেশন সম্পর্কে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। যদিও জানা গেছে যে, একই সিরিজের ভিভো ভি২৫ প্রো মডেলটি মে মাসে চীনে লঞ্চ হওয়া ভিভো এস১৫ প্রো-এর রিব্র্যান্ডেড সংস্করণ হবে। তবে, আসন্ন ভিভো ভি২৫ বেস মডেলটি এস১৫-এর রিব্র্যান্ডেড সংস্করণ নাও হতে পারে। সুতরাং, এখনই নিশ্চিতভাবে বলা যাচ্ছে না যে, ভিভো ভি২৫ই শুধুমাত্র ভিভো এস১৫ই-এর একটি রিব্র্যান্ডেড সংস্করণ হবে, নাকি এটি একটি সম্পূর্ণ নতুন ডিভাইস হিসেবে বাজারে পা রাখবে। তবে আপাতত, এই হ্যান্ডসেটটি কি কি অফার করতে পারে সে সম্পর্কে ধারণা পেতে, চলুন ভিভো এস১৫ই-এর স্পেসিফিকেশনগুলির ওপর একবার চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক।

ভিভো এস১৫ই-এর স্পেসিফিকেশন (Vivo S15e Specifications)

ভিভো এস১৫ই-তে ৬.৪৪ ইঞ্চির অ্যামোলেড (AMOLED) ডিসপ্লে রয়েছে, যা ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট এবং ফুল-এইচডি+ রেজোলিউশন অফার করে। ডিভাইসটি স্যামসাংয়ের এক্সিনস ১০৮০ চিপসেট দ্বারা চালিত। এস১৫ই-তে ১২ জিবি পর্যন্ত র‍্যাম এবং সর্বাধিক ২৫৬ জিবি স্টোরেজ পাওয়া যায়। এই হ্যান্ডসেটটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক অরিজিনওএস ওশান (OriginOS Ocean) কাস্টম ইউজার ইন্টারফেসে রান করে।

ক্যামেরার ক্ষেত্রে, Vivo S15e-এর ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপের মধ্যে ৫০ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো সেন্সর অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। আবার ফোনের সামনে সেলফি ও ভিডিও চ্যাটের জন্য ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট-ফেসিং ক্যামেরা বর্তমান। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য, Vivo S15e ফোনটি ৪,৭০০ এমএএইচ ব্যাটারির সাথে ৬৬ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট অফার করে। এছাড়া নিরাপত্তার জন্য, এতে একটি ইন-স্ক্রিন ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারও দেওয়া হয়েছে।

সবার আগে খবর পেতে Google News-এ ফলো করুন