Phone Unlock Scam: হ্যাকাররাও হার মানবে, ফোন আনলক করে কোটি কোটি টাকা আয় করলেন এই ব্যক্তি

ফোন আনলক করে কোটি কোটি ডলার কামালেন এই ব্যক্তি, কীভাবে এই অসাধ্যসাধন করলেন তা জেনে নিন

US Man Make Million Hacked Password Unlock T-Mobile

জীবনে বেঁচে থাকতে গেলে পকেটে টাকা থাকা তো একান্ত আবশ্যক, তাই মানুষ বিভিন্ন উপায়ে মাথার ঘাম পায়ে ফেলে টাকা রোজগার করে থাকেন। তবে এই প্রতিবেদনে আজ আমরা আপনাদেরকে এমন এক ব্যক্তির কথা জানাতে চলেছি, যিনি ইউজারদের ফোন আনলক করে কোটি কোটি ডলার পকেটস্থ করেছেন! আজ্ঞে হ্যাঁ, শুনে অবিশ্বাস্য বলে মনে হলেও ঘটনাটি কিন্তু সত্যি। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার আরগিস্তি খুদাভার্দিয়ান (Argishti Khudaverdyan) নামের এক ব্যক্তিকে পাসওয়ার্ড চুরি করে ২.৫ মিলিয়ন ডলার (প্রায় ১৯৮.৪১ কোটি টাকা) আয়ের দায়ে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। ৪৪ বছর বয়সী খুদাভার্দিয়ান টি-মোবাইল (T-Mobile)-এর সিস্টেম হ্যাক করে ব্যবহারকারীদের ফোন আনলক করার ফলে মুঠো মুঠো টাকা হাতিয়ে নিতে সক্ষম হয়েছেন বলে এক রিপোর্টে জানা গিয়েছে।

তিনি নিজেই T-Mobile ফোন বিক্রি করেন

প্রসঙ্গত আপনাদেরকে বলে রাখি, মার্কিন বাজারে উপলব্ধ অনেক স্মার্টফোন মোবাইল ক্যারিয়ার লক সহ আসে। অর্থাৎ, এই স্মার্টফোনগুলিতে আপনি অন্য কোনো সংস্থার সিম কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন না। এই ধরনের অনেক ডিভাইস বিক্রি করে টি-মোবাইল নামক একটি কোম্পানি, আর এই সংস্থার একটি মোবাইলের দোকানের মালিক হলেন আরগিস্তি খুদাভার্দিয়ান। তার দোকানটি লস এঞ্জেলেসের ঈগল রক এরিয়াতে অবস্থিত। রিপোর্টে বলা হয়েছে, ওই ব্যক্তি ব্যবহারকারীদের ফোনকে অননুমোদিতভাবে আনলক করেছেন, যাতে তিনি তার ফোনে অন্য কোম্পানির নেটওয়ার্ক ব্যবহার করতে পারেন। এভাবেই তিনি আয় করেছেন প্রায় আড়াই কোটি ডলার। উল্লেখ্য, খুদাভার্দিয়ান সেই সমস্ত গ্রাহকদের ফোন আনলক করতেন, যাদের লকড ক্যারিয়ার হল টি-মোবাইল।

কীভাবে হাতিয়ে নিলেন কোটি কোটি ডলার?

এই কুকর্মটিকে সুষ্ঠুভাবে সুসম্পন্ন করার জন্য তিনি কোম্পানির কর্মীদের ফিশিং ইমেইল পাঠাতেন, যার ফলে কোম্পানির অভ্যন্তরীণ সিস্টেমের অ্যাক্সেস তার হাতের মুঠোয় চলে আসতো। যে সমস্ত ব্যবহারকারীরা এই ফিশিং ইমেইলের ফাঁদে পা দিতেন, তাদের ক্রেডেনশিয়ালস চুরি করে খুদাভার্দিয়ান অন্যান্য ব্যবহারকারীদের ফোন আনলক করতেন। রিপোর্ট অনুযায়ী, তিনি লক্ষ লক্ষ ফোন আনলক করেছেন, যার মধ্যে চুরি হওয়া এবং হারিয়ে যাওয়া ডিভাইসের পাশাপাশি বিশ্বখ্যাত টেক জায়েন্ট Apple (অ্যাপল)-এর iPhone (আইফোন)-ও শামিল রয়েছে। ২০১৪ সাল থেকে শুরু করে ২০১৯ সাল পর্যন্ত প্রচুর সংখ্যক ফোনকে আনলক করার এই অভাবনীয় কৃতিত্ব অর্জন করেছেন তিনি!

রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে যে, খুদাভার্দিয়ান তার এই জঘন্য পরিকল্পনাকে বাস্তবায়িত করার জন্য দালাল, ইমেইল এবং ওয়েবসাইটের সাহায্যও নিয়েছেন। তবে কুকর্ম করলে তার ফল তো ভোগ করতেই হবে, তাই দিনের পর দিন অসৎ উপায় অবলম্বন করে ইউজারদেরকে প্রতারিত করার দায়ে অবশেষে আইনের জালে জড়িয়ে পড়েছেন তিনি। পাসওয়ার্ড চুরি করে অননুমোদিতভাবে ফোন আনলক করার জন্য তাকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে, এবং আদালত আগামী ১৭ অক্টোবর তার সাজা ঘোষণা করবে বলে জানা গিয়েছে।

সবার আগে স্মার্টফোন ও প্রযুক্তি দুনিয়ার যাবতীয় খবর এবং গাড়ি-বাইকের সমস্ত আপডেট পেতে ফলো করুন আমাদের Google NewsTwitter পেজ, সঙ্গে অ্যাপ ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।