150 সিসি বাইকের বাজারে শীর্ষস্থানে Yamaha, বিক্রিতে অবিশ্বাস্য ধস Pulsar, Apache-দের

top-selling-150cc-bikes-in-april-2022-yamaha-fz-series-tops-pulsar-apache-sales-down-significantly

২০২১-এর এপ্রিলে দেশের ১৫০-১৬০ সিসি বাইকের বাজারে জয়জয়কার জাপানি ব্র্যান্ডেগুলির। কিন্তু ততটাই মুখ ভার ভারতীয় সংস্থাদের। কারণ Bajaj Pulsar 150 ও TVS Apache সিরিজের বিক্রিতে অবিশ্বাস্য ধস। যা কখনও কল্পনা করা যায়নি। ফলে এই সেগমেন্টের বাইকের বাজারে উত্থান ঘটেছে Yamaha ও Honda-দের।

গত মাসে FZ সিরিজের সৌজন্যে বিক্রির নিরিখে ১৫০ সিসি সেগমেন্টে শীর্ষস্থান দখল করেছে ইয়ামাহা। সংস্থার ওই সিরিজের বাইকগুলির ১৬,৫০৮ ইউনিট বিক্রি হয়েছে। ২০২১-এর এপ্রিলে যা ছিল ১২,২৯৮টি। অর্থাৎ বিক্রিবাটা বেড়েছে ৩৪ শতাংশ‌‌। দ্বিতীয় স্থানে আরেক জাপানি ব্র্যান্ড হোন্ডা। সংস্থাটি তাদের Unicorn  মডেলের ১৩,১৭৩ ইউনিট বেচেছে।

তিন নম্বরে পুনরায় ইয়ামাহা। সদ্য লঞ্চ হওয়া MT-15 V2 নেকেড বাইক ৯,২২৮টি বিক্রি হয়েছে। ২০২১-এর এপ্রিলে বাইকটির প্রথম সংস্করণের ৫,৬৯২ ইউনিট বিক্রি হয়েছিল। চতুর্থ স্থানেও সেই ইয়ামাহা‌। R15 সিরিজের হাত ধরে সংস্থাটির সঙ্গে যুক্ত হয়েছে ৭,৯৪৮ নতুন গ্রাহক। গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ১,৯২৬ বেশি।

বরাবরই শীর্ষস্থানে থাকা বা রানার আপ হওয়া TVS Apache RTR লাইনআপ নেমে গিয়েছে পাঁচ নম্বরে। বিক্রি হয়েছে ৭,৩৪২টি‌। ঋণাত্মক বৃদ্ধি ৭৫ শতাংশ। ২০২১-এর অ্যাপাচি আরটিআর-এর ২৯,৪৫৮ ইউনিট বেচেছিল টিভিএস। বিক্রি তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে বাড়িয়ে নিয়েছে Hero Xtreme 160R। ২০২১-এর এপ্রিলের তুলনায় গত মাসে ৭৪ শতাংশ বেড়ে বাইকটির ৩,৯৮১ ইউনিট বিক্রিবাটার খবর এসেছে।

Bajaj Pulsar 150-এর হালও শোচনীয়। গত মাসে বাইকটির মাত্র ২,১৭৭ ইউনিট বিক্রি হয়েছে। ২০২১-এর এপ্রিলে যার পরিমাণ ছিল ২১,১০০৷ বেচাকেনায় ৯০ শতাংশ পতন। ১০০৮ ইউনিট বিক্রয়ের মাধ্যমে আট নম্বরে Suzuki Gixxer ও SF 155। শেষ দুই স্থানে জায়গা পেয়েছে Honda Hornet 2.0 ও CB200X (নবম) ও Honnda X-Blade। বাইক দু’টির নতুন চাবি হাতে উঠেছে যথাক্রমে ৮৪২ ও ৭৬৩ জনের হাতে।

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।