Electric Scooter: মূল্যবৃদ্ধি থেকে পরিত্রাণ, পঞ্চাশ হাজারের নীচে পাবেন এই পাঁচটি সেরা ই-স্কুটার

top-5-affordable-electric-scooters-to-buy-under-rs-50000

পেট্রোল-ডিজেলের নাস্তানাবুদ করা দামের কারণে বহু মানুষ তাদের অতি শখের বাহনটি শামিয়ানায় মুড়ে রেখেছেন। পকেট গড়ের মাঠ হবে ভেবে, অনেকেই পরিবেশবান্ধব যানবাহনের দিকেই দৃষ্টিপাত করছেন। এক্ষেত্রে একটি বৈদ্যুতিক দুই বা চার চাকার গাড়ি সবচেয়ে সেরা বিকল্প। কারণ এতে একদিকে যেমন জ্বালানি ভরানোর চিন্তা নেই, তেমন পরিবেশের পক্ষেও অনুকূল। দেশে বৈদ্যুতিক যানবাহনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয় টু-হুইলার। এই প্রতিবেদনে ৫০,০০০ টাকার মধ্যে সেরা পাঁচটি ইলেকট্রিক স্কুটারের হদিশ রইল।

Ujaas Energy eGO

এই দুর্মূল্যের বাজারেও মাত্র ৩৪,৮৮০ টাকাতেই কিনতে পারবেন Ujaas Energy eGO ই-স্কুটার। এর প্রিমিয়াম মডেলটির আবার ৩৯,৮৮০ টাকা (দুটোই এক্স-শোরুম মূল্য) দাম। স্কুটারটি LA 48V ও eGO LA 60V – এই দুই ভ্যারিয়েন্টে বাজারে উপলব্ধ। এতে রয়েছে ৬০ ভোল্ট/২৬ অ্যাম্পিয়ার আওয়ার ব্যাটারি এবং একটি ২৫০ ওয়াট ইলেকট্রিক মোটর। সম্পূর্ণ চার্জে ৭৫ কিমি রেঞ্জ পাওয়া যায়। বাড়িতে ব্যাটারিটি ফুল চার্জ হতে সময় লাগে ৬-৭ ঘন্টা। বিশেষ ফিচারের মধ্যে এলইডি হেড ও টেল ল্যাম্প, ইউএসবি চার্জিং, ডিজিটাল ইন্সট্রুমেন্ট কনসোল, স্টার্ট/স্টপ পুশ বটন এবং সামনে ও পেছনের চাকার ড্রাম ব্রেক উপস্থিত।

Evolet Pony

Evolet Pony একটি স্বল্প গতির বৈদ্যুতিক স্কুটার, যা EZ (VRLA ব্যাটারি সহ) ও Classic (লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি সহ) ভ্যারিয়েন্টে বেছে নেওয়া যায়। EZ মডেলটির দাম ৩৯,৪৯৯ টাকা (এক্স-শোরুম) ও ক্লাসিক ভ্যারিয়েন্টের মূল্য ৪৯,৪৯৯ টাকা (এক্স-শোরুম)। রেট্রো স্টাইলিংয়ের স্কুটারটিতে আছে আধুনিক ফিচার। যেমন ফুল ডিজিটাল ইন্সট্রুমেন্ট কনসোল, মোবাইল অ্যাপ কানেক্টিভিটি, এলইডি লাইটিং সহ আরও অন্যান্য। আবার ল্যাভেন্ডার, মিডনাইট ব্লু এবং সিলভার কালারে বেছে নেওয়া যায় এটি। ঘন্টা প্রতি গতিবেগ ২৫ কিমি হওয়ার কারণ এই ই-স্কুটার চালাতে কোন ড্রাইভিং লাইসেন্সের প্রয়োজন নেই। সম্পূর্ণ চার্জে ৫৫-৬০ কিমি রেঞ্জ পাওয়া যাবে। ২৫০ ওয়াট বিএলডিসি ইলেকট্রিক মোটর এবং লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি রয়েছে এতে।

Bounce Infinity E1

অতি পরিচিত Bounce Infinity E1 কিনতে খরচ হয় ৪৫,০৯৯ টাকা (ভর্তুকি ধরে সর্বনিম্ন মূল্য)। তবে টপ ভ্যারিয়েন্টটির দাম ৬৮,৯৯৯ টাকা (এক্স-শোরুম)। ৪৮ ভোল্ট/৩৯ অ্যাম্পিয়ার আওয়ার ব্যাটারি এবং একটি ইলেকট্রিক মোটর আছে এতে। যা থেকে ৮৩ এনএম টর্ক পাওয়া যায়। একবার চার্জে ৮৫ কিমি পথ দৌড়য়। ব্যাটারিটি চার্জ হতে সময় লাগে ৪-৫ ঘন্টা।Infinity E1-এর সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘন্টায় ৬৫ কিমি। পাওয়ার এবং ইকো রাইডিং মোড উপলব্ধ এতে। ব্লুটুথ কানেক্টিভিটি সহ এলসিডি কনসোল, টেলিস্কোপিক ফর্ক ও ডুয়েল শক এবং ক্রুজ কন্ট্রোলের দেখা মেলে স্কুটারটিতে।

Hero Electric Flash

LX VRLA ও Flash LX ভ্যারিয়েন্টে বেছে নেওয়া যায় Hero Electric Flash-এর । দাম যথাক্রমে ৪৬,৬৪০ টাকা ও ৫৯,৬৪০ টাকা (এক্স-শোরুম)। সংস্থার দাবি, তাদের এই ইলেকট্রিক স্কুটারের টপ স্পিড ২৫ কিমি/ঘন্টা এবং একচার্জে ৮৫ কিমি পথ চলতে পারে। এতে ২৫০ ওয়াট বিএলডিসি ইলেকট্রিক মোটর এবং একটি ৫১.২ কিলোওয়াট/৩০ অ্যাম্পিয়ার আওয়ার লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি আছে। ব্যাটারি এবং মোটরের উপর তিন বছরের স্ট্যান্ডার্ড ওয়ারেন্টি উপলব্ধ। ফিচারের তালিকা স্টার্ট/স্টপ পুশ বটন, এলইডি হেডলাইট, ডিআরএল, মোবাইল অ্যাপ কানেক্টিভিটি, ১২ ইঞ্চি অ্যালয় হুইল এবং ডিজিটাল স্পিডোমিটার রয়েছে।

Avon E-Scoot

কেবলমাত্র একটি ভ্যারিয়েন্ট বাজারে উপলব্ধ Avon E-Scoot, যার দাম ৪৫,০০০ টাকা (এক্স-শোরুম)। এতে ২১৫ ওয়াট বিএলডিসি ইলেকট্রিক মোটর এবং একটি ৪৮ কিলোওয়াট/২০ অ্যাম্পিয়ার আওয়ার VRLA ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। যা থেকে ৬৫ কিমি রেঞ্জ মেলে। ফিচারের মধ্যে আছে স্টার্ট/স্টপ পুশ বটন, ডিজিটাল ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার, বড় আন্ডারসিট স্টোরেজ, সামনে এবং পিছনে ড্রাম ব্রেক, টিউবলেস টায়ার সহ আরও অন্যান্য বৈশিষ্ট্য। ৬-৭ ঘন্টায় ব্যাটারিটি সম্পূর্ণ চার্জ হয়ে যায়।

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

শুভদীপ টেকগাপে অটোকার বিষয়ক লেখালিখি করে। এর আগে বিভিন্ন পোর্টালের সাথে যুক্ত থাকলেও, অটোকার নিয়ে টেকগাপে তার হাতেখড়ি। দিনকে দিন সে টেকগাপের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হয়ে উঠেছে।