Tata Motors বৈদ্যুতিক গাড়ি ব্যবসায় ১৫ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে

: বৈদ্যুতিক গাড়ি শিল্পে মোটা অঙ্কের টাকা বিনিয়োগ করতে চলেছে Tata Motors

tata-motors-to-invest-rs-15000-crore-in-electric-car-business

বৈদ্যুতিক জ্বালানি নির্ভর গাড়ির প্রতি দেশের জনগণের আগ্রহ বাড়াতে ইতিমধ্যেই দেশ-বিদেশের নামিদামি একাধিক অটোমোবাইল (Automobile) সংস্থার সাথে বৈঠক করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এর ফলে দেশীয় সংস্থাগুলির পাশাপাশি আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলিও ভারতে ইলেকট্রিক গাড়ির বাজারে বিনিয়োগ করতে উৎসাহ দেখাচ্ছে। এমনকি এদেশের মাটিতেই নিজেদের উৎপাদন কেন্দ্র গড়ার কাজও শুরু করে দিয়েছে একাধিক শিল্প তালুক। সরকারের কথায় সাড়া দিয়ে এবার দেশের অন্যতম গাড়ি প্রস্তুতকারী সংস্থা টাটা (Tata) বৈদ্যুতিক গাড়ির বাজারে মোটা অঙ্কের টাকা বিনিয়োগের কথা ঘোষণা করলো। আগামী দিনে এক্ষেত্রে মোট ১৫,০০০ কোটি টাকা লগ্নি করবে Tata।

সূত্রের খবর অনুযায়ী, আগামী চার বছরের মধ্যে নিজেদের দশটি নতুন যাত্রী পরিবহণকারী বৈদ্যুতিক বড় গাড়ি বাজারে আনাতে চলেছে টাটা। ছোট এবং এসইউভি উভয় গাড়িই থাকবে এই তালিকায়। প্রাইভেট সংস্থা টিপিজি রাইস ক্লাইমেট (TPG Rise Climate) টাটাতে ১ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করার কথা জানার পরই বৈদ্যুতিক গাড়ি শিল্পের জন্য এই ঘোষণা করেছে সংস্থাটি। টাটা মোটরসের সভাপতি শৈলেশ চন্দ্র বলেছেন, “আগামী চার থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে ২০% পরিবেশবান্ধব গাড়ি বিক্রির প্রত্যাশা নিয়ে প্রোডাক্টগুলি লঞ্চ করার পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের।”

এ প্রসঙ্গে শৈলেশ আরো বলেছেন, “বর্তমানে মাত্র দুটি বৈদ্যুতিক মোটরগাড়ি Tata Nexon ও Tata Tigor এর প্রতি মাসে তিন থেকে সাড়ে তিন হাজার ইউনিট বুকিংয়ের আবেদন পাচ্ছি আমরা। যদিও আমরা প্রতিমাসে কেবলমাত্র এর ১,০০০ ইউনিট জোগান দিতে পারি। এখন বৈদ্যুতিক গাড়ির শিল্পে ২ বিলিয়ান ডলার বিনিয়োগ করতে চলেছি এবং আশা রাখছি আগামী দিনে আসন্ন দশটি ইলেকট্রিক গাড়ির হাত ধরেই আমাদের উৎপাদন ক্ষমতা এবং চার্জিং পরিকাঠামো বৃদ্ধি পাবে, সাথে আর্থিক সমৃদ্ধিও ঘটবে।”

প্রসঙ্গত, গত মাসে নেক্সন (Nexon) এর হাত ধরে সংস্থার কিউমুলেটিভ সেল ১০,০০০ ইউনিট পেরিয়েছে বলে জানিয়েছিল টাটা। অন্যদিকে সদ্য লঞ্চ হওয়া টিগর (Tigor) ইলেকট্রিক সেডান গাড়িটিও বাজারে ব্যাপক সাড়া ফেলবে বলেই আশাবাদী সংস্থাটি। কারণ ইতিমধ্যেই দেশের কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারগুলি বৈদ্যুতিক গাড়ি শিল্পে নিত্য নতুন সুযোগ সুবিধার পাশাপাশি চার্জিং পরিকাঠামো বাড়ানোর পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করে চলেছে। এমনকি বর্তমানে বিদ্যমান বৈদ্যুতিক গাড়ি দুটির সাফল্য দেখে আগামী দিনে সংস্থার জীবাশ্ম জ্বালানি নির্ভর গাড়ি আল্ট্রস (Altros) ও সদ্য লঞ্চ হওয়া টাটা পাঞ্চ (Tata Punch) কেও বৈদ্যুতিক জ্বালানি নির্ভর করে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানিয়েছে Tata Motors।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।