Starlink ব্রডব্যান্ড পরিষেবা চালু হল ৩২টি দেশে, ভারত তালিকায় রয়েছে?

কিছুদিন আগের ঘোষণা অনুযায়ী বিশ্বের ২৫টি দেশে Starlink পরিষেবার উপলব্ধতার কথা শোনা যায়

starlink-now-available-32-countries-coming-soon-to-india-specex

এবার থেকে পৃথিবীর ৩২টি দেশে মিলবে স্যাটেলাইট-ভিত্তিক স্টারলিংক (Starlink) ইন্টারনেট পরিষেবা। আজ্ঞে হ্যাঁ, ইতিমধ্যে স্টারলিংকের প্যারেন্ট সংস্থা স্পেসএক্স (SpaceX) -এর তরফ থেকে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার মাধ্যমে এ কথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, মহাকাশ সংস্থা SpaceX -এর কর্ণধার ইলন মাস্ক অল্প কয়েকদিন আগেই জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া সাইট টুইটার (Twitter) কিনে নিয়েছেন। একই সময়ে তারই মালিকানাধীন স্টারলিংকের স্যাটেলাইট-নির্ভর ইন্টারনেট পরিষেবাকে কেন্দ্র করে ক্রমেই ভারত তথা সারা বিশ্বে আগ্রহ তীব্র হচ্ছে। এহেন পরিস্থিতিতেই স্পেসএক্সের পক্ষ থেকে বিবৃতি জারি করে বিশ্বের ৩২টি দেশে Starlink পরিষেবার উপলব্ধতা ঘোষণা করা হলো।

বিশ্বের কোথায় কোথায় চালু হবে Starlink পরিষেবা – জেনে নিন

আগেই বলেছি যে ধনকুবের ইলন মাস্কের মালিকানাধীন স্টারলিংক পরিষেবার প্রতি বিশ্ববাসীর মধ্যে আগ্রহ ক্রমেই বাড়ছে। বহু ভারতীয়রাও ইতিমধ্যে আলোচ্য পরিষেবা ব্যবহারের ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন। যদিও সদ্য যে ৩২টি দেশে স্টারলিংক পরিষেবার উপলব্ধতার কথা ঘোষণা করা হয়েছে, তার মধ্যে ভারতের নাম নেই। ফলে ভারতীয়রা ঠিক কবে নাগাদ এই পরিষেবা ব্যবহার করতে পারবেন তা এখনই বলা যাচ্ছে না।

পৃথিবীর কোন কোন অংশে স্টারলিংক পরিষেবা ব্যবহারের সুবিধা পাওয়া যাবে, সংস্থার তরফ থেকে টুইটারে একটি ম্যাপ শেয়ার করে তা বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। ম্যাপ অনুযায়ী বর্তমানে ইউরোপ ও উত্তর আমেরিকার বেশিরভাগ অংশে আলোচ্য পরিষেবার গ্রাহক হওয়া সম্ভব। তাছাড়া দঃ আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বাসিন্দারাও স্যাটেলাইট যোগাযোগের উপর নির্ভরশীল স্টারলিংক পরিষেবা অ্যাক্সেস করতে পারবেন।

প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি, কয়েক মাস আগে ডেলিভারি সংক্রান্ত সমস্যার জন্য সাধারণ গ্রাহকদের রোষের মুখে পড়ে স্টারলিংক। মূলত পরিষেবা সরবরাহে দেরির কারণেই বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের গ্রাহকেরা আলোচ্য সংস্থার প্রতি তাদের ক্ষোভ উগরে দেন। কিন্তু তার পর থেকেই ইলন মাস্ক অধিকৃত সংস্থাটি উক্ত ডেলিভারি সমস্যা সমাধানে প্রয়াসী হয়েছে। সদ্য ঘোষণার মাধ্যমেই তারা জানিয়েছে যে এখন থেকে তাদের পরিষেবা গ্রহণে আগ্রহী হলে প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই তারা উপভোক্তার কাছে তা পৌঁছে দেবেন।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগের ঘোষণা অনুযায়ী বিশ্বের ২৫টি দেশে Starlink পরিষেবার উপলব্ধতার কথা শোনা যায়। কিন্তু এবার ৩০টিরও বেশি দেশে স্টারলিংক পরিষেবা প্রাপ্তির কথা জানিয়ে দেওয়া হল।

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020