গত বছরে ৩০ কোটি ইউনিট স্মার্টফোন বানিয়ে রেকর্ড Samsung-এর

স্যামসাং আপাতত ২০ কোটি ইউনিট মত স্মার্টফোন সরবরাহ করতে সক্ষম হয়েছে

গোটা ২০২১ সালটা জুড়েই স্মার্টফোন সংস্থাগুলি সেমিকন্ডাক্টর চিপের সরবরাহের ঘাটতির সম্মুখীন হয়েছে৷ তবে এই সমস্যার মধ্যেও কিছু সংস্থা লক্ষ লক্ষ ইউনিট প্রোডাক্ট তৈরি করতে সক্ষম হয়েছিল৷ তেমনি একটি সংস্থা হল Samsung। এই সাউথ কোরিয়ান ইলেকট্রনিক্স সংস্থাটি গতবছর বিপুল পরিমাণ ডিভাইস প্রস্তুত করেছে। তার প্রমাণ স্বরূপ নতুন রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, Samsung গতবছর প্রায় ৩০০ মিলিয়ন বা ৩০ কোটি ইউনিট স্মার্টফোন উৎপাদন করেছে।

২০২১- এ Samsung উৎপাদন করেছে প্রায় ৩০ কোটি ইউনিট স্মার্টফোন

The Elec- এর (স্যামমোবাইলের মাধ্যমে) একটি রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে যে, স্যামসাং গতবছর প্রায় ৩০ কোটি ইউনিট স্মার্টফোন তৈরি করেছে। এর মধ্যে প্রায় ২৩ কোটি ৮০ লক্ষ ইউনিট সংস্থাটি নিজেই তৈরি করেছে, আর ৬০ মিলিয়ন ইউনিট অরিজিনাল ডিজাইন ম্যানুফ্যাকচারার (ODM) দ্বারা তৈরি করা হয়েছে।

জানিয়ে রাখি, স্যামসাংয়ের কিছু বাজেট গ্যালাক্সি স্মার্টফোন উইংটেক (Wingtech) এবং হুয়াকিনের (Huaqin) মতো ওডিএম বা অরিজিনাল ডিজাইন ম্যানুফ্যাকচারার দ্বারা উৎপাদিত হয়।

এছাড়াও রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, যদিও স্যামসাং ৩০ কোটিরও বেশি স্মার্টফোন তৈরি করেছে, তবে তারা আপাতত ২০ কোটি ইউনিট মত স্মার্টফোন সরবরাহ করতে সক্ষম হয়েছে। কারন প্রোডাকশন ইউনিটগুলি ডিস্ট্রিবিউটর এবং টেলিকমগুলিতে পৌঁছতে প্রায় ১ থেকে ২ মাস সময় নেয়। উল্লেখ্য, স্যামসাংয়ের আসলে ২০২১ সালে ৩০ কোটি ইউনিট সরবরাহ করার লক্ষ্যে ছিল। কোভিড-১৯ মহামারীজনিত কারণে ভিয়েতনামে ম্যানুফ্যাকচারিং সমস্যা না হলে এটা সম্ভব হত। এর ফলে Galaxy S21 সিরিজের বিক্রিও কম হয়েছে।

এই কারণেই Samsung Galaxy S21 সিরিজটি সংস্থার ইতিহাসে সবচেয়ে কম বিক্রি হওয়া Galaxy S সিরিজের ডিভাইস। সংস্থা গতবছর জুড়ে এই সিরিজের মাত্র আড়াই কোটি ইউনিট সরবরাহ করতে পেরেছে। Samsung সাধারণত, গ্যালাক্সি এস লাইনআপ এক বছরে ৩.৫ থেকে ৪ কোটি ইউনিট শিপমেন্ট করে থাকে।

প্রসঙ্গত, রিপোর্টে বলা হয়েছে স্যামসাং ২০২১ সালে তাদের কম্পোনেন্ট সাপ্লাই চেইনকে বৈচিত্র্যময় করে তোলায়, Samsung Galaxy A এবং Samsung Galaxy M সিরিজের স্মার্টফোনগুলি বেশি সরবরাহ করার দিকে মনোনিবেশ করেছে। চলতি বছরে স্যামসাং ৩৩৪ মিলিয়ন বা ৩৩.৪ কোটি ইউনিট স্মার্টফোন সরবরাহের লক্ষ্য রয়েছে। এর মধ্যে ২৮ কোটি ৫০ লক্ষ ইউনিট হবে নিজস্ব উৎপাদন আর বাকিগুলি হবে ওডিএম থেকে।

সবার আগে খবর পেতে Google News-এ ফলো করুন