স্যামসাং ফোনের ওপর ৭,০০০ টাকা ছাড়! Samsung Galaxy Z Fold 3 5G হাজার হাজার টাকা ডিসকাউন্টে কেনার সুযোগ

Samsung-এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে Z Fold 3 কিনলে ৭,০০০ টাকা পর্যন্ত ক্যাশব্যাক পাওয়া যাবে

গত মাসে ভারতসহ বিশ্ববাজারে পা রেখেছিল Samsung-এর নতুন ফোল্ডেবল স্মার্টফোন Galaxy Z Fold 3 (গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৩) এবং Galaxy Z Flip 3 (গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৩)। তবে এগুলি যে একেবারে সহজলভ্য তা নয়! বরঞ্চ ভিন্ন ডিজাইন ও ফিচারে ঠাসা এই ফোনগুলির দাম আইফোনের থেকেও বেশি। আজ্ঞে হ্যাঁ! ভারতে Galaxy Z Fold 3-এর দাম শুরু হয়েছে ১,৪৯,৯৯৯ টাকা থেকে। এরপরও যদি আপনার এই স্মার্টফোনটি কেনার ইচ্ছা থাকে, তাহলে আপনার জন্য একটি দুর্দান্ত অফারের ঘোষণা করেছে দক্ষিণ কোরিয়ান ব্র্যান্ডটি। বর্তমানে Samsung-এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে Z Fold 3 কিনলে ৭,০০০ টাকা পর্যন্ত ক্যাশব্যাক পাওয়া যাবে। সাথে থাকবে আরো কিছু বিশেষ অফার এবং ছাড়।

Samsung Galaxy Z Fold 3-এর দাম

নতুন স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৩ ফোনের ১২ জিবি/২৫৬ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ১,৪৯,৯৯৯ টাকা। যেখানে এর ১২ জিবি/২৫৬ জিবি স্টোরেজ কিনতে গেলে ১,৫৭,৯৯৯ টাকা লাগবে। ফোনটি পাওয়া যাবে ফ্যান্টম ব্ল্যাক এবং ফ্যান্টম গ্রিন রঙে। সেক্ষেত্রে সংস্থার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক কার্ড ব্যবহার করে ফোনটি নেওয়া হলে, ক্রেতারা ৭,০০০ টাকা ক্যাশব্যাক পাবেন। এছাড়া এক্সচেঞ্জ অফারের আওতায় মিলবে ৭,০০০ টাকার অতিরিক্ত ছাড়। উপরন্তু, ফোনটি ১৮ মাসের সময়সীমায় নো কস্ট ইএমআই বিকল্পে কেনা যাবে। স্যামসাং শপ অ্যাপ থেকে প্রথমবার কেনাকাটা করলে অতিরিক্ত ২ হাজার টাকা ডিসকাউন্ট উপভোগ করার সুযোগ থাকবে।

কী আছে Samsung Galaxy Z Fold 3 ফোনে?

স্পেসিফিকেশনের কথা বললে, স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৩-তে ৭.৬ ইঞ্চির প্রাইমারি ডায়নামিক অ্যামোলেড 2x ইনফিনিটি ফ্লেক্স ডিসপ্লে রয়েছে, যার রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ। এর সেকেন্ডারি ডিসপ্লের সাইজ ৬.২ ইঞ্চি। ফোনটি ৫ ন্যানোমিটার (5nm) অক্টা-কোর প্রসেসরে চলে। আবার ফটোগ্রাফির জন্য এতে বিদ্যমান ১২ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি সেন্সরযুক্ত ট্রিপল-রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ, ১০ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা এবং ৪ মেগাপিক্সেল রেজোলিউশনের একটি আন্ডার-ডিসপ্লে ক্যামেরা।

পাওয়ার ব্যাকআপের ক্ষেত্রে গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৩ মডেলটিতে ৪,৪০০ ডুয়াল সেল ব্যাটারি ক্যাপাসিটি মিলবে যা ওয়্যারলেস এবং ওয়্যারড (তারযুক্ত) চার্জিং সমর্থন করে। এছাড়াও কানেক্টিভিটির জন্য এই ফোনে পাওয়া যাবে 5G, 4G LTE, ওয়াইফাই ৬, ব্লুটুথ ৫.২, জিপিএস/এ-জিপিএস, এনএফসি, আল্ট্রা-ওয়াইড ব্যান্ড (UWB) এবং ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট। তবে এই ফোনের অন্যতম আকর্ষণ এস (S) পেন সাপোর্ট।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

সবার আগে খবর পেতে Google News-এ ফলো করুন