Samsung Galaxy M13 5G vs Galaxy M13 vs Galaxy A13: স্যামসাংয়ের কোন ফোন আপনার জন্য সেরা হবে

Samsung Galaxy M13 5G নাকি Galaxy M13 4G নাকি Galaxy A13 কোনটি কেনা সর্বাধিক লাভজনক

একটি নতুন স্মার্টফোন কেনার ক্ষেত্রে আমরা সাধারণত নির্দিষ্ট কয়েকটি ফিচারের নিরিখে মডেল বাছাই করে থাকি। কিন্তু, যদি পছন্দের স্মার্টফোনকে দুটি ভিন্ন কানেক্টিভিটি বিকল্পে পাওয়া যায়, তাও আবার খুব সামান্য দামের ফারাকে, তবে সিদ্ধান্ত নেওয়া একটু কঠিন হয়ে পরে। যেমন, গতকাল অর্থাৎ ১৪ই জুলাই আত্মপ্রকাশ করা Samsung Galaxy M13 5G এবং Galaxy M13 4G স্মার্টফোন দুটির ফিচার প্রায় অনুরূপ হলেও, যেটুকু তফাৎ আছে তা যথেষ্ট বিভ্রান্তি জাগাতে পারে গ্রাহকের মনে। কেননা, নবাগত ফোনটির 5G মডেলে যেখানে ডুয়েল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ এবং ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি উপলব্ধ। সেখানেই, 4G সংস্করণে পাওয়া যাবে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ, তুলনায় বড় ডিসপ্লে প্যানেল এবং ৬,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি। ফলে অ্যাডভান্স নেটওয়ার্কিং অপশন বেছে নিলে আপোষ করতেই হবে ফিচারের সাথে।

তবে, M-সিরিজের উক্ত মডেল দুটির ‘কম্বিনেশন’ ফিচার আপনারা পেয়ে যেতে পারেন গত মার্চে আগত Samsung Galaxy A13 ফোনে। যেমন, Galaxy M13 ফোনের 4G অপশনের ন্যায় একসমান ডিসপ্লে সাইজ ও চিপসেট এবং 5G বিকল্পের মতো ব্যাটারি ক্যাপাসিটি রয়েছে A-সিরিজের মডেলে। আবার উল্লেখিত তিনটি হ্যান্ডসেটেই ৫০ মেগাপিক্সেল মুখ্য সেন্সর, ৬ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম এবং সর্বোচ্চ ১২৮ জিবি রম বর্তমান। ফলে Samsung Galaxy M13 5G নাকি Galaxy M13 4G নাকি Galaxy A13 কোনটি কেনা সর্বাধিক লাভজনক হবে তা যাতে আপনারা নিজেরাই নির্ণয় করতে পারেন, তার জন্য আজ আমরা স্মার্টফোন তিনটির মধ্যে দাম ও ফিচারগত তুলনামূলক আলোচনা করবো।

Samsung Galaxy M13 5G vs Galaxy M13 4G vs Galaxy A13 : ডিসপ্লে, সেন্সর

ডুয়াল-সিমের (ন্যানো) স্যামসাং গ্যালাক্সি এম১৩ ৫জি স্মার্টফোনে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৩ প্রটেকশন সহ একটি ৬.৫ ইঞ্চির এইচডি প্লাস ডিসপ্লে আছে। এই ডিসপ্লে ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট এবং ৪০০ নিট পিক ব্রাইটনেস অফার করে। এতে সাইড-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর বিদ্যমান।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম১৩ ৪জি স্মার্টফোনে রয়েছে একটি ৬.৬ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস LCD ডিসপ্লে, যা ৪৮০ নিট পিক ব্রাইটনেস অফার করে। আবার ডিসপ্লে প্যানেলকে সুরক্ষিত রাখার জন্য এতে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ প্রটেকশন ব্যবহার করা হয়েছে। গ্যালাক্সি এম১৩ ফোনের ৫জি ভ্যারিয়েন্টের ন্যায় অনুরূপ সেন্সর বিকল্প উপস্থিত আছে ৪জি মডেলেও।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ১৩ স্মার্টফোনে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ প্রটেকশন সহ একটি ৬.৬ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০x২৪০৮ পিক্সেল) LCD ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। উক্ত ডিভাইসের পাওয়ার বাটনে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর এম্বেড করা আছে।

Samsung Galaxy M13 5G vs Galaxy M13 4G vs Galaxy A13 : প্রসেসর, অপারেটিং সিস্টেম, র‍্যাম, স্টোরেজ

পারফরম্যান্সের জন্য, স্যামসাং গ্যালাক্সি এম১৩ ৫জি স্মার্টফোনে মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৭০০ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক ওয়ান ইউআই ৪ কাস্টম ওএস দ্বারা চালিত। উক্ত ডিভাইসে ৬ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম এবং ১২৮ জিবি পর্যন্ত ইন-বিল্ট স্টোরেজ বর্তমান। যদিও স্যামসাংয়ের ‘র‌্যাম প্লাস’ ফিচারের সাহায্যে অভ্যন্তরীণ স্টোরেজকে কাজে লাগিয়ে ১২ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম বাড়ানো যাবে। আর মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ ক্যাপাসিটি ১ টেরাবাইট পর্যন্ত সম্প্রসারণ করা সম্ভব।

ভালো পারফরম্যান্স অফার করার জন্য স্যামসাং গ্যালাক্সি এম১৩ ৪জি সংস্থার নিজস্ব এক্সিনস ৮৫০ প্রসেসরের সাথে সজ্জিত হয়ে এসেছে। উক্ত ফোনের ওএস ভার্সন, র‌্যাম এবং স্টোরেজ পূর্ববর্তী ৫জি ভ্যারিয়েন্টের অনুরূপ। আর এতেও স্যামসাংয়ের ‘র‌্যাম প্লাস’ ফিচারের মাধ্যমে ১২ জিবি পর্যন্ত এক্সটেন্ডেড র‌্যামের সাপোর্ট পাওয়া যাবে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ১৩ ফোনে একটি অক্টা-কোর চিপসেট দেওয়া হয়েছে, যার নাম উল্লেখ করা হয়নি। এটি হয়তো এক্সিনস ৮৫০ চিপসেট হতে পারে। অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে ডিভাইসে লেটেস্ট অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক ওয়ানইউআই ৪.১ কাস্টম ইন্টারফেস পাওয়া যাবে। স্টোরেজ হিসাবে এতে, ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি রম বর্তমান। যদিও মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে ফোনের স্টোরেজ ক্যাপাসিটি ১ টেরাবাইট পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

Samsung Galaxy M13 5G vs Galaxy M13 4G vs Galaxy A13 : ক্যামেরা সেটআপ

ফটোগ্রাফির জন্য, স্যামসাং গ্যালাক্সি এম১৩ ৫জি স্মার্টফোনে ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর এবং ২ মেগাপিক্সেল সেকেন্ডারি সেন্সর সহ ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ উপস্থিত। আবার, সেলফি এবং ভিডিও কলিংয়ের জন্য একটি ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট-ফেসিং ক্যামেরা পাওয়া যাবে।

ফটো এবং ভিডিও তোলার জন্য স্যামসাং গ্যালাক্সি এম১৩ ৪জি স্মার্টফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে। এই ক্যামেরাগুলি হল – ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ৫ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল শুটার এবং ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর। হ্যান্ডসেটটির সামনে একটি ৮ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা দেখা যাবে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ১৩ স্মার্টফোনের ব্যাক প্যানেলে কোয়াড ক্যামেরা ইউনিট উপস্থিত, যার প্রাইমারি সেন্সরটি ৫০ মেগাপিক্সেলের। আর বাকি ক্যামেরাগুলি হল – ৫ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স, ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর, এবং ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো শুটার। ডিভাইসটির সামনে একটি ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা লক্ষণীয়।

Samsung Galaxy M13 5G vs Galaxy M13 4G vs Galaxy A13 : ব্যাটারি, কানেক্টিভিটি অপশন, পরিমাপ

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম১৩ ৫জি ফোনটির কানেক্টিভিটি অপশনের মধ্যে সামিল রয়েছে – ওয়াই-ফাই, ৫জি (১১ ব্যান্ড), এবং ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এই নয়া হ্যান্ডসেটে ১৫ ওয়াট চার্জিং সাপোর্ট সহ একটি ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। এই ফোনের পরিমাপ ১৬৪.৫x৭৬.৫x৮.৮ মিমি এবং ওজন ১৯৫ গ্রাম।

কানেক্টিভিটির জন্য গ্যালাক্সি এম১৩ ৪জি ফোনে – ওয়াই-ফাই, 4G LTE, এবং ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট অন্তর্ভুক্ত। এতে একটি ৬,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে, যা ১৫ ওয়াট চার্জিং সমর্থন। এম-সিরিজ অধীনস্ত এই স্মার্টফোনের পরিমাপ ১৬৫.৪x৭৬.৯x৯.৩ মিমি এবং ওজন ২০৭ গ্রাম।

কানেক্টিভিটি বিকল্প হিসাবে স্যামসাং গ্যালাক্সি এ১৩ স্মার্টফোনে – ওয়াই-ফাই ৮০২.১১ এ/বি/জি/এনসি, হটস্পট, ব্লুটুথ ৫.০, জিপিএস/এ-জিপিএস, এনএফসি এবং ইউএসবি টাইপ-সি ২.০পোর্ট পাওয়া যাবে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এ-সিরিজের এই মডেলে ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে, যা ২৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সমর্থন করে। ফোনটির পরিমাপ ১৬৫.১x৭৬.৪x৮.৮ মিমি এবং ওজন ১৯৫ গ্রাম।

Samsung Galaxy M13 5G vs Galaxy M13 4G vs Galaxy A13 : দাম

ভারতে, স্যামসাং গ্যালাক্সি এম১৩ ৫জি স্মার্টফোনের প্রারম্ভিক মূল্য ১৩,৯৯৯ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এই দাম ফোনটির ৪ জিবি র‌্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের। আর ৬ জিবি র‌্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ বিকল্পের দাম থাকছে ১৫,৯৯৯ টাকা।

অন্যদিকে, স্যামসাং গ্যালাক্সি এম১৩ ৪জি ফোনের ৪ জিবি র‌্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজ এবং ৬ জিবি র‌্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ অপশনের দাম যথাক্রমে ১১,৯৯৯ টাকা ও ১৩,৯৯৯ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। উক্ত দুটি স্যামসাং মডেলকেই – অ্যাকুয়া গ্রীন, মিডনাইট ব্লু এবং স্টারডাস্ট ব্রাউন কালার অপশনে পাওয়া যাবে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ১৩ স্মার্টফোনকে মোট দুটি স্টোরেজ কনফিগারেশনে নিয়ে আসা হয়েছে। সেক্ষেত্রে, ৪ জিবি জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ এবং ৬ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম যথাক্রমে ১৪,৯৯৯ টাকা এবং ১৭,৯৯৯ টাকা রাখা হয়েছে। এটি ব্ল্যাক, লাইট ব্লু, অরেঞ্জ, এবং হোয়াইট কালার অপশনে উপলব্ধ।

স্মার্টফোন, গাড়ি-বাইক সহ প্রযুক্তি দুনিয়ার সব গুরুত্বপূর্ণ খবর সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের Google News ও Twitter পেজ, সঙ্গে অ্যাপ ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।