PM-Wani WiFi: দেশজুড়ে ১০০টি রেল স্টেশনে চালু হল দ্রুতগতির ফ্রি ওয়াইফাই পরিষেবা

এবার দেশের ১০০টি রেল স্টেশনে ফ্রি পাবলিক ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্ক সার্ভিস প্রদান করতে চলেছে RailTel। PM-WANI যোজনার অধীনে এই স্কিমটি পরিচালিত হবে।

railtel-finally-launches-public-wifi-scheme-at-100-rail-stations-under-pm-wani-yojana

ভারতীয় রেলওয়ের টেলিকম পরিকাঠামো গড়ে তোলার ক্ষেত্রে RailTel (রেলটেল)-এর ভূমিকা নিঃসন্দেহে অনস্বীকার্য। তবে এবার সংস্থাটি, প্রাইম মিনিস্টার ওয়াই-ফাই অ্যাক্সেস নেটওয়ার্ক ইন্টারফেস বা PM-WANI (পিএম-বাণী) প্রকল্পের উপর ভিত্তি করে দেশের ১০০টি রেল স্টেশনে ফ্রি পাবলিক ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্ক সার্ভিস প্রদান করতে চলেছে। গতকাল অর্থাৎ সোমবার দিল্লিতে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে রেলটেলের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক পুনিত চাওলা এই জনবান্ধব পরিষেবাটি চালু করেন। ফলে বিনামূল্য ওয়াই-ফাই পরিষেবার দিকে ডিজিটাল ভারতের যাত্রা যে আরও একধাপ এগিয়ে গেল, সেকথা বলাই বাহুল্য।

এক্ষেত্রে বলে রাখি যে, রেলটেল হল একটি ভারতীয় পাবলিক সেক্টর এন্টারপ্রাইজ যা সারা দেশে ব্রডব্যান্ড এবং ভিপিএন পরিষেবা প্রদান করে থাকে। দেশব্যাপী ব্রডব্যান্ড, টেলিকম এবং মাল্টিমিডিয়া নেটওয়ার্ক তৈরি, এবং ভারতীয় রেলওয়ের ট্রেন কন্ট্রোল অপারেশন এবং নিরাপত্তা ব্যবস্থার আধুনিকীকরণের লক্ষ্যে ২০০০ সালের সেপ্টেম্বরে রেলটেল গঠিত হয়েছিল। এটি ভারতীয় রেল মন্ত্রক তথা ভারত সরকারের মালিকানাধীন। বর্তমানে দেশের একটি বড়ো অংশকে রেলটেল তার ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্ক সার্ভিসের সুবিধা প্রদান করে। আর সংস্থাটি যে পিএম-বাণী প্রকল্পের অন্যতম পথিকৃৎ, তা পুনিত চাওলার বক্তব্যে স্পষ্টভাবে উঠে এসেছে।

জানা গিয়েছে যে, রেলটেলের পাবলিক ওয়াই-ফাই পরিষেবা ২০২২ সালের জুনের শেষের দিকে পর্যায়ক্রমে ৬,১০২টি রেলওয়ে স্টেশনে সম্প্রসারিত করা হবে। এই ৬,১০২টি রেল স্টেশনে ইতিমধ্যেই ওয়াই-ফাইয়ের সুবিধা উপলব্ধ রয়েছে। ওয়াই-ডট (Wi-DOT) নামক একটি অ্যান্ড্রয়েড-ভিত্তিক মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে এই ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কের অ্যাক্সেস পাওয়া যাবে। সেক্ষেত্রে বলে রাখি যে, Google Play Store (গুগল প্লে স্টোর)-এ এই ওয়াই-ডট অ্যাপটি উপলব্ধ।

PM-WANI যোজনা কী?

বর্তমান ডিজিটাল যুগে ইন্টারনেট দৈনন্দিন জীবনযাপনের এক অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ হওয়ায় বেশি পরিমাণে ডেটা এবং হাই-স্পিড পরিষেবা পাওয়ার আশায় অনেকেই ওয়াই-ফাই কানেকশন ব্যবহার করে থাকেন, যার জন্য মাসের শেষে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা খরচ করতে হয়। কিন্তু অনেকের পক্ষেই এই ব্যয়ভার বহন করা সম্ভব হয় না। সেক্ষেত্রে সকল দেশবাসীকে বিনামূল্যে ওয়াই-ফাই পরিষেবা দিতে ভারত সরকারের টেলিযোগাযোগ বিভাগ ‘প্রাইম মিনিস্টার ওয়াই-ফাই অ্যাক্সেস নেটওয়ার্ক ইন্টারফেস’ স্কিম চালু করেছিল৷

PM-WANI প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য হল সমস্ত পাবলিক প্লেসে গ্রাহকদের নিখরচায় ওয়াই-ফাই ব্যবহারের সুবিধা দেওয়া। এই প্রকল্পের মাধ্যমে এখন গোটা দেশের প্রতিটি নাগরিক ইন্টারনেটের সঙ্গে সংযুক্ত হতে পারবেন। বিশেষত দেশের যে সমস্ত জায়গায় 4G নেটওয়ার্ক কভারেজ উপলব্ধ নয়, সেইসব জায়গার বাসিন্দাদের ডেটার চাহিদা পূরণের ক্ষেত্রে PM-WANI প্রকল্প অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। আর এর সুবাদে নাগরিকরা যে ব্যাপকভাবে লাভবান হবেন, সেকথা নিঃসন্দেহে বলাই বাহুল্য।

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।