মধ্যবিত্তের জন্য সস্তা ইলেকট্রিক স্কুটার তৈরি করছে Ola, থাকবে এই বিশেষ ফিচার

ভারতের ই-স্কুটার মার্কেটে অল্প সময়ের মধ্যে আলাদা পরিচিত তৈরি করে ফেলেছে ওলা ইলেকট্রিক (Ola Electric)‌। লঞ্চের এক বছর সম্পূর্ণ হয়নি, কিন্তু এর মধ্যেই দেশের বেস্ট সেলিং ইলেকট্রিক স্কুটারের তকমা পেয়েছে Ola S1 Pro। ভর্তুকি বাদ দিয়ে দাম ১ লাখ ৩৯ হাজার হওয়া সত্বেও। ফলে দামী হলেও জনপ্রিয়তা কতটা, তা সহজেই আঁচ করা যায়। এবার সস্তা বৈদ্যুতিক স্কুটার বাজারে আনতে উদ্যোগী হয়েছে ওলা। সংস্থার আশা, Ola S1 Pro-র সাফল্যের পুনরাবৃত্তি করতে পারবে সেটি।

রিপোর্ট বলছে, নতুন চ্যাসিস ও ক্রুজ কন্ট্রোল ফিচার দিয়ে কম দামের ব্যাটারিচালিত স্কুটারের উপরে কাজ করছে ওলা। Ola S1 Pro-র চেয়ে আরও সস্তা হবে। দাম মধ্যবিত্তের নাগালের মাধ্যমে রাখার লক্ষ্যে বেশ কিছু ফিচার বাদ দেওয়া হবে। যা বর্তমানে ওলার হাই-টেক বৈদ্যুতিক স্কুটারে দেখা যায়।

জনৈক এক টিপস্টার দাবি করেছেন, নতুন ই-স্কুটারের টাচস্ক্রিনের আয়তন ছোট করা হতে পারে। এমনকি তার জায়গায় অ্যানালগ ক্লাস্টারও দেওয়ার সম্ভাবনা। নতুন চ্যাসিস ডেভেলপ করার পিছনে উদ্দেশ্য, যাতে প্রথম থেকেই উৎপাদন খরচ কমানো যায়  তবে হাই-এন্ড গাড়ির মতো সেটি ক্রুজ কন্ট্রোল ফিচারের সাথে আসবে। অর্থাৎ একটি সুইচ টিপলেই ঠিক করে দেওয়া স্পিডে গাড়ি চলতে থাকবে৷ গতি তার কমবেশি হবে না। সামনের বছর লঞ্চ হতে পারি আপকামিং মডেলটি।

আবার দু’চাকার পাশাপাশি বৈদ্যুতিক চারচাকা গাড়িও তৈরি করছে ওলা। জল্পনা, এসএইভি, সেডান, হ্যাচব্যাক – এই তিন ধরনের বিদ্যুৎচালিত গাড়ি তৈরি করছে ওলা। ব্যাটারি তৈরির কারখানা গড়ার পরই সেগুলির নির্মাণকার্যে হাত দেবে ওলা। বৈদ্যুতিক এসইউভির হাত ধরেই চার চাকা গাড়ি বাজারে ওলার প্রবেশ ঘটবে বলে মনে করছে সংশ্লিষ্ট মহল।

গতকাল ওলার নতুন সফটওয়্যার রোলআউট এবং সেই উপলক্ষ্যে ফিউচার ফ্যাক্টরি (ই-স্কুটার কারখানা)-তে গ্রাহক উদযাপন অনুষ্ঠানে গাড়িগুলির একঝলক দেখানোও হয়েছে। যদিও আলো আঁধারি পরিবেশ থাকায় ডিজাইন পুরোপুরি বোঝা যায়নি। তবে সেগুলি যে প্রিমিয়াম হবে, তা স্পষ্ট। গাড়ি সম্পর্কে ১৫ অগাস্ট বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন ওলার কর্ণধার ভাবিশ আগরওয়াল।

স্মার্টফোন, গাড়ি-বাইক সহ প্রযুক্তি দুনিয়ার সব গুরুত্বপূর্ণ খবর সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের Google News ও Twitter পেজ, সঙ্গে অ্যাপ ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।