Ola-কে দ্বিতীয় স্থানে ঠেলে এখন দেশের ইলেকট্রিক স্কুটারের বাজারে ফার্স্টবয় Okinawa

শেষ দুই মাস ধরলে দেশের দু’চাকার বৈদ্যুতিক গাড়ির বাজারে শীর্ষস্থানে ঘটেছে বিশাল অদলবদল। এপ্রিলে এতদিন ধরে এক নম্বরে থাকা হিরো ইলেকট্রিক (Hero Electric)-কে নীচে ঠেলে ফার্স্টবয়ের জায়গা দখল করতে দেখা গিয়েছিল ওলা ইলেকট্রিক (Ola Electric)-কে। কিন্তু পরের মাসে শীর্ষ স্থান ধরে রাখতে ব্যর্থ হল ওলা। নেমে গেল দুইয়ে। আর প্রথম স্থান দখল করল ওকিনাওয়া অটোটেক (Okinawa Autotech)। গাড়ি সংস্থাগুলির সংগঠন সিয়াম জানিয়েছে, মে মাসে দেশের বৃহত্তম ই-স্কুটার নির্মাতা হল ওকিনাওয়া। গত মাসে ওকিনাওয়ার ৯৩০৯ ইউনিট ইলেকট্রিক টু-হুইলার বিক্রি হয়েছে। ২০২১-এর মে মাসে এই সংখ্যাটি ছিল মাত্র ২১৭।

আগামী দু’বছর ধরে বৈদ্যুতিক দু’চাকা গাড়ির ব্যবসায়  ১২০০ থেকে ১৫০০ কোটি টাকা লগ্নির ঘোষণা করেছে সংস্থাটি। ওকিয়ানাওয়ার প্রতিষ্ঠাতা ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর জিতেন্দ্র শর্মার বলেছেন, “আমরা ২০১৭ সালে প্রথম মডেল লঞ্চ করেছিলাম। আর এখন এদেশের রাস্তায় দেড় লাখের বেশি আমাদের বৈদ্যুতিক স্কুটার চলাচল করে।”

তাঁর কথায়, আমরা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম, ক্রেতাদের জন্য এমন পণ্য বাজারে নিয়ে আসবো, যা ব্যাটারিচালিত স্কুটারের প্রতি তাদের চিরাচরিত ধ্যান-ধারণা বদলে দেবে। মে মাসের বিক্রি পরিসংখ্যান সেই সাক্ষ্য বহন করে। ডিলারশিপ নেটওয়ার্ক বৃদ্ধি , রোডসাইড অ্যাসিস্ট্যান্ট সরবরাহ, মাসিক কিস্তি  চালু, স্মার্টফোন কানেক্টিভিটি, ইত্যাদির মাধ্যমে গ্রাহকদের সর্বোত্তম অভিজ্ঞতা দিতে বন্ধপরিকর আমরা।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি ইতালির ইলেকট্রিক হাইপারফরম্যান্স বাইক নির্মাতা টাসিটা (Tacita)-র সঙ্গে হাত মেলানোর ঘোষণা করেছে ওকিনাওয়া। ২০২৩-এর মধ্যে একটি যৌথ সংস্থা বা জয়েন্ট ভেঞ্চার গঠনের মাধ্যমে ভারতের মাটিতে অত্যন্ত আধুনিক ডিজাইন ও প্রযুক্তি সহযোগে বৈদ্যুতিক স্কুটার ও বাইক নির্মাণ করবে তারা। ভারতের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক বাজারেও রপ্তানি করা হবে সেগুলি।

সবার আগে খবর পেতে Google News-এ ফলো করুন