দেশের SUV মার্কেটে কার্যত সুনামি! দশ দিনের মধ্যে লঞ্চ হচ্ছে Mahindra, Maruti, ও Toyota-এর দুর্দান্ত এই তিন গাড়ি

দশ দিনের ব্যবধানে ভারতে লঞ্চ হতে চলেছে তিনটি দুর্দান্ত এসইউভি গাড়ি। আজ তার সুচনা হবে নতুন প্রজন্মের Mahindra Scorpio N-এর হাত ধরে। এর তিন দিন পর আত্মপ্রকাশ ঘটবে নয়া Maruti Suzuki Brezza-র। আর জুলাইয়ের প্রথম দিন লঞ্চ হবে Hyryder, যা Toyota-র বহু প্রতীক্ষিত মাঝারি আকারের এসইউভি। এই মডেলটি আবার সামনের মাসে রিব্র্যান্ডেড করে Maruti Suzuki বাজারে আনবে বলেও জল্পনা শোনা যাচ্ছে।

Mahindra Scorpio N

স্করপিওর কুড়ি তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আজ নতুন Scorpio-N লঞ্চ করা হবে। ইতিমধ্যেই গাড়িটির বাহ্যিক এবং অভ্যন্তরীণ ছবি প্রকাশ হয়েছে। বর্তমান মডেলের তুলনায় আপকামিং মডেলটি উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্যের সাথে আরো বেশি প্রিমিয়াম হয়ে উঠেছে। এটি স্করপিও ক্লাসিকের তুলনায় প্রায় ২০৬ মিমি লম্বা ও ৯৭ মিমি চওড়া। এমনকি হুইলবেসও ৭০ মিমি বৃদ্ধি করা হয়েছে।

নতুন Mahindra Scorpio-N এর বিশেষ ফিচারগুলির মধ্যে ভেন্টিলেটেড সিট (ফ্রন্ট), ৮-ইঞ্চি টাচস্ক্রিন ইনফোটেইনমেন্ট সিস্টেম, অ্যালেক্সা ভয়েস কমান্ড সাপোর্ট, কানেক্টেড কার টেকনোলজি, ১২ স্পিকার সিস্টেম, ক্রুজ কন্ট্রোল, ইলেকট্রিক সানরুফ, ডুয়াল-জোন ক্লাইমেট কন্ট্রোল এবং ওয়্যারলেস চার্জারের কথা বলতেই হয়‌। গাড়িটি ২.২ লিটার mHawk টার্বো ডিজেল এবং ২.০ লিটার mStallion টার্বো পেট্রোল ইঞ্জিন অপশনে আসবে।

গাড়িটির ২.২ লিটার ডিজেল ইঞ্জিনের আবার দু’টো ভার্সন। একটিতে কম পাওয়ার এবং আরেকটিতে তুলনামুলক ভাবে বেশি। প্রথমটি ১৩০ পিএস ও দ্বিতীয়টি ১৭৫ পিএস পাওয়ার আউটপুট দেবে। আর পেট্রোল ইঞ্জিন থেকে ২০০ পিএস পাওয়ার ৩৮০ এনএম টর্ক পাওয়া যাবে। গিয়ারবক্স অপশন হিসাবে ৬-স্পিড ম্যানুয়াল এবং ৬- অটোমেটিকের মধ্যে চয়ন করা যাবে।

Maruti Suzuki Brezza

নতুন Maruti Suzuki Brezza চারটি ট্রিমে উপলব্ধ হবে LXi, VXi, ZXi এবং ZXi+‌। তাদের মধ্যে প্রথমটি বাদে বাকিগুলি অটোমেটিক গিয়ারবক্স-সহ আসবে। এতে XL6 ও Ertiga-এর মতো ১.৫ লিটার ন্যাচারালি অ্যাস্পিরিটেড পেট্রোল ইঞ্জিন দেওয়া হবে। যার আউটপুট ১০৩ বিএইচপি এবং ১৩৬.৮ এনএম। ৫-স্পিড ম্যানুয়াল এবং ৬-স্পিড অটোমেটিক গিয়ারবক্স অপশন থাকবে।

মারুতি সুজুকি ব্রেজা ৬টি মোনোটন এবং ৩টি ডুয়াল-টোন কালার স্কিমে উপলব্ধ হবে। মোনোটোন অপশনগুলি হবে সিজলিং রেড, প্রাইম স্প্লেন্ডিড সিলভার, পার্ল ব্রেভ খাকি, মেটালিক ম্যাগমা গ্রে, পার্ল আর্কটিক হোয়াইট এবং এক্সউবারেন্ট ব্লু। ডুয়াল-টোন শেডগুলি হবে কালো এবং স্প্লেন্ডিড সিলভার, সিজলিং রেড এবং ব্ল্যাক আর হোয়াইট এবং খাকি ব্রেভ।

উল্লেখ্য, মারুতি সুজুকির প্রথম গাড়ি হিসাবে ব্রেজা  ইলেকট্রিক সান রুফ ফিচার পাচ্ছে। উল্লেখযোগ্য ফিচারগুলির তালিকায় থাকবে ৯.০ ইঞ্চি টাচস্ক্রিন ইনফোটেইনমেন্ট সিস্টেম যুক্ত নতুন ড্যাশবোর্ড, ওয়ারলেস অ্যাপেল কারপ্লে এবং অ্যান্ড্রয়েড অটো সাপোর্ট-সহ স্মার্ট প্লে প্রো+ ইন্টারফেস, ওয়্যারলেস ফোন চার্জিং, কানেক্টেড কার টেক, হেড-আপ ডিসপ্লে, নয়া ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার, ৩৬০ ডিগ্রি ক্যামেরা, হেড আপ ডিসপ্লে

Toyota Hyryder

আগামী ১ জুলাই লঞ্চ হবে টয়োটা হাইরাইডার। মারুতি সুজুকি ও টয়োটা যৌথ উদ্যোগে এই কম্প্যাক্ট এসইউভি ডেভেলপ করেছে। এটি তার সেগমেন্টের প্রথম মডেল যা  সেলফ-চার্জিং হাইব্রিড পাওয়ারট্রেন এবং একটি মাইল্ড-হাইব্রিড ইঞ্জিন-সহ আসবে  এছাড়াও টয়োটা হাইরাইডার মডেলে অল-হুইল-ড্রাইভ (AWD) সিস্টেম অপশনাল হিসাবে মিললে, যা এই ক্যাটাগরিতে এখনও কোনও এসইউভিতে দেখা যায়নি।

নতুন টয়োটা হাইরাইডার দুটি ইঞ্জিন বিকল্পের সাথে বাজারে আসবে – মাইল্ড হাইব্রিড সিস্টেম সহ ১.৫-লিটার পেট্রোল ইঞ্জিন এবং পাওয়ারফুল হাইব্রিড টেকনোলজিযুক্ত ১.৫ লিটার পেট্রোল ইঞ্জিন। মাইল্ড হাইব্রিড ইঞ্জিন যথাক্রমে ১০৩ পিএস ও ১১৬ পিএস পাওয়ার উৎপন্ন করবে। গাড়িটিতে ৩৬০ ডিগ্রি ক্যামেরা, ভেন্টিলেটেড ফ্রন্ট সিট, হেড আপ ডিসপ্লে, ইলেকট্রিক সানরুফ, বড় ফ্লোটিং টাচস্ক্রিন-সহ নানা আকর্ষণীয় ফিচার থাকবে

স্মার্টফোন, গাড়ি-বাইক সহ প্রযুক্তি দুনিয়ার সব গুরুত্বপূর্ণ খবর সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের Google News ও Twitter পেজ, সঙ্গে অ্যাপ ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।