অতুলনীয় ক্যামেরা ও অসামান্য ডিজাইন-সহ 12 মে Mototola Edge 30 ভারতে লঞ্চ হতে পারে

গত বছর জুলাইয়ে লঞ্চ হওয়া Motorola Edge 20-এর উত্তরসূরি হিসেবে কিছু দিন আগেই ইউরোপের বাজারে পা রেখেছে Motorola Edge 30। এই হ্যান্ডসেটটি Qualcomm Snapdragon 778G+, ১৪৪ হার্টজের AMOLED ডিসপ্লে, ৫০ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা এবং ৪,০২০ এমএএইচ ব্যাটারি সহ আত্মপ্রকাশ করেছে। আবার কিছুদিন ধরেই জল্পনা চলছে যে, মোটোরোলা ভারতে Edge 30 লঞ্চ করার প্রস্তুতি নিচ্ছে। আর এবার এক জনপ্রিয় টিপস্টার এদেশে এই আপকামিং ডিভাইসের লঞ্চের তারিখটি প্রকাশ করেছেন। তাঁর দাবি, ভারতে চলতি মাসেই বহু প্রতীক্ষিত Motorola Edge 30- এর ওপর থেকে পর্দা সরানো হবে।

Motorola Edge 30 আগামী সপ্তাহেই আসছে ভারতের বাজারে

টিপস্টার মুকুল শর্মার টুইট অনুযায়ী, আগামী ১২ মে ভারতের বাজারে বহু প্রতীক্ষিত মোটোরোলা এজ ৩০ লঞ্চ হবে।
সংস্থাটি শীঘ্রই লঞ্চের দিনক্ষণ নিশ্চিত করবে বলে আশা করা হচ্ছে। এজ ৩০ ভারতের প্রথম স্ন্যাপড্রাগন ৭৭৮জি প্লাস প্রসেসর চালিত ফোন হবে এবং এটি ৫জি কানেক্টিভিটি সহ সবচেয়ে মসৃণ ফোনগুলির মধ্যে অন্যতম হবে বলে মনে করা হচ্ছে। যেহেতু এই হ্যান্ডসেটটি ইতিমধ্যেই গ্লোবাল মার্কেটে উপলব্ধ রয়েছে, তাই এর স্পেসিফিকেশনগুলি আর অজানা নেই। তাহলে চলুন মোটোরোলা এজ ৩০-এর সকল স্পেসিফিকেশন, ফিচার এবং অন্যান্য বিবরণগুলি জেনে নেওয়া যাক।

মোটোরোলা এজ ৩০- এর স্পেসিফিকেশন এবং ফিচার (Motorola Edge 30 Specifications and Features)

মোটোরোলা এজ ৩০-এ ১৪৪ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সমৃদ্ধ ৬.৫ ইঞ্চির ফুল এইচডি+ অ্যামোলেড ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে, এটি একটি 10-বিট প্যানেল এবং এতে এইচডিআর১০+ কনটেন্ট সাপোর্ট করে। আগে উল্লেখ করা হয়েছে যে, এই ডিভাইসে পারফরম্যান্সের জন্য রয়েছে কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন ৭৭৮জি প্লাস চিপসেট, যা গ্রাফিক্সের জন্য অ্যাড্রিনো ৬৪২এল (Adreno 642L) জিপিইউ-এর সাথে যুক্ত। এছাড়া, মোটোরোলা এজ ৩০-এ ৮ জিবি র‍্যাম এবং ২৫৬ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ মিলবে।

ক্যামেরার ক্ষেত্রে, Motorola Edge 30-এর ব্যাক প্যানেলে অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলিজেশন (OIS) সহ ৫০ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা সেন্সর, ১১৮ ডিগ্রি ফিল্ড-অফ-ভিউ সহ ৫০ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড ক্যামেরা এবং ২ মেগাপিক্সেলের ডেপ্থ সেন্সর উপস্থিত রয়েছে। এর মধ্যে ৫০ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড লেন্সটি ম্যাক্রো সেন্সর হিসাবেও কাজ করে। আবার সেলফির জন্য, ফোনের সামনে ৩২ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা সেন্সর বর্তমান। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য, Motorola Edge 30 হ্যান্ডসেটটি ৪,০২০ এমএএইচ ব্যাটারি সহ এসেছে, যা ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। এই মোটোরোলা স্মার্টফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক মাই ইউএক্স (MyUX) কাস্টম স্কিনে রান করে।

এছাড়া, এই ডিভাইসের অন্যান্য ফিচারগুলির মধ্যে রয়েছে আইপি৫২ রেটিং, ৫জি (সাব-৬ গিগাহার্টজ) সংযোগ, ওয়াই-ফাই ৬ই, ডলবি অ্যাটমস সাপোর্ট সহ স্টেরিও স্পিকার, ব্লুটুথ ৫.২ এবং এনএফসি।

উল্লেখ্য, ইউরোপের বাজারে Motorola Edge 30-এর ৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ মডেলের মূল্য ৪৫০ ইউরো (প্রায় ৩৬,৫০০ টাকা)। তবে, ভারতে এই স্মার্টফোনটির দাম তুলনামূলকভাবে কম রাখা হবে। প্রসঙ্গত, গত বছর অগাস্টে ভারতের বাজারে পূর্বসূরি Motorola Edge 20 মডেলটি ২৯,৯৯৯ টাকায় লঞ্চ হয়েছিল।

স্মার্টফোন, গাড়ি-বাইক সহ প্রযুক্তি দুনিয়ার সব গুরুত্বপূর্ণ খবর সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের Google News ও Twitter পেজ, সঙ্গে অ্যাপ ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।