Moto Edge X30 Champion Edition: ৫১২ জিবি স্টোরেজের সবচেয়ে সস্তা ফোন লঞ্চ হল

চীনে নতুন মোটো এজ এক্স৩০ চ্যাম্পিয়ন এডিশনের ১২ জিবি র‍্যাম + ৫১২ জিবি স্টোরেজ মডেলটির দাম ৩,২৯৯ ইউয়ান (প্রায় ৩৭,৯৫০ টাকা) রাখা হয়েছে

moto-edge-x30-champion-edition-launched-price-cny-3299-specifications-features

স্মার্টফোন নির্মাতা মোটোরোলা গতবছর ডিসেম্বরে Qualcomm-এর লেটেস্ট হাই-এন্ড Snapdragon 8 Gen 1 প্রসেসর দ্বারা চালিত প্রথম ডিভাইস হিসেবে তাদের Moto Edge X30 ফ্ল্যাগশিপ হ্যান্ডসেটটি বাজারে উন্মোচন করে। আবার এই ফোনটিই Motorola Edge 30 Pro নামে গ্লোবাল মার্কেটে আত্মপ্রকাশ করে। এখন আবার Moto Edge X30-এর একটি বিশেষ সংস্করণ উন্মোচন করল সংস্থা। এটি Moto Edge X30 Champion Edition হিসেবে বাজারে পা রেখেছে। এই সংস্করণটির প্রধান হাইলাইট হল যে, এই স্মার্টফোনটি ৫১২ জিবি দ্রুত ইউএফএস ৩.১ স্টোরেজ অফার করে, যা স্ট্যান্ডার্ড মডেলে পাওয়া সর্বাধিক ২৫৬ জিবি স্টোরেজের থেকেও বেশি। তবে স্টোরেজ কনফিগারেশন ছাড়া, স্পেসিফিকেশনের দিক থেকে Moto Edge X30 Champion Edition-টি বেস মডেলের অনুরূপ। চলুন এই নতুন মোটোরোলা ফোনটির দাম এবং স্পেসিফিকেশনগুলি জেনে নেওয়া যাক।

মোটোরোলা এজ এক্স৩০ চ্যাম্পিয়ন এডিশন-এর মূল্য ও লভ্যতা (Moto Edge X30 Champion Edition Price and Availability)

চীনে নতুন মোটো এজ এক্স৩০ চ্যাম্পিয়ন এডিশনের ১২ জিবি র‍্যাম + ৫১২ জিবি স্টোরেজ মডেলটির দাম ৩,২৯৯ ইউয়ান (প্রায় ৩৭,৯৫০ টাকা) রাখা হয়েছে এবং আগামী ১১ মে সকাল ১০ টায় (স্থানীয় সময়) ডিভাইসটির সেল শুরু হবে। সংস্থা জানিয়েছে যে, মোটো এজ এক্স৩০ চ্যাম্পিয়ন এডিশন সীমিত পরিমাণেই বাজারে পাওয়া যাবে।

মোটোরোলা এজ এক্স৩০ চ্যাম্পিয়ন এডিশন-এর স্পেসিফিকেশন (Moto Edge X30 Champion Edition Specifications)

আগেই উল্লেখ করা হয়েছে, মোটোরোলা এজ এক্স৩০ চ্যাম্পিয়ন এডিশনটি এজ এক্স৩০-এর স্ট্যান্ডার্ড সংস্করণের মতো ফিচার সহ এলেও, ফোনটি ৫১২ জিবি দ্রুত ইউএফএস ৩.১ স্টোরেজের সাথে পাওয়া যাবে। রেগুলার মডেলের থেকে কম দামে পাওয়া এই বিশেষ সংস্করণের হ্যান্ডসেটটি এখনও পর্যন্ত বাজারের সবচেয়ে সস্তা ৫১২ জিবি স্টোরেজের স্মার্টফোন, যার সাথে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১ প্রসেসরটি রয়েছে।

এছাড়া Moto Edge X30 Champion Edition-এর বেশিরভাগ স্পেসিফিকেশনই স্ট্যান্ডার্ড সংস্করণের অনুরূপ। Moto Edge X30- এ ৬.৭ ইঞ্চির অ্যামোলেড ডিসপ্লে রয়েছে, যা ডিসি-ডিমিং, এইচডিআর১০+ সাপোর্ট, ১৪৪ হার্টজ রিফ্রেশ রেট, দ্রুত ৫৭৬ হার্টজ টাচ স্যাম্পলিং রেট এবং ১০০% ডিসিআই- পি৩ কালার গ্যামট অফার করে।

ফটোগ্রাফির জন্য, Moto Edge X30-এর রিয়ার ক্যামেরা সেটআপে ৫০ মেগাপিক্সেলের অমনিভিশন ওভি৫০এ৪০ প্রাইমারি সেন্সর, ৫০ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেল ডেপথ-অফ-ফিল্ড সেন্সর উপস্থিত রয়েছে। আর ফোনের সামনে সেলফি ভিডিও কলিংয়ের জন্য ৬০ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা বর্তমান।

পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য, Moto Edge X30-এ ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে, যা ৬৮ ওয়াট চার্জিং সাপোর্ট করে। কোম্পানির দাবি, এই হ্যান্ডসেটে ১৩ মিনিটের মধ্যে শূন্য থেকে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত চার্জ হয়ে যাবে। এই মোটোরোলা ডিভাইসে শক্তিশালী স্টেরিও স্পিকারের একটি সেটও রয়েছে, যা অডিও অভিজ্ঞতার জন্য স্ন্যাপড্রাগন সাউন্ড এবং ডলবি অ্যাটমস সাপোর্ট করবে। এছাড়াও Motorola Edge X30 অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক মাই ইউআই ৩.০ (MyUI 3.0) ইউজার ইন্টারফেসে রান করে। আগ্রহী ক্রেতারা বর্তমানে স্ট্যান্ডার্ড Moto Edge X30 ফোনটি ৪৯৯ ডলার (প্রায় ৩৮,৫৫০ টাকা) দামে গিজটপ (Giztop) রিটেইল সাইট থেকে ক্রয় করতে পারেন।

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

Ananya graduated with a degree in Journalism and Mass Communication And she loves to read and write, enjoys music and is very interested in technology