একসঙ্গে তিনটি ডিভাইস হবে চার্জ, Xiaomi আনলো শক্তিশালী Mi Boost Pro 30000 mAh পাওয়ার ব্যাংক

mi-boost-pro-30000mah-power-bank-launched-in-india-price-specifications-sale-date

মোবাইলে বেশি ক্যাপাসিটির ব্যাটারি থাকলেও পাওয়ার ব্যাংকের প্রয়োজনীয়তাকে কোনোভাবেই অস্বীকার করা যায় না। কোথাও ঘুরতে গিয়ে বা দীর্ঘক্ষন কারেন্ট না থাকলে, পাওয়ার ব্যাংক আমাদের যথেষ্ট কাজে আসে। বাজারে চাহিদার কারণে তাই অ্যাক্সেসরিজ ব্র্যান্ড থেকে শুরু করে স্মার্টফোন কোম্পানি গুলি মাঝেমাঝেই পাওয়ার ব্যাংক লঞ্চ করে। সেক্ষেত্রে, জনপ্রিয় স্মার্টফোন নির্মাতা, Xiaomi ভারতে একটি শক্তিশালী পাওয়ার ব্যাংক এনেছে, যার নাম Mi Boost Pro 30000mAh power bank।

সংস্থাটি প্রাথমিকভাবে চলতি বছরের মার্চ মাসের শেষের দিকে ভারতে এই পাওয়ার ব্যাংকটির জন্য ক্রাউডফান্ডিং চালু করেছিল। এর জন্য সংস্থাটি ১৫ দিনে ৫০০০ ইউনিট-এর লক্ষ্য নির্ধারণ করেছিল এবং ক্রাউডফান্ডিং ক্যাম্পেইন চলাকালীন পাওয়ার ব্যাংকটির দাম ছিল ১,৯৯৯ টাকা। অবশেষে সেই লক্ষ্যে পৌঁছে একটি সফল ক্রাউডফান্ডিং ক্যাম্পেইনের পর, ২১ মে ভারতে সেলের জন্য উপলব্ধ হয়েছে, Mi Boost Pro 30000mAh power bank। তাহলে চলুন এই পাওয়ার ব্যাংকটির দাম, লভ্যতা, ফিচার জেনে নিই।

Mi Boost Pro 30000mAh power bank-এর দাম এবং লভ্যতা

এমআই বুস্ট প্রো ৩০০০০ এমএএইচ পাওয়ার ব্যাংকের দাম রাখা হয়েছে ২,২৯৯ টাকা। এটি কালো রঙে পাওয়া যাবে। mi.com, Flipkart, Mi হোম স্টোর এবং ভারতের অন্যান্য অফলাইন রিটেইল আউটলেটগুলি থেকে এই পাওয়ার ব্যাংক কেনা যাবে।

Mi Boost Pro 30000mAh power bank-এর ফিচার এবং স্পেসিফিকেশন

এমআই বুস্ট প্রো ৩০০০০ এমএএইচ পাওয়ার ব্যাংকে রয়েছে অ্যান্টি-স্কিড ফিনিশ। নাম থেকেই বোঝা যায়, এই পাওয়ার ব্যাংকটিতে একটি ৩০,০০০ এমএএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি আছে। অতিরিক্ত গরম এবং শর্ট সার্কিট সম্পর্কিত বিপদের সম্ভাবনা রোধ করতে এটিতে ১৬ স্তরীয় অত্যাধুনিক সার্কিট প্রোটেকশন বর্তমান। Mi Boost Pro-এ মোট চারটি পোর্ট রয়েছে, যার মধ্যে দুটি ইউএসবি টাইপ-এ, একটি টাইপ-সি পোর্ট এবং একটি মাইক্রো-ইউএসবি পোর্ট। পাওয়ার ব্যাংকের টাইপ-সি পোর্টটি ইনপুট পোর্টের পাশাপাশি একটি আউটপুট পোর্ট হিসেবেও কাজ করে এবং এটি পিডি ৩.০ (পাওয়ার ডেলিভারি) সাপোর্ট করে।

Mi Boost Pro পাওয়ার ব্যাংকে ডুয়াল-ইনপুট সাপোর্ট করে, যার অর্থ মাইক্রো-ইউএসবি এবং টাইপ-সি চার্জিং পোর্ট ব্যবহার করে এটিকে চার্জ করা যেতে পারে। পাওয়ার ব্যাংকটি টাইপ-সি পোর্টের মাধ্যমে ২৪ ওয়াট পর্যন্ত ও মাইক্রো-ইউএসবি পোর্টের মাধ্যমে ১৮ ওয়াট পর্যন্ত ইনপুট সাপোর্ট করে। এটিকে ২৪ ওয়াট পিডি চার্জার দিয়ে চার্জ করা হলে, ফুল চার্জ হতে প্রায় ৭ ঘন্টা সময় লাগবে। আর যদি ১৮ ওয়াট চার্জার দিয়ে চার্জ দেওয়া হয়, তাহলে সেক্ষেত্রে ১০ ঘন্টা সময় লাগবে। আউটপুটের জন্য নবাগত এই ডিভাইসটিতে দুটি ইউএসবি টাইপ-এ এবং একটি টাইপ-সি পোর্ট রয়েছে। এই পোর্টগুলির সাহায্যে এটি একই সাথে ৩ টি ডিভাইস চার্জ করতে পারে। পাওয়ার ব্যাংকটি টাইপ-সি এবং টাইপ-এ পোর্টের মাধ্যমে ২২.৫ ওয়াট পর্যন্ত আউটপুট সাপোর্ট করে।

Xiaomi-র অন্যান্য পাওয়ার ব্যাংকগুলির মতো এতেও স্মার্টওয়াচ এবং স্মার্ট ব্যান্ডের মতো ডিভাইসগুলি চার্জ করার জন্য একটি লো পাওয়ার আউটপুট মোড রয়েছে। এটিকে অ্যাক্টিভেট করার জন্য ইউজারকে পাওয়ার বাটনে ডাবল ট্যাপ করতে হবে। এই পাওয়ার ব্যাংকটির আয়তন ১৫৪.৫× ৭২.৩×৩৮.৯৯ মিমি এবং ওজন প্রায় ৬৪০ গ্রাম।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।