Jio-র সবচেয়ে সস্তা টপ-আপ ভাউচার: মাত্র ১০ টাকায় মিলবে কল, ডেটা এবং এসএমএসের সুবিধা

গত কয়েক বছরে ভারতীয় টেলিকম ইন্ডাস্ট্রিতে আমূল পরিবর্তন এসেছে, যার অন্যতম পথিকৃৎ হল মুকেশ আম্বানির মালিকানাধীন Reliance Jio (রিলায়েন্স জিও)। দেশে ৪জি নেটওয়ার্ক সার্ভিস রোলআউট করে টেলিকম দুনিয়ার পুরোদস্তুর ভোল পাল্টে দিয়েছে এই সংস্থাটি। শুরুর দিকে বিনামূল্যে পরিষেবা দিলেও ধীরে ধীরে সংস্থাটি বিভিন্ন দামের প্রিপেইড রিচার্জ প্ল্যান লঞ্চ করতে শুরু করে, এবং একাধিক সুবিধাযুক্ত প্ল্যান ইউজারদেরকে উপহার দিয়ে তাদের মনের মণিকোঠায় ইতিমধ্যেই পাকা জায়গা করে নিতে সক্ষম হয়েছে এই কোম্পানিটি।

তবে গত বছরের শেষের দিকে জিও তার প্রিপেইড রিচার্জ প্ল্যানগুলির দাম যে বেশ খানিকটা বাড়িয়েছে, তা আমাদের সবারই জানা। কিন্তু আপনি জানলে অবাক হবেন যে, দাম বাড়ার পর এই চরম মূল্যবৃদ্ধির যুগেও আপনি মাত্র ১০ টাকা খরচ করলেই সংস্থার একটি প্ল্যান রিচার্জ করতে পারবেন। আর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি হল, এই প্ল্যান মারফত ডেটা, কলিং এবং এসএমএসের সুবিধাও পেতে সক্ষম হবেন আপনি! কি, খুব অবাক লাগছে? সত্যিই মাত্র ১০ টাকায় এতকিছু ফেসিলিটি পাওয়া যাবে শুনলে অবাক লাগারই কথা। তাহলে চলুন, আর দেরি না করে এই প্ল্যানটির সম্পর্কে একটু বিশদে জেনে নেওয়া যাক।

আসলে আমরা যে প্ল্যানটির কথা বলছি, সেটি জিওর ১০ টাকার টপ-আপ ভাউচার। এক্ষেত্রে বলে রাখি যে, টপ-আপও এক ধরনের রিচার্জ। জিও তার ব্যবহারকারীদের জন্য প্রিপেইড এবং পোস্টপেইড উভয় ধরনের প্ল্যানই অফার করে। আর জিওর প্রিপেইড রিচার্জ প্ল্যানের পোর্টফোলিওতে ক্রিকেট প্ল্যান, ৪জি ডেটা ভাউচার, অ্যানুয়াল প্ল্যান, টপ-আপের মতো একাধিক ক্যাটাগরির প্ল্যান মজুত রয়েছে। এই বিপুল সম্ভারের অন্তর্ভুক্ত একটি অত্যন্ত সস্তা টপ-আপের দাম মাত্র ১০ টাকা। জিওর এই রিচার্জে ৭.৪৭ টাকার টকটাইম পাওয়া যায়, যার মাধ্যমে ডেটা, কলিং এবং এসএমএস – এই তিনটি ফেসিলিটিই পেতে সক্ষম হবেন গ্রাহকরা। এই চরম মূল্যবৃদ্ধির যুগে মাত্র ১০ টাকা খরচ করেই এত সুবিধা হাতের মুঠোয় পাওয়া নিঃসন্দেহে এক দারুণ আনন্দের বিষয়৷

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, ১০ টাকার রিচার্জের মতোই জিও ২০ টাকা, ৫০ টাকা, ১০০ টাকা, ৫০০ টাকা এবং ১,০০০ টাকার টপ-আপ ভাউচার অফার করে, যেগুলিতে যথাক্রমে ১৪.৯৫ টাকা, ৩৯.৩৭ টাকা, ৮১.৭৫ টাকা, ৪২০.৭৩ টাকা এবং ৮৪৪.৪৬ টাকা টকটাইম পাওয়া যায়। আপনাদেরকে জানিয়ে রাখি যে, ইন্টারন্যাশনাল সার্ভিস ব্যবহারের ক্ষেত্রেও এই টকটাইমকে কাজে লাগানো যাবে। আর সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য বিষয়টি হল, টপ-আপ প্ল্যানগুলির কোনো নির্দিষ্ট ভ্যালিডিটি নেই। ফলে একবার রিচার্জ করা হয়ে গেলে ব্যালেন্স থাকা পর্যন্ত আপনি এই ভাউচারের সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন।

স্মার্টফোন, গাড়ি-বাইক সহ প্রযুক্তি দুনিয়ার সব গুরুত্বপূর্ণ খবর সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের Google News ও Twitter পেজ, সঙ্গে অ্যাপ ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।