iQOO Neo 6 প্রথম নিও সিরিজের ফোন হিসেবে ভারতে আসছে, জেনে নিন সম্ভাব্য দাম

টিপস্টার মুকুল শর্মা তাঁর একটি টুইটে দাবি করেছেন, আইকো নিও ৬ হ্যান্ডসেটটি শীঘ্রই ভারতীয় বাজারে আসবে

iqoo-neo-6-price-in-india-leak-launch-soon-as-first-neo-series-smartphone

জনপ্রিয় টেক ব্র্যান্ড আইকো তাদের Neo 6 সিরিজের অন্তর্ভুক্ত iQOO Neo 6 স্মার্টফোনটি শীঘ্রই ভারতে লঞ্চ করবে বলে নিশ্চিত করেছে। এটি ভারতের বাজারে লঞ্চ হতে চলা Neo সিরিজের প্রথম ডিভাইস হবে। Neo 6-এর ভারতীয় সংস্করণটি গত মাসে চীনে লঞ্চ হওয়া চীনা মডেলের তুলনায় ভিন্ন স্পেসিফিকেশনের সাথে আসবে বলে জানা গেছে। প্রসঙ্গত, এই ফোনের চীনা ভ্যারিয়েন্টটি কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১ চিপসেট দ্বারা চালিত এবং এতে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সহ ১২০ হার্টজের অ্যামোলেড (AMOLED) ডিসপ্লে রয়েছে। হ্যান্ডসেটটি তিনটি কালার অপশনে চীনা বাজারে উপলব্ধ। আজ জনপ্রিয় এক টিপস্টার ভারতে আপকামিং iQOO Neo 6-এর প্রত্যাশিত দামের রেঞ্জটি প্রকাশ করেছেন।

ভারতে আইকো নিও ৬-এর সম্ভাব্য মূল্য (iQOO Neo 6 Expected Price in India)

টিপস্টার মুকুল শর্মা তাঁর একটি টুইটে দাবি করেছেন, আইকো নিও ৬ হ্যান্ডসেটটি শীঘ্রই ভারতীয় বাজারে আসবে এবং এর দাম ৩০,০০০ টাকা থেকে ৩৫,০০০ টাকার মধ্যে রাখা হবে বলে আশা করা হচ্ছে৷

জানিয়ে রাখি, চীনে লঞ্চ হওয়া আইকো নিও ৬-এর ৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম রাখা হয়েছে ২,৭৯৯ ইউয়ান (প্রায় ৩৩,৫০০ টাকা)। এছাড়াও ফোনটির ৮ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ এবং টপ-এন্ড ১২ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ মডেল গুলির মূল্য যথাক্রমে ২,৯৯৯ ইউয়ান (প্রায় ৩৫,৯০০ টাকা) এবং ৩,২৯৯ ইউয়ান (প্রায় ৩৯,৪০০ টাকা)। এই ডিভাইসটি ক্লাসিক লাইসি (lycée) লেদারের সাথে ব্লু ও অরেঞ্জ কালার ভ্যারিয়েন্টে এসেছে এবং এটি ফ্লোরাইট এজি (AG) গ্লাসের সাথে একটি কালো শেডেও পাওয়া যায়। গত ২০ এপ্রিল থেকে চীনের বাজারে এই ফোনটির বিক্রি শুরু হয়েছে।

ভারতে আইকো নিও ৬- এর সম্ভাব্য স্পেসিফিকেশন (iQOO Neo 6 Expected Specifications in india)

টিপস্টার মুকুল শর্মা উল্লেখ করেছেন যে, ভারতে লঞ্চ হওয়া আইকো নিও ৬-এর ফোকাস “অল-রাউন্ড ফ্ল্যাগশিপ এক্সপেরিয়েন্স”-এর ওপর থাকবে। তিনি আরও বলেছিলেন যে, এই মডেলটির স্পেসিফিকেশনগুলি গত মাসে লঞ্চ হওয়া iQOO Neo 6- এর চীনা ভ্যারিয়েন্টের তুলনায় ভিন্ন হবে। ডুয়েল-সিমের (ন্যানো) আইকো নিও ৬ চীনে এসেছে ৬.৬২ ইঞ্চির ফুল-এইচডি+ (১,০৮০x২,৪০০ পিক্সেল) অ্যামোলেড (AMOLED) ডিসপ্লের সাথে, যা ২০:৯ অ্যাসপেক্ট রেশিও এবং ১২০ হার্টজ পর্যন্ত রিফ্রেশ রেট অফার করে। ডিভাইসটি কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১ অক্টা-কোর প্রসেসর দ্বারা চালিত, যার সাথে ১২ জিবি পর্যন্ত এলপিডিডিআর৫ র‍্যাম এবং ২৫৬ জিবি পর্যন্ত ইউএফএস ৩.১ স্টোরেজ পাওয়া যাবে। হ্যান্ডসেটটি অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক (অরিজিন ওএস ওশান) OriginOS Ocean কাস্টম স্কিনে রান করে।

ফটোগ্রাফির জন্য, iQOO Neo 6-এর ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপের মধ্যে এফ/১.৮৯ অ্যাপারচার এবং অপটিক্যাল ইমেজ স্টেবিলাইজেশন (OIS) সহ ৬৪ মেগাপিক্সেলের স্যামসাং আইএসওসেল প্লাস জিডব্লিউ১পি প্রাইমারি সেন্সর, ১২ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড শ্যুটার এবং ২ মেগাপিক্সেলের মনোক্রোম লেন্স উপস্থিত রয়েছে। আবার সেলফি ভিডিও কলিংয়ের জন্য ফোনের সামনে এফ/২.০ অ্যাপারচার সহ ১৬ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা বর্তমান।

iQOO Neo 6-এর কানেক্টিভিটি অপশনগুলির মধ্যে রয়েছে, ৫জি, ৪জি এলটিই, ওয়াই-ফাই ৬, ব্লুটুথ ভি৫.২, জিপিএস/ এ-জিপিএস, এনএফসি এবং ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট। এই আইকো ফোনের সেন্সরগুলির মধ্যে অ্যাক্সিলোমিটার, অ্যাম্বিয়েন্ট লাইট সেন্সর, জাইরোস্কোপ, ম্যাগনেটোমিটার এবং প্রক্সিমিটি সেন্সর। নিরাপত্তার জন্য ডিভাইসটিতে ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরও মিলবে।

পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য, iQOO Neo 6-এ ডুয়েল-সেল ৪,৭০০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে, যা ৮০ ওয়াট ফ্ল্যাশচার্জ ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি সাপোর্ট করে। স্মার্টফোনটির পরিমাপ ১৬৩x৭৬.১৬x৮.৫ মিলিমিটার এবং ওজন ১৯৩.৯৫ গ্রাম (ব্লু ও অরেঞ্জ কালার অপশন) বা ১৯৭.২৩ গ্রাম (ব্ল্যাক ভ্যারিয়েন্ট)।

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

Ananya graduated with a degree in Journalism and Mass Communication And she loves to read and write, enjoys music and is very interested in technology