দুর্দান্ত ক্যামেরার সাথে ফাটাফাটি ফিচার, iQOO 9T এখন আকর্ষণীয় অফার সহ কেনা যাবে Amazon থেকে

iQOO 9T ফোনটি ক্রয় করলে ২,৯৯৯ টাকা মূল্যের একটি আইকো গেমপ্যাড সম্পূর্ণ বিনামূল্যে অফার করা হবে গ্রাহকদের

iqoo-9t-goes-on-sale-via-amazon-price-offers-specifications

গত ২৮শে জুলাই iQOO 9T স্মার্টফোন ভারতে আত্মপ্রকাশ করেছিল। আর প্রতিশ্রুতি মতো চলতি মাসের ২ তারিখে উক্ত মডেলটির প্রথম সেল অনুষ্ঠিত হয়েছিল। আর আজ অর্থাৎ ৪থা আগস্ট থেকে iQOO ব্র্যান্ডের এই নতুন প্রিমিয়াম-গ্রেড হ্যান্ডসেটটি ই-কমার্স সাইট অ্যামাজন ইন্ডিয়ার (Amazon India) -এর মাধ্যমেও কেনার জন্য উপলব্ধ হল। এটি চীনে লঞ্চ হওয়া iQOO 10 স্মার্টফোনের রি-ব্র্যান্ডেড ভার্সন রূপে এসেছে আর ফিচার হিসাবে এই ডিভাইসে – FHD+ ডিসপ্লে প্যানেল, ২৫৬ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ, ৫০ মেগাপিক্সেল মুখ্য সেন্সর যুক্ত ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা ইউনিট, ভিভো ভি১+ ইমেজ প্রসেসিং চিপ এবং ১২০ ওয়াট ওয়্যারড ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজি সমর্থিত ৪,৭০০ এমএএইচ ব্যাটারি পাওয়া যাবে। সর্বোপরি, উক্ত হ্যান্ডসেটে কোয়ালকমের লেটেস্ট স্ন্যাপড্রাগন ৮+ জেন ১ প্রসেসর আছে। চলুন iQOO 9T স্মার্টফোনের দাম, সেল অফার ও ফিচার সম্পর্কে বিশদে জেনে নেওয়া যাক।

অ্যামাজনে আইকো ৯টি -এর দাম ও সেল অফার (iQOO 9T Price and Sale Offers on Amazon)

গতপরশু অর্থাৎ ২রা আগস্ট থেকে ভারতে আইকো ৯টি স্মার্টফোনের সেল শুরু হয়ে গিয়েছিল। তবে অবশেষে আজ থেকে ই-কমার্স সাইট অ্যামাজন ইন্ডিয়ার (Amazon India) মাধ্যমেও এটির পকেটস্থ করা যাবে। অনলাইন শপিং পোর্টালের লিস্টিং অনুসারে, ফোনটির ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ যুক্ত বেস ভ্যারিয়েন্টের দাম ৪৯,৯৯৯ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। আর, ১২ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ অপশনকে ৫৪,৯৯৯ টাকায় নিয়ে আসা হয়েছে। এটি – আলফা (ব্ল্যাক) এবং লিজেন্ড (বিএমডব্লিউ এম মোটরস্পোর্ট) কালার বিকল্পে উপলব্ধ।

সেল অফারের কথা বললে, ICICI ব্যাঙ্কের ক্রেডিট বা ডেবিট কার্ড হোল্ডাররা পেমেন্ট করার সময় ফ্লাট ৪,০০০ টাকার ইনস্ট্যান্ট ডিসকাউন্ট পেয়ে যাবেন। আবার পুরোনো মোবাইল আপগ্রেড করার ক্ষেত্রে ৫,০০০ টাকা পর্যন্ত (নন-আইকো ডিভাইস) বা ৭,০০০ টাকা পর্যন্ত (আইকো ডিভাইস) এক্সচেঞ্জ বোনাসও হস্তগত করা যাবে। উপরন্তু, উক্ত ফোনটি ক্রয় করলে ২,৯৯৯ টাকা মূল্যের একটি আইকো গেমপ্যাড সম্পূর্ণ বিনামূল্যে অফার করা হবে গ্রাহকদের।

আইকো ৯টি -এর স্পেসিফিকেশন (iQOO 9T Specifications)

আইকো ৯টি স্মার্টফোনে একটি ৬.৭৮-ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (২৪০০x১০৮০ পিক্সেল) স্যামসাং E5 AMOLED ডিসপ্লে সহ এসেছে। এই ডিসপ্লে প্যানেল স্কট সেন্সেশন ইউপি (Schott Xensation UP) গ্লাসের একটি স্তর দ্বারা সুরক্ষিত এবং ১২০ হার্টজ পর্যন্ত রিফ্রেশ রেট, ১৫০০ নিট পিক ব্রাইটনেস, HDR10 এবং ১০০% DCI-P3 কালার গ্যামেট সমর্থন করে। পারফরম্যান্সের জন্য ফোনটি কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮+ জেন ১ প্রসেসরের সাথে সজ্জিত হয়ে এসেছে। একই সাথে, ইমেজ প্রসেসিং এবং ডিসপ্লে অপ্টিমাইজেশানের জন্য উক্ত ডিভাইসে ভিভো ভি১+ (Vivo V1+) চিপ ব্যবহার করা হয়েছে৷ এটি অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক ফানটাচওএস ১২.১ কাস্টম ওএস দ্বারা চালিত। এই হ্যান্ডসেটে ১২ জিবি LPDDR5 র‌্যাম এবং ২৫৬ জিবি UFS 3.1 স্টোরেজ রয়েছে। সিকিউরিটি ফিচার হিসাবে এতে ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর মিলবে।

ফটোগ্রাফির জন্য, নয়া iQOO 9T স্মার্টফোনের ব্যাক প্যানেলে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে। এই ক্যামেরাগুলি হল – OIS সমর্থিত ৫০ মেগাপিক্সেল Samsung ISOCELL GN5 প্রাইমারি সেন্সর, ১৩ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড + ম্যাক্রো লেন্স, এবং ২এক্স অপটিক্যাল লেন্স সহ ১২ মেগাপিক্সেল Sony IMX663 সেন্সর৷ আর ডিভাইসের সামনের দিকে পাঞ্চ-হোল কাটআউটের মধ্যে একটি ১৬ মেগাপিক্সেলের সেলফি শুটার উপস্থিত।

iQOO 9T ফোনের কানেক্টিভিটি অপশনের মধ্যে সামিল রয়েছে – 5G, ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ ৫.২, ডুয়াল সিম স্লট, GNSS, NFC এবং একটি ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট৷ এতে ডুয়াল স্টেরিও স্পিকার এবং আরো ভালো তাপ অপসারণের জন্য ভিসি লিকুইড কুলিং সিস্টেম বর্তমান। আবার পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য iQOO 9T স্মার্টফোনে ১২০ ওয়াট ওয়্যারড ফাস্ট চার্জিং সমর্থন সহ ৪,৭০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে। এটি IP52 রেটিং প্রাপ্ত। আর উল্লেখ্য, আইকো তাদের এই লেটেস্ট স্মার্টফোনের সাথে ৩টি অ্যান্ড্রয়েড আপডেট এবং ৪ বছরের সিকিউরিটি আপডেট দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে৷

স্মার্টফোন, গাড়ি-বাইক সহ প্রযুক্তি দুনিয়ার সব গুরুত্বপূর্ণ খবর সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের Google News ও Twitter পেজ, সঙ্গে অ্যাপ ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।