সবচেয়ে কম দামে পাওয়া যাচ্ছে iPhone SE 2020, কেনা উচিত?

অত্যন্ত কম দামে Flipkart-এ পাওয়া যাচ্ছে iPhone SE 2020, কেনার আগে ফোনটির ভালো-খারাপ দিকগুলি জেনে নিন

আপনি যদি বেশ খানিকটা কম দামে iPhone SE 2020 কিনতে চান, তাহলে আপনার জন্য এসে গেছে এক দারুণ সুবর্ণ সুযোগ। কারণ Flipkart Mobiles Bonanza সেলে দুর্দান্ত ছাড়ে পাওয়া যাচ্ছে Apple iPhone SE 2020। ফোনটির ৬৪ জিবি স্টোরেজের বেস ভ্যারিয়েন্টটি মাত্র ২৭,৯৯৯ টাকায় কেনা যাবে। আবার, ১২৮ জিবি ভ্যারিয়েন্টটি ৩২,৯৯৯ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, যা সাধারণভাবে ৬৪ জিবি ভ্যারিয়েন্টৈর দাম। তবে iPhone 13 লঞ্চের পর Apple, iPhone SE-এর ২৫৬ জিবি ভ্যারিয়েন্টের উৎপাদন বন্ধ করে দিলেও পুরোনো কিছু স্টক থেকে যাওয়ার আপনি এখনও Flipkart থেকে এই মডেলটি কিনতে পারেন এবং তার জন্য আপনাকে ৪২,৯৯৯ টাকা ব্যয় করতে হবে।

এই প্রতিবেদনটি পড়ে এতক্ষণে অনেক পাঠকই নিশ্চয়ই আইফোন এসই ২০২০ কেনার জন্য উৎসাহী হয়ে উঠেছেন। তবে কম দামে পাওয়া যাচ্ছে বলে এখনই কেনার জন্য ঝাঁপিয়ে না পড়ে তার আগে এই ফোনটি কিনলে আপনার সত্যিই কোনো লাভ হবে কি না তা একটু জেনে নেওয়া প্রয়োজন। অর্থাৎ শুধু সস্তায় পাওয়া যাচ্ছে বলেই নয়, এই মডেলটির খারাপ বা ভালো দিকগুলি জেনে নিয়ে কিনলে ভবিষ্যতে দীর্ঘদিন ধরে নিশ্চিন্তে আপনি ফোনটি ব্যবহার করতে পারবেন, এবং অন্য কোনো ফোন কেনার কথা আপনার মাথাতেও আসবে না। তাহলে চলুন, ফোনটির ভালো এবং খারাপ দিকগুলির ওপর একনজরে চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক।

iPhone SE 2020: কেন এটি কেনা উচিত

  • এটি অ্যাপল-এর সবচেয়ে সাশ্রয়ী মূল্যের ফোন। তাই এখনও যারা আইফোন ব্যবহার করেননি, তারা এই মডেলটি কিনে অ্যাপলের ফোন ইকোসিস্টেমে পা রাখার কথা ভাবতে পারেন।
  • ১.৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে এই রেঞ্জের মধ্যে এটি অন্যতম ফার্স্টেস্ট ফোন হিসেবে গ্রাহকদের মধ্যে জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এটির এ১৩ বায়োনিক চিপের দৌলতে আপনি লেটেস্ট যে কোনো গেম অত্যন্ত অনায়াসে এই ফোনে খেলতে পারবেন।
  • কম্প্যাক্ট ডাইমেনশনযুক্ত এই ফোনটি ব্যবহার করা অত্যন্ত সহজ। ৪.৭ ইঞ্চি ডিসপ্লে সহ আসা এই ফোনটি আপনি এক হাতেই অতি অনায়াসে ব্যবহার করতে পারবেন।
  • এই ফোনে আপনি একটি অত্যন্ত কার্যকর Touch ID ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার পেয়ে যাবেন, যা আপনার ব্যক্তিগত নিরাপত্তা সুরক্ষিত করতে বেশ কাজে আসবে।
  • IP67 রেটিংযুক্ত হওয়ায় আইফোন এসই জল এবং ধুলো প্রতিরোধী, যার অর্থ বৃষ্টির মধ্যেও আপনি অত্যন্ত অনায়াসে এই ফোনটি ব্যবহার করতে পারবেন ।
  • আইফোন এসই ২০২০-তে ৬ বছর ধরে সফ্টওয়্যার আপডেট পাওয়া যাবে, যে সুবিধা অ্যান্ড্রয়েড ফোনের ক্ষেত্রে নেই। তাই এই কারণে অনেকেই এই মডেলটি কেনার কথা ভাবতে পারেন।

iPhone SE 2020: কেন কিনবেন না

  • ফোনটির ব্যাটারির আয়ুষ্কাল খুবই কম। পুরো একদিন ঠিকঠাক সার্ভিস পেতে গেলে আপনাকে সাথে একটি পাওয়ার ব্যাঙ্ক রাখতে হবে।
  • ৪.৭ ইঞ্চি ডিসপ্লে আজকালকার দিনের অন্যান্য স্মার্টফোনের তুলনায় বেশ খানিকটা ছোটো। ফলে সোশ্যাল মিডিয়া ব্রাউজ করা থেকে শুরু করে YouTube ভিডিও দেখার মতো কাজগুলি যারা বড়ো স্ক্রিনে করে অভ্যস্ত, তাদের এই ফোন ব্যবহারের ক্ষেত্রে বেশ খানিকটা অসুবিধা হতে পারে। পাশাপাশি করোনা পরিস্থিতির পর থেকে বেশিরভাগ কাজ অনলাইন নির্ভর হয়ে যাওয়ায় এখন ছোটো ডিসপ্লে অনেকের কাছেই গ্রহণযোগ্য হবে না।
  • ফোনটির সিঙ্গেল ১২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা দিয়ে ভালো ছবি তোলা যেতে পারে, কিন্তু ৩০,০০০ টাকার রেঞ্জের অন্যান্য অ্যান্ড্রয়েড ফোনে এর চাইতে অনেক ভালো ক্যামেরা পাওয়া যায়। এছাড়া, আল্ট্রাওয়াইড এবং ডেপথ সেন্সরের মতো অত্যাধুনিক অপশনগুলি এই ফোনে উপলব্ধ নয়। তাই যারা ভালো ক্যামেরা কোয়ালিটির ফোন কিনতে আগ্রহী, তাদের জন্য এই ফোনটি যথাযথ হবে না।

সবার আগে খবর পেতে Google News-এ ফলো করুন