Infinix Note 11S গেমিং ফোন শীঘ্রই ভারতে আসছে, লঞ্চের খুব কাছে Infinix Zero 5G-ও

Infinix ব্র্যান্ডের প্রথম 5G স্মার্টফোন রূপে আত্মপ্রকাশ করতে পারে Infinix Zero 5G

Infinix note 11s india launch teased specifications Infinix zero 5g brand first phone

অক্টোবরে লঞ্চ হওয়া Infinix Note 11 লাইনআপের তৃতীয় মডেল হিসাবে চলতি মাসে আন্তর্জাতিক বাজারে পা রেখেছিল Infinix Note 11S। যা খুব তাড়াতাড়ি ভারতীয় বাজারে আত্মপ্রকাশ করবে বলে ঘোষণা করেছেন স্বয়ং Infinix India এর সিইও অনীশ কাপুর (Anish Kapoor)। মিডিয়াটেকের গেমিং প্রসেসর হিসেবে পরিচিত, হেলিও জি৯৬ সহযোগে এসেছে নোট ১১ সিরিজেরই এই লেটেস্ট ফোনটি। এছাড়া Infinix Note 11S ফোনে থাকছে ৫০ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ, ডিটিএস সারাউন্ড সাউন্ড টেকনোলজি এবং ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি। এই হ্যান্ডসেটটি একাধিক র‌্যাম এবং স্টোরেজ কনফিগারেশনে পাওয়া যাবে। প্রসঙ্গত, এই নয়া মডেলের পাশাপাশি সংস্থাটি তাদের প্রথম 5G স্মার্টফোন – Infinix Zero 5G প্রকাশ্যে নিয়ে আসার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলেও জানা গেছে। এই বিষয়ে সংস্থার তরফ থেকে কোনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করা হয়নি। তবে এক জনপ্রিয় টিপস্টার সম্প্রতি স্মার্টফোনটির কিছু রেন্ডার অনলাইনে শেয়ার করেছিলেন। যার দৌলতে ফোনের ডিজাইন সহ বেশ কয়েকটি কী-ফিচার আমরা জানতে পারি। আসুন আপকামিং Infinix Note 11S এবং Infinix Zero 5G ফোন দুটির সম্পর্কে বিশদে জেনে নেওয়া যাক।

ভারতে লঞ্চ হচ্ছে ইনফিনিক্স নোট ১১এস (Infinix Note 11S launching in india)

ইনফিনিক্স ইন্ডিয়ার সিইও অনীশ কাপুর সম্প্রতি একটি টুইটের মাধ্যমে জানিয়েছেন যে, ইনফিনিক্স নোট ১১এস শীঘ্রই ভারতে লঞ্চ করা হবে। সেক্ষেত্রে, সিরিজের স্ট্যান্ডার্ড মডেল ইনফিনিক্স নোট ১১এ এবং ইনফিনিক্স নোট ১১এস এর রিটেল বক্সের ছবি দেখা যায় কাপুর মহাশয়ের টুইটে। সাথে ক্যাপশন হিসাবে তিনি লিখেছিলেন, “সমস্ত গেমাররা প্রস্তুত হয়ে যান, কারণ খুব তাড়াতাড়ি বিশেষ কিছু আসতে চলেছে।” জানিয়ে রাখি, ইনফিনিক্স নোট ১১এস -কে সংস্থা বাজেট গেমিং স্মার্টফোন হিসেবে দাবি করছে।

ইনফিনিক্স নোট ১১এস স্পেসিফিকেশন (Infinix Note 11s Specifications)

ইনফিনিক্স নোট ১১এস ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ওএস চালিত। এতে, ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের একটি ৬.৯৫ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪৬০ পিক্সেল) IPS LCD ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। ফাস্ট পারফরম্যান্স এবং মাল্টিটাস্কিং অফার করার জন্য ফোনে মিডিয়াটেক হেলিও জি৯৬ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। আর স্টোরেজ হিসাবে থাকছে, ৮ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম এবং ১২৮ জিবি পর্যন্ত রম। যদিও, মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ ২ টেরাবাইট পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

ক্যামেরা ফ্রন্টের কথা বললে, হ্যান্ডসেটের পেছনে রয়েছে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ। এগুলি হল, ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ২ মেগাপিক্সেল সেকেন্ডারি সেন্সর এবং ২ মেগাপিক্সেল স্ন্যাপার। একই ভাবে, সেলফি তোলার জন্য এতে ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট-ফেসিং সেন্সর উপস্থিত। উন্নত মানের সাউন্ড অফার করার জন্য ফোনটি ডিটিএস সারাউন্ড সাউন্ড টেকনোলজির সাথে এসেছে। আবার, সিকিউরিটি জন্য থাকছে সাইড-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। Infinix Note 11S স্মার্টফোনে আছে ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি, যার সাথে ৩৩ ওয়াট সুপার চার্জ ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে।

Infinix ব্র্যান্ডের প্রথম 5G স্মার্টফোন রূপে আত্মপ্রকাশ করতে পারে Infinix Zero 5G

Tech Arena24 নামের এক প্রখ্যাত টিপস্টার সম্প্রতি ইউটিউবে একটি ভিডিও পোস্ট করেন, যেখানে ইনফিনিক্সের ‘ফাস্ট-এভার’ ৫জি স্মার্টফোনের আগমন সম্পর্কিত বিশদ তথ্য শেয়ার করা হয়। টিপস্টারের দাবি অনুসারে, আসন্ন ফোনের মডেল নাম্বার X6815 এবং বাজারে এটি Infinix Zero 5G নামে আসবে। একই সাথে, টিপস্টার দ্বারা শেয়ার করা রেন্ডারে দেখা গেছিল যে, ফোনের ডিসপ্লেতে থাকা পাঞ্চ-হোল কাটআউটের মধ্যে একটি সেলফি শুটার এবং রিয়ার প্যানেলে তিনটি সেন্সর সমেত দুটি LED ফ্ল্যাশ লাইট আছে। স্মার্টফোনে, ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সহ একটি সুপার AMOLED ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া খবর পাওয়া যাচ্ছে, Infinix Zero 5G, মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৯০০ এসওসি সহ আসতে পারে।

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

শুভেচ্ছা বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী। তিনি একদিকে যেমন ফটোগ্রাফার, তেমনি পাশাপাশি লেখিকাও। এছাড়াও তার শখের মধ্যে আছে বই পড়া, গান গাওয়া, ছবি আঁকা এবং ওয়েব ডিজাইন। শুভেচ্ছা আমাদের টেকগাপ পরিবারের একজন নতুন সদস্য।