হিমালয় অভিযানে ভারতীয় সেনা, সঙ্গী Ola S1 Pro ইলেকট্রিক স্কুটার

ভারতীয় সেনাবাহিনীর অন্যতম পছন্দের বাইক হল রয়্যাল এনফিল্ড বুলেট (Royal Enfield Bullet)। অনেকেরই ধারনা এই বাইকটি ছাড়া রাস্তায় একজন সেনা যেন অসম্পূর্ণ। সেনাকর্মী বলতে মোটা গোঁফ, মারকাটারি চেহারা, ভারতীয় সেনার উর্দি আর সাথে ক্রুজার বাইক, সাধারণ মানুষের হৃদস্পন্দন বাড়ানোর জন্য এটুকুই যথেষ্ট। কিন্তু পরিবেশ দূষণের বাড়বাড়ন্তে ইদানিং বৈদ্যুতিক যানবাহনও ঠাঁই পেয়েছে সেনামহলে। এবার ১৫ জন ভারতমাতার রক্ষক Ola S1 Pro ইলেকট্রিক স্কুটারে হিমাচল প্রদেশের কাসৌলী থেকে ইন্দো-চীন সীমান্তের কাছে শিপকি লা পর্যন্ত সফর শুরু করেছে।

পাঁচ দিনের যাত্রা ৮ জুন কিন্নরে এসে শেষ হবে। দীর্ঘদিন ধরে আলোচনার শিরোনামে থাকা ওলার স্কুটার হিমালয়ের বন্ধুর ও খাঁড়া রাস্তায় কেমন খেল দেখায়, তা হাতেনাতেই প্রমাণ পাওয়া যাবে। এই যাত্রার খবর ভারতীয় সেনাবাহিনীর তরফে টুইট করে জানানো হয়েছে। এই সফরে নেতৃত্ব দেবেন ক্যাপ্টেন ভি রানা। কসৌলী থেকে যাত্রা শুরু করে কারছাম, রোপা হয়ে দলটি পৌঁছাবে শিপকি লা। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে যার উচ্চতা ১৩,০০০ ফুট। অভিযানের উদ্দেশ্য, বৈদ্যুতিক গাড়ির প্রতি ভরসা প্রতিষ্ঠা এবং দূষণহীন সবুজ শক্তির প্রচার।

এর আগে ভারতীয় সেনাবাহিনীর এই ধরনের সফরের অ্যাডভেঞ্চার রাইডের জন্য বাইক জুগিয়েছে রয়্যাল এনফিল্ড, ইয়েজদি ও জাওয়া। কিন্তু এবার এস১ প্রো -এর ব্যবহার ওলা ইলেকট্রিক (Ola Electric)-কে বড়সড় পরীক্ষার সম্মুখীন করেছে। এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে পারলে ওলা স্কুটারের গুরুত্ব যে আরও বৃদ্ধি পাবে, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

Ola S1 Pro-এর পারফরম্যান্সের কথা বললে, এর থেকে ৮.৫ কিলোওয়াট শক্তি এবং ৫৮ এনএম টর্ক পাওয়া যায়। এসর্বোচ্চ গতিবেগ ঘন্টায় ১১৫ কিমি। ০-৫০ কিমি/ঘন্টা পিকআপ ৩ সেকেন্ডে তুলতে সক্ষম। স্কুটারটির রেঞ্জ ১৮৫ কিমি। S1 Pro-তে তিনটি রাইডিং মোড রয়েছে – নর্মাল, স্পোর্ট এবং হাইপার।

সবার আগে খবর পেতে Google News-এ ফলো করুন