Pan Card Scam: প্যান কার্ড ব্যবহার করে লোন নিচ্ছে জালিয়াতরা, কীভাবে সতর্ক থাকবেন?

স্ক্যামাররা ইউজারদেরকে সাইবার জালিয়াতির শিকার করতে হাতিয়ার করেছে প্যান কার্ডকে। আর এই কেলেঙ্কারিতে সাধারণ মানুষের পাশাপাশি সেলিব্রিটিরাও প্রতারণার শিকার হচ্ছেন।

“কতই রঙ্গ দেখি দুনিয়ায়” – সত্যজিৎ রায়ের সুপারহিট ছবি ‘হীরক রাজার দেশে’-র এই গানটি নিশ্চয় আপনাদের সকলেরই মনে আছে। তবে সাম্প্রতিককালে নিত্যনতুন রঙ্গ দেখিয়ে এই গানটির কথা যেন প্রায় রোজই আমাদের মনে করিয়ে দিচ্ছে হ্যাকাররা। বর্তমান ডিজিটাল যুগে হ্যাকারদের উদ্ভাবিত নতুন নতুন ফন্দিফিকিরের জ্বালায় ধনী থেকে দরিদ্র – আপামর জনগণ চরমভাবে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। কীভাবে মানুষকে ঠকিয়ে তাদের কষ্টার্জিত অর্থ হাতিয়ে নেওয়া যায়, সেই লক্ষ্যে দুরাভিসন্ধিরারা জোরকদমে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। আর সম্প্রতি পাওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, এবার স্ক্যামাররা ইউজারদেরকে সাইবার জালিয়াতির শিকার করতে হাতিয়ার করেছে প্যান কার্ডকে। এক্ষেত্রে কিছু প্রতারক ব্যক্তি অন্যের প্যান কার্ড ব্যবহার করে লোন নিচ্ছে, আর শুনলে অবাক লাগবে যে, জালিয়াতদের খপ্পরে পড়া ভিক্টিমের তালিকায় সাধারণ মানুষের পাশাপাশি শামিল রয়েছে নামিদামি সেলিব্রিটির নামও!

আজ্ঞে হ্যাঁ, সম্প্রতি অভিনেতা রাজকুমার রাও এবং সানি লিওনের মত অনেক সেলিব্রিটিই প্যান কার্ড জালিয়াতির ঘটনা সম্পর্কে অভিযোগ করেছেন। নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে রাজকুমার জানিয়েছেন যে, ফিনটেক অ্যাপের মাধ্যমে ব্যক্তিগত ঋণ নেওয়ার জন্য তাঁর প্যান কার্ডের অপব্যবহার করা হয়েছে। এটি তাঁর সিআইবিআইএল (CIBIL) স্কোরকে প্রভাবিত করেছে, কারণ কেউ তাঁর প্যান ডিটেইলস ব্যবহার করে ২৫,০০০ টাকা ঋণ নিয়েছে যা কখন এবং কীভাবে নেওয়া হয়েছে সে সম্পর্কে তিনি কিছুই জানেন না। উল্লেখ্য, রাওয়ের আগে অভিনেত্রী সানি লিওনও একইরকম প্যান জালিয়াতির ঘটনার অভিযোগ করেছিলেন।

এক্ষেত্রে বলে রাখি যে, বেশিরভাগ প্যান কেলেঙ্কারীতে স্ক্যামাররা কার্ডের মালিকের অজান্তেই তার প্যান কার্ড ব্যবহার করে লোন নিতে সক্ষম হয়। অর্থাৎ সোজা কথায় বললে, আপনার প্যান কার্ড ব্যবহার করে কেউ মোটা টাকা লোন নিয়ে নেবে, আর আপনি সে সম্পর্কে বিন্দুমাত্র টেরও পাবেন না; সত্যিই কী ভীষণরকম সাংঘাতিক ব্যাপার! সেক্ষেত্রে আমার বা আপনার প্যান কার্ড ব্যবহার করেও কেউ এইভাবে লোন নিচ্ছে না তো? না না, আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই, আপনাদের চিন্তামুক্ত করতেই আমাদের আজকের এই প্রতিবেদন। আসলে এই প্রতিবেদনে আমরা আপনাদেরকে এমন তিনটি উপায়ের কথা জানাতে চলেছি, যেগুলির মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই জেনে নিতে পারবেন যে কেউ আপনার প্যান কার্ডের অপব্যবহার করছে কি না। তাহলে চলুন, উপায়গুলির সম্পর্কে একটু বিশদে জেনে নেওয়া যাক।

CIBIL স্কোর চেক করুন

আপনার প্যান কার্ডের অপব্যবহার কেউ করছে কি না, তা জানতে আপনি আপনার সিআইবিআইএল স্কোর চেক করে দেখতে পারেন। এটি বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে করা যেতে পারে, যেমন – CIBIL, Equifax, Experian, বা CRIF High Mark। সিআইবিআইএল স্কোর চেক করে আপনি আপনার নামে কোনো ঋণ মঞ্জুর করা হয়েছে কি না, তা খুব সহজেই জেনে নিতে পারবেন।

Paytm বা Bank Bazaar-এর ব্যবহার

আপনার প্যান কার্ডের অপব্যবহার হয়েছে কি না, তা জানার আরও একটি উপায় রয়েছে। এর জন্য আপনি পেটিএম (Paytm) বা ব্যাঙ্ক বাজার (Bank Bazaar)-এর মতো ফিনটেক প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করতে পারেন। এই প্ল্যাটফর্মগুলি ফাইনান্সিয়াল রিপোর্ট টেস্ট করার জন্য প্রয়োজনীয় বিকল্প সরবরাহ করে, আর এর মাধ্যমে আপনি লোন ডিটেইলসসহ সিআইবিআইএল স্কোর খুব সহজেই জেনে নিতে পারবেন।

ফর্ম 26A দিয়ে চেক করুন

সবশেষে প্যান কার্ড জালিয়াতি রোখার তৃতীয় উপায় হিসেবে আপনি ফর্ম ২৬এ (26A) চেক করতে পারেন। এটি আয়কর বিভাগ কর্তৃক জারি করা একটি আয়কর বিবরণ (ইনকাম ট্যাক্স ডিটেইলস), যার মধ্যে সমস্ত কর প্রদান এবং প্যান কার্ডের মাধ্যমে করা আর্থিক লেনদেনের আয়কর রিটার্ন রেকর্ড অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এই ফর্মটি ব্যবহারকারীদের প্রাথমিক পর্যায়ে প্রতারণামূলক ক্রিয়াকলাপ সনাক্ত করতে এবং প্রয়োজনে অভিযোগ দায়ের করতে সহায়তা করে।

স্মার্টফোন, গাড়ি-বাইক সহ প্রযুক্তি দুনিয়ার সব গুরুত্বপূর্ণ খবর সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের Google News ও Twitter পেজ, সঙ্গে অ্যাপ ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।