অ্যাপ নয়, ফোন করেও কোভিড ভ্যাকসিন স্লট বুক করতে পারবেন, জেনে নিন

how-to-book-a-slot-with-a-call-covid-19-helpline-number

সাম্প্রতিককালে মারণ ভাইরাস করোনার দ্বিতীয় সংক্রমণের দাপটে দেশের বেহাল অবস্থা নিয়ে নতুন করে আর কিছুই বলার নেই। দেশের সর্বত্র বিপর্যয়ের ছবি নিত্যদিনের খবরের সঙ্গী হয়ে উঠেছে। প্রতিদিন লক্ষাধিক মানুষ আক্রান্ত হওয়ার পাশাপাশি হাজার হাজার মানুষের মৃত্যুর খবর দেশের প্রতিটি মানুষকে আতঙ্কিত করে তুলেছে। ফলে এই মারণ ভাইরাসের হাত থেকে বাঁচতে টিকা নেওয়ার জন্য আপামর জনগণ হন্যে হয়ে ঘুরছে। কিন্তু ভ্যাকসিনের পরিমাণ অপ্রতুল হওয়ায় অনেকে রেজিস্ট্রেশনের স্লট পাচ্ছেন না, আবার স্লট পাওয়ার পরেও কাউকে শুনতে হচ্ছে ভ্যাকসিন শেষ। যেহেতু বর্তমানে ভারতে পুরো টিকাকরণ প্রক্রিয়াটি অনলাইনে অর্থাৎ ডিজিটাল পদ্ধতিতে হচ্ছে, তাই একাধিক গ্রামাঞ্চলে বসবাসকারী ও নন-টেক স্যাভি ভারতীয়দের অনলাইন অ্যাক্সেস করতে সমস্যা হওয়ায় তাদের টিকাকরণ স্লট বুক করতে আরও দেরি হয়ে যাচ্ছে। এই সমস্যার সমাধান করতে এবার এক কার্যকরী পদক্ষেপ নিল সরকার।

ভারত সরকার একটি হেল্পলাইন নম্বর চালু করেছে, যার মাধ্যমে খুব সহজেই যে কেউ কোভিড ভ্যাকসিন স্লট বুক করতে পারবেন। জাতীয় স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের (National Health Authority বা NHA) প্রধান আর এস শর্মা বলেছেন যে, যে-কোনো ব্যক্তি এখন হেল্পলাইন নম্বর ‘১০৭৫’-এ কল করে কোভিড ভ্যাকসিন স্লট বুক করতে পারেন। শর্মা আরও বলেন যে, এই পরিষেবার সাহায্যে গ্রামাঞ্চলে বসবাসকারীরা বিশেষভাবে উপকৃত হবেন।

আপনি যদি টিকাকরণের জন্য সরকার কর্তৃক অনুমোদিত বয়সসীমার অন্তর্ভুক্ত হন, তাহলেই আপনি ১০৭৫ হেল্পলাইন নম্বর ব্যবহার করে করোনা ভ্যাকসিনের জন্য স্লট বুক করতে পারবেন। NHA-এর প্রধান উল্লেখ করেছেন যে, দেশের ৪৫ বছরের বেশি বয়সীদের অর্ধেক সংখ্যক মানুষ ইতিমধ্যেই ভ্যাকসিনের জন্য রেজিস্ট্রেশন করে ফেলেছেন, যার ফলে এটা খুব সহজেই বোঝা যাচ্ছে যে দেশে ভ্যাক্সিনেশন প্রক্রিয়া বেশ দ্রুতগতিতেই চলছে। তবে ভ্যাকসিন সরবরাহের ঘাটতির কারণে ১৮-৪৪ বছর বয়সীদের ক্ষেত্রে বেশ কিছু সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে।

শর্মা আরও উল্লেখ করেছেন যে, VVIP হোক বা সাধারণ নাগরিক, টিকাকরণ সম্পর্কে প্রত্যেকের কাছে একই তথ্য রয়েছে। সাধারণ মানুষের মনে আস্থা জুগিয়ে তিনি জানিয়েছেন যে, এই দুর্বিষহ পরিস্থিতিতে বর্তমান প্রশাসনিক ব্যবস্থায় কাউকেই কোনোরকম অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে না।

এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি, বর্তমানে CoWIN ওয়েবসাইট এবং হেল্পলাইন নম্বর ছাড়াও, কেউ Aarogya Setu অ্যাপ থেকেও তাদের স্লট বুক করতে পারেন। শর্মা বলেন, এছাড়াও সরকার চাইছে থার্ড-পার্টি অ্যাপ ডেভেলপাররা তাদের নিজস্ব প্ল্যাটফর্মে CoWIN API একীভূত (integrate) করে মানুষকে টিকাকরণের জন্য সরাসরি স্লট বুক করার সুযোগ করে দিক। তিনি বলেন, “আমরা অনেক আগেই থার্ড-পার্টি অ্যাপ্লিকেশনের জন্য APIs পাবলিশ করেছি যাতে রাজ্য সরকারগুলি টিকাকরণের জন্য অ্যাপ তৈরি করতে সেগুলি ব্যবহার করে।”

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।