জুনের বিক্রিবাটায় Hero MotoCorp-এর মেজাজ খুশ, মোটরসাইকেল ও স্কুটার বেচল প্রায় পাঁচ লাখ

বিক্রি ফিরছে করোনার আগের সময়ে। গাড়ি কিনতে আগ্রহী হচ্ছেন ক্রেতারা। দেশের বৃহত্তম দু’চাকা গাড়ি নির্মাতা হিসাবে নিজের স্থান আরও পোক্ত করল হিরো মোটোকর্প (Hero MotoCorp)। জুনে ভারত ও এক্সপোর্ট মার্কেট ৪,৮৪,৫৬৭টি মোটরসাইকেল ও স্কুটার বিক্রির কথা জানাল তারা। তুলনাস্বরূপ, গত বছরের একই সময়ে বিক্রি হয়েছিল ৪,৬৯,১৬০ ইউনিট। অর্থাৎ বিক্রিবাটায় ৩ শতাংশ উত্থান।

২০২১-এর জুন মাসে ভারতের বাজারে হিরোর ও বাইক ও স্কুটার ৪,৩৮,৫১৪ নতুন ক্রেতা পেয়েছিল। এক বছর ঘুরতে সেটা বেড়ে ৪,৬৩,২১০ ইউনিটে দাঁড়িয়েছে। তবে রপ্তানি কমেছে। গত বছর একই সময়ে ভারতের বাইরে ৩০,৬৪৬টি টু-হুইলার পাঠিয়েছিল। যা গত মাসে কমে ২১,৬৪৭ ইউনিট হয়েছে।

হিরো মোটোকর্প বিবৃতি প্রকাশ করে বলেছে, যা ট্রেন্ড চলছে, তাতে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে যে ক্রেতারা দু’চাকা গাড়ি কিনতে বেশি আগ্রহী এবং ফলস্বরূপ বিক্রিবাটায় লাগাতার উত্থান। ভাল বৃষ্টি হওয়ার কৃষিকার্যে লাভের মুখ দেখার কারণে আগামী কয়েক মাস ধরে বিক্রির ঊর্দ্ধগামী চিত্র বজায় থাকবে বলে আশা করছে তারা। ” এদিকে দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে (এপ্রিল-জুন ২০২২) মোট ১৩ লাখ ৯০ হাজার দু’চাকা গাড়ি বিক্রি করেছে বলে দাবি করেছে সংস্থাটি৷ প্রথম ত্রৈমাসিকে যা ছিল ১১.৮৯ লাখ ইউনিট।

উল্লেখ্য, ক’দিন আগেই ভারতে নতুন Hero Passion XTec কমিউটার বাইক লঞ্চ হয়েছে। এর মূল আকর্ষণ রঙিন ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার। স্মার্টফোনের সাথে যা ব্লুটুথের মাধ্যমে কানেক্ট করলেই কনসোলে ভেসে উঠবে এসএমএস এবং কল অ্যালার্ট। ফোনের ব্যাটারিতে কতটা চার্জ অবশিষ্ট রয়েছে, সেটাও দেখা যাবে ওখানে। আছে এলইডি হেডল্যাম্পও। কলকাতায় Passion XTec-এর ড্রাম ও ডিস্ক ভ্যারিয়েন্টের দাম যথাক্রমে ৭৫,১৯০ টাকা ও ৭৯,০৯০ টাকা (এক্স শোরুম)।

আবার সম্প্রতি দেশের গন্ডি ছাড়িয়ে এবার মধ্যপ্রাচ্যে বাইক ও স্কুটার লঞ্চ করেছে তারা। তুরস্কে Xpulse 200 মোটরসাইকেল এবং Dash 110 ও Dash 125 স্কুটার লঞ্চ হয়েছে। মডেলগুলি সে দেশে সংস্থার একশোর বেশি শোরুম থেকে বিক্রি করা হবে। ২০১৪ সালে তুরস্কে পথ চলা শুরু করেছিল হিরো মোটোকর্প।

সবার আগে খবর পেতে Google News-এ ফলো করুন