তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত দেশে নতুন ইলেকট্রিক স্কুটার ও বাইক লঞ্চ করা যাবে না, আগুন লাগার প্রেক্ষিতে কড়া বার্তা কেন্দ্রের

govt-asks-electric-two-wheeler-makers-to-stop-launching-new-products-till-investigation

ভারতের বাজারে বিগত কয়েক মাসে বেশকিছু স্টার্টআপ সংস্থা নতুন মডেলের ইলেকট্রিক স্কুটার ও মোটরসাইকেল লঞ্চ করেছে। কিন্তু হালে উপর্যুপরি বৈদ্যুতিক স্কুটারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় রাতের ঘুম উড়েছে বহু ক্রেতার। তাঁদের স্কুটারে অগ্নিকাণ্ড না ঘটলেও, একই মডেলের টু-হুইলারে আগুন ধরার খবর জানতে পেরে চিন্তায় রয়েছেন। পাশাপাশি যারা নতুন ইলেকট্রিক টু-হুইলার কিনবেন বলে মনস্থির করেছিলেন, কিন্তু অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা দেখে সিদ্ধান্ত বদলেছেন, তাঁদেরকে আশ্বস্ত করতে এবার নয়া দাওয়াই কেন্দ্রের। ই-স্কুটারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার রহস্য উন্মোচিত না হওয়া পর্যন্ত দেশে নতুন কোনো বিদ্যুৎচালিত টু-হুইলার লঞ্চ করা যাবে না, দেশের ইলেকট্রিক ভেহিকেল (EV) কোম্পানিগুলির উদ্দেশ্যে এমনই কড়া বার্তা শোনালো কেন্দ্রীয় সরকার।

গত সোমবার কেন্দ্রীয় পরিবহণ এবং হাইওয়ে মন্ত্রকের তরফে ডাকা এক বৈঠকে উপস্থিত ছিল দেশের ইলেকট্রিক টু-হুইলার নির্মাতা সংস্থাগুলি। সেখানে কোম্পানিগুলির উদ্দেশ্যে এই বার্তা দেওয়া হয়। কী কথা বলা হয়েছিল সেই প্রসঙ্গে এক সরকারি আধিকারিক জানিয়েছেন, “ইভি নির্মাতাদের মৌখিকভাবে নতুন বৈদ্যুতিক দু’চাকা লঞ্চ করা থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে, যতদিন না অগ্নিকাণ্ডের রহস্য উদঘাটিত হচ্ছে, এবং সেই ত্রুটির সমাধান করা যাচ্ছে।”

এদিকে দেশে পরপর বৈদ্যুতিক স্কুটারে আগুন ধরে যেতে দেখে সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলির উদ্দেশ্যে কেন্দ্র জানিয়েছিল, সে সব স্কুটারে আগুন ধরছে সেগুলির ব্যাচ ফিরিয়ে নেওয়া হোক। কেন্দ্রের সেই ডাকে সাড়া দিয়ে ওলা ইলেকট্রিক (Ola Electric), ওকিনাওয়া অটোটেক (Okinawa Autotech) ও পিওরইভি (PureEV) সম্মিলিত ভাবে প্রায় ৭ হাজার ইলেকট্রিক স্কুটার ফিরিয়ে নেওয়ার কথা ইতিমধ্যেই ঘোষণা করেছে।

সোমবার উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে ইভি সংস্থাগুলির উদ্দেশ্যে রিকলের বিষয়টি ফের একবার উত্থাপিত করেন কেন্দ্রীয় আধিকারিকরা। মনে করিয়ে দেওয়া হয় কেন্দ্রীয় মোটর ভেহিকেল আইন অনুযায়ী কেন্দ্র চাইলে সংস্থাগুলিকে গাড়ি ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য বাধ্য করতে পারে। আধিকারিকের কথায়, “যে সব সংস্থার ইলেকট্রিক টু-হুইলারের এখনও পর্যন্ত আগুন ধরার ঘটনা ঘটেনি, তাদেরকেও বিক্রি হয়ে যাওয়া স্কুটারে কোনো ত্রুটি রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখার কথা বলা হয়।” এমনকি প্রয়োজনে স্কুটার চার্জ করা সহ অন্যান্য খুঁটিনাটি বিষয়ে গ্রাহকদের প্রশিক্ষিত করার বার্তা দেয় কেন্দ্র।

এক্ষেত্রে জানিয়ে রাখা জরুরী যে, কয়েকটি নির্দিষ্ট স্টার্টআপ সংস্থার ইলেকট্রিক স্কুটারেই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা বারবার সামনে এসেছে। এমন বহু সংস্থাই রয়েছে, যাদের স্কুটার এখনও পর্যন্ত আগুনের সম্মুখীন হয়নি। কাজেই ইলেকট্রিক স্কুটার কেনা মানেই বিপদ ডেকে আনা, এমনটি সবক্ষেত্রে সত্যি নয়। ভবিষ্যতে যাতে স্কুটারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা না ঘটে, সেদিকে বিশেষ ভাবে নজর দিতে সংস্থাগুলি নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্র।

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

শুভদীপ টেকগাপে অটোকার বিষয়ক লেখালিখি করে। এর আগে বিভিন্ন পোর্টালের সাথে যুক্ত থাকলেও, অটোকার নিয়ে টেকগাপে তার হাতেখড়ি। দিনকে দিন সে টেকগাপের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হয়ে উঠেছে।