Twitter হবে TikTok ও WeChat-এর সমকক্ষ, প্রথমবার কর্মীদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে বসে জানালেন ইলন মাস্ক

Twitter কেনার চুক্তির প্রায় দু মাস পর সংস্থার কর্মীদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠক করলেন ইলন মাস্ক। সামনে এল প্ল্যাটফর্মটির ভবিষ্যত সম্পর্কিত নানা পরিকল্পনা।

গত এপ্রিল মাসে ৪,৪০০ কোটি ডলারে (প্রায় ৩৩,৬৭২ কোটি টাকা) Twitter (টুইটার) কেনার চুক্তি করার পর, এই বৃহস্পতিবার প্রথমবার সংস্থার কর্মীদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠক করলেন ইলন মাস্ক (Elon Musk)। এদিন ১০ মিনিট দেরিতে যোগদান করে বৈঠকে সংস্থার কর্মীদের নানারকম প্রশ্নের উত্তর দেন Tesla (টেসলা)-র কর্ণধার তথা বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি। এর পাশাপাশি আগামী দিনে মাইক্রোব্লগিং সাইটটির সার্বিক উন্নতির স্বার্থে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের ওপর আলোকপাতও করেন এই ধনকুবের। এক্ষেত্রে মাস্ক বলেছেন যে, প্রতিষ্ঠানটিকে আর্থিকভাবে অনেক বেশি শক্তিশালী হতে হবে। একইসাথে, খরচ কমানোর প্রসঙ্গ টেনে এই বৈঠকে কর্মী ছাঁটাইয়েরও ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি।

Twitter-কে TikTok এবং WeChat-এর সমকক্ষ করে তুলতে চান মাস্ক

আগামী দিনে টুইটারের ইউজার সংখ্যা যাতে এক বিলিয়নে পৌঁছোতে পারে, তার জন্য কর্মীদের জোরকদমে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন ইলন মাস্ক। তাঁর মতে, টুইটারকে অনেকটা টিকটক (TikTok) এবং উইচ্যাট (WeChat)-এর মতো হতে হবে, তবেই এই লক্ষ্যপূরণ করা যাবে। আর তাই মাইক্রোব্লগিং সাইটটির প্রতি যাতে ইউজারদেরকে আরও অনেক বেশি পরিমাণে আকর্ষিত করে তোলা যায়, সেইজন্য আলোচ্য প্ল্যাটফর্মে নতুন একাধিক ফিচার সংযুক্তির বিষয়টিও তিনি এই বৈঠকে তুলে ধরেছেন।

এর পাশাপাশি উইচ্যাট অ্যাপটির ভূয়সী প্রশংসা করেন মাস্ক এবং সাথে একথাও জানান যে এটির মতো দুর্দান্ত অ্যাপ এই মুহূর্তে পৃথিবীতে আর নেই। তাই টুইটারকেও আগামী দিনে এটির সমকক্ষ হয়ে উঠতে হবে বলে তাঁর ইচ্ছে। সেইসাথে টিকটকের অ্যালগরিদমকেও সাধুবাদ জানিয়ে তিনি কর্মীদের টুইটারকে টিকটকের মতো আকর্ষণীয় করে তুলতে যথাসম্ভব চেষ্টা চালাতে বলেন। মাস্ক একথাও বলেছেন যে, তিনি কর্মীদের ওয়ার্ক ফ্রম হোমের সম্পূর্ণ বিরোধী নন; তাই ভালোভাবে কাজ করার জন্য কর্মচারীদের যথাসম্ভব স্বাধীনতা দিতে তিনি যে প্রস্তুত, সেকথা বলাই বাহুল্য। এছাড়া, শুরুতেই বলেছি যে টুইটারকে আর্থিকভাবে অনেক বেশি শক্তিশালী করার দিকে বিশেষভাবে জোর দিয়েছেন ইলন মাস্ক। এক্ষেত্রে তিনি প্ল্যাটফর্মটির সাবস্ক্রিপশনের বিষয়ে কর্মীবৃন্দকে মনোনিবেশ করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

ভুয়ো অ্যাকাউন্ট কোনোমতেই বরদাস্ত করবেন না মাস্ক

টুইটারে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট থাকা নিয়ে সপ্তাহখানেক ধরে যে বিতর্ক চলছে, সেটির কথাও মাস্ক এই বৈঠকে উল্লেখ করেছেন। প্রসঙ্গত বলে রাখি, প্রচুর টাকা খরচা করে টুইটার কিনে ফেললেও সেটি কিন্তু এখনও সম্পূর্ণভাবে অধিগ্রহণ করেননি মাস্ক। গত ১৭ মে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিটি জানান যে, বহুল জনপ্রিয় এই প্ল্যাটফর্মটিতে কত সংখ্যক ভুয়ো/স্প্যাম অ্যাকাউন্ট আছে, তা সঠিকভাবে যাচাই করে যথাযথ নথি না পাওয়া পর্যন্ত তিনি টুইটার কেনার চুক্তিটি স্থগিত রাখছেন। সাথে একথাও বলেন যে, যতক্ষণ না এই মাইক্রোব্লগিং সাইটটিতে ৫ শতাংশেরও কম ভুয়ো অ্যাকাউন্ট থাকার যথাযথ প্রমাণ মিলবে, ততক্ষণ পর্যন্ত তিনি টুইটার অধিগ্রহণ করতে রাজি নন। তাই কোনোভাবেই ভুয়ো অ্যাকাউন্টের সংখ্যা যেন এই প্ল্যাটফর্মে বৃদ্ধি না পায়, সেদিকে তীক্ষ্ণ নজর রাখার আর্জি জানিয়েছেন তিনি।

এখানেই শেষ নয়! বৈঠক শেষে তিনি কর্মীদের সঙ্গে মহাকাশ, পৃথিবীর বয়স এবং অন্যান্য গ্রহ সম্পর্কিত বেশ কিছু বিষয়েও আলোচনা করেন। সেইসাথে এও জানান যে, পৃথিবীতে এলিয়েনের অস্তিত্বের প্রমাণ এখনও তিনি পাননি। যাইহোক সবমিলিয়ে, এই বৈঠকে Twitter-এর সকল কর্মী এবং ইলন মাস্কের মধ্যে যে একটি আন্তঃযোগাযোগ সম্পর্ক তৈরি হয়েছে বলেই মনে হচ্ছে। এবার মালিকপক্ষ এবং কর্মচারীরা হাতে হাত মিলিয়ে ভবিষ্যতে Twitter-কে কোন জায়গায় নিয়ে যায়, এখন সেটাই দেখার…

স্মার্টফোন, গাড়ি-বাইক সহ প্রযুক্তি দুনিয়ার সব গুরুত্বপূর্ণ খবর সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের Google News ও Twitter পেজ, সঙ্গে অ্যাপ ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।