আকাশপথেও পাওয়া যাবে Starlink ব্রডব্যান্ড পরিষেবা, ভারতে কবে চালু হচ্ছে?

ভারত থেকে প্রি-অর্ডারের সংখ্যা ৫,০০০ ছাড়িয়েছে, আগামী বছরের ডিসেম্বর নাগাদ দেশে পুরোপুরিভাবে মিলতে পারে Starlink পরিষেবা

এবার কি তবে আকাশপথে ব্যবহারযোগ্য হতে চলেছে স্যাটেলাইট নির্ভর Starlink ব্রডব্যান্ড পরিষেবা? SpaceX প্রধান ইলন মাস্কের টুইট থেকে অন্তত তেমনটাই ইঙ্গিত মিলছে। সদ্য মাস্ক তার একটি টুইটে জানিয়েছেন যে, আকাশপথে যাতায়াতের সময় যাতে ব্রডব্যান্ড সংযোগ ব্যবহার করা যায় সেজন্য তার সংস্থা বিভিন্ন এয়ারলাইন্স (Airlines) কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা চালাচ্ছে। যদিও কোন কোন এয়ারলাইন্সের সঙ্গে তাদের কথাবার্তা এগিয়েছে সেই বিষয়ে তিনি কোনো তথ্য প্রকাশ করতে চাননি।

এদিন হ্যারিসন নামের এক টুইটার ব্যবহারকারী আকাশপথে স্টারলিঙ্ক পরিষেবার উপলব্ধতা সম্পর্কে মাস্কের কাছে প্রশ্ন রাখেন। তার টুইটের প্রত্যুত্তরে মাস্ক জানান যে এই বিষয়ে কয়েকটি এয়ারলাইন্সের সঙ্গে তাদের কথাবার্তা অনেকটা অগ্রসর হয়েছে। খুব শীঘ্রই আকাশপথে স্বল্প ল্যাটেন্সি এবং আধা গিগাবাইটের স্টারলিঙ্ক পরিষেবা ব্যবহার করা যাবে।

অবগতির জন্য জানিয়ে রাখি, উচ্চ গতির স্যাটেলাইট নির্ভর ব্রডব্যান্ড পরিষেবা সরবরাহের জন্য ইতিমধ্যেই স্টারলিঙ্ক ভারতীয় ক্রেতাদের কাছ থেকে প্রি-অর্ডারের অর্থ সংগ্রহ শুরু করেছে। স্টারলিঙ্ক সংযোগের প্রি-অর্ডার নিশ্চিত করতে ভারতীয় ক্রেতাদের আপাতত ৯৯ মার্কিন ডলার খরচ করতে হচ্ছে, ভারতীয় মুদ্রায় যা প্রায় ৭,০০০ টাকার সমান। আগ্রহীরা শহরের নাম এবং পোস্টাল কোড প্রদানের মাধ্যমে নিজের অঞ্চলে স্টারলিঙ্ক পরিষেবার উপলব্ধতা যাচাই করতে পারেন।

এদিকে চলতি মাসেই Telecom Watchdog নামের এক এনজিও (NGO) প্রি-অর্ডারের নামে স্টারলিঙ্ক কর্তৃপক্ষ দ্বারা আগেভাগে অর্থ সংগ্রহের বিরোধিতা করেছে। প্রয়োজনীয় লাইসেন্স পাওয়ার আগেই পরিষেবা সরবরাহের আশ্বাস দিয়ে টাকা আদায় করার জন্য তারা টেলিকম সেক্রেটারির কাছে Starlink কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়েছে।

এনজিও কর্তৃক অভিযোগের পরে অবশ্য স্টারলিঙ্ক তাদের কৃতকর্মের পক্ষে সাফাই পেশ করেছে। রবিবার সংস্থার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্তা সঞ্জয় ভার্গব জানিয়েছেন যে, আগামী কিছুদিনের মধ্যেই তারা ভারতের দশটি অপেক্ষাকৃত গ্রামীণ লোকসভা অঞ্চলে উচ্চগতির ইন্টারনেট পরিষেবা সরবরাহের ব্যাপারে নিশ্চিত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। এই বিষয়ে আগামী অক্টোবরে তিনি কেন্দ্রের সাংসদ, মন্ত্রী, আধিকারিক এবং রাজ্য সরকারের উচ্চপদস্থ কর্তাদের সাথে মতামত বিনিময়ের ইঙ্গিত দিয়েছেন।

২০২২ সালের ডিসেম্বর মাস নাগাদ Starlink সমগ্র ভারতে স্যাটেলাইট ভিত্তিক ব্রডব্যান্ড পরিষেবা সরবরাহের জন্য তৎপর। এজন্য তাদের প্রায় দুই লক্ষ সক্রিয় টার্মিনালকে সরকারের স্বীকৃতি পেতে হবে। এদিকে এর মধ্যেই সংস্থাটি ভারত থেকে প্রায় ৫,০০০ প্রি-অর্ডার সংগ্রহ করেছে বলে সংবাদে প্রকাশিত। আপাতত এর ভিত্তিতেই দেশের গ্রামীণ অঞ্চলে Starlink -এর তরফে পরিষেবা সরবরাহ শুরু করা হবে বলে সংস্থার অন্যতম কর্তা সঞ্জয় ভার্গব জানিয়ে দিয়েছেন।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

স্মার্টফোন, গাড়ি-বাইক সহ প্রযুক্তি দুনিয়ার সব গুরুত্বপূর্ণ খবর সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের Google News ও Twitter পেজ, সঙ্গে অ্যাপ ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।