Ekonk: ভারতের প্রথম ইলেকট্রিক হাইপারকার, ৩০৯ কিমি/ঘন্টা গতিতে ছুটবে এই বিষ্ময়কর গাড়ি

দূষণমুক্ত ব্যাটারিতে চলবে Vazirani Automotive-র Ekonk ইলেকট্রিক হাইপারকার

Ekonk india-gets-its-fastest-electric-car-ekonk-speed 309kmph

“হাইপারকার!” বিশ্বে মাত্র ১ শতাংশ গাড়ি এই শ্রেণীতে পড়ে। সুপারিয়র এবং হাই-পারফরম্যান্স হাইপারকারের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে। একটি গাড়ি কতটা ক্ষমতাশালী হতে পারে, তার সমস্ত ধ্যানধারণা পাল্টে দেয় হাইপারকার। তৈরিও হয় সীমিত সংখ্যায়। খুব সম্প্রতি এক ভারতীয় স্টার্টআপ সংখ্যা এমনই এক ধরনের গাড়ির প্রোটোটাইপ (নমুনা) মডেল দেখিয়েছে। Vazirani Automotive বলে সংস্থাটির তৈরি সেই হাইপারকারের নাম “Ekonk”।

পেট্রোলে নয়, দূষণমুক্ত ব্যাটারিতে চলবে Vazirani Automotive-র Ekonk ইলেকট্রিক হাইপারকার। এটি আধুনিকতম স্টাইল এবং প্রযুক্তির সাহায্যে নির্মাণ করা হয়েছে। Ekonk বিশ্বের সবচেয়ে হালকা হাইপারকার৷ মাথা থেকে পা পর্যন্ত ব্যবহার করা হয়েছে কার্বন ফাইবার, ওজন ৭৩৮ কেজি।

গাড়ি ঠান্ডা রাখার জন্য জটিল লিকুইড কুলিং সিস্টেম ব্যবহার করে নির্মাতারা। Ekonk হাইপারকারে সে সব কিছুই দেওয়া হয়নি। সেই জায়গায় Vazirani Automotive তাদের নতুন উদ্ভাবনী ব্যাটারি সলিউশন টেকনিক প্রয়োগ করেছে।

সংস্থার দাবি, হাইপারকারে ‘DiCo’ নামে এক ধরণের প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে, যা বাতাসের সংস্পর্শে আসলে ব্যাটারিকে আপনাআপনি ঠান্ডা হয়ে যেতে সক্ষম করে। এর ফলে দরকার পড়েনি পৃথক লিকুইড কুলিং সিস্টেমের। Vazirani-র মতে DiCo গাড়িটিকে হালকা, দ্রুত, সুরক্ষিত, সাশ্রয়ী করার পাশাপাশি রেঞ্জও বৃদ্ধি করে।

Ekonk ব্যাটারি চালিত গাড়ির গতি বা এক্সিলারেশন সংক্রান্ত ধারণা বদলে দেবে। ০ থেকে ১০০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টার গতিতে পৌঁছতে Ekonk-এর সময় লাগে ৩ সেকেন্ডেরও (২.৫৪ সেকেন্ড) কম। এই গাড়ির ইলেকট্রিক পাওয়ারট্রেনের আউটপুট ৭২২ এইচপি, যা একে প্রতি ঘণ্টায় ৩০৯ কিলোমিটারের সর্বোচ্চ গতিসীমা তুলতে সাহায্য করবে।

এক আসনবিশিষ্ট Ekonk-এর ডিজাইন থেকে শুরু করে নির্মাণ, পুরোটাই করেছে Vazirani Automotive। ইন্দোর সন্নিহিত Naxtrax হাই-স্পিড ভেহিকল টেস্টিং ফেসিলিটিতে গাড়িটির পরীক্ষা চলেছে৷ Ekonk থেকে প্রাপ্ত ডেটা এবং প্রযুক্তিগত শিক্ষাগুলি প্রয়োগ করা হবে সংস্থা তথা ভারতের প্রথম হাইপারকার কনসেপ্ট Shul-এর প্রোডাকশন মডেলে, যা যুক্তরাজ্যের গুডউড উৎসবে সর্ব প্রথম সামনে আনা হয়েছিল৷

উল্লেখ্য, ভারতীয় শাস্ত্র “Ekonk” কথাটির উল্লেখ আছে। এর অর্থ “ঐশ্বরিক জ্যোতির আবির্ভাব”৷ আক্ষরিক অর্থেই হাইপারকারটি প্রস্তুতকারী সংস্থার কাছে এক নতুন অধ্যায়ের সূচনা চিহ্নিত করেছে। সংস্থার চিফ এগজিকিউটিভ অফিসার (সিওই) চাঙ্কির মতে, বৈদ্যুতিক গাড়ির যুগে এটাই ভারতের জন্য সঠিক সময় ইভি-র উদ্ভাবন এবং ডেভেলপ করে বিশ্বকে নেতৃত্ব দেওয়ার।

প্রোটোটাইপ গাড়ি সাধারণ মানুষের ব্যবহারের জন্য তা নাও তৈরি করা হতে পারে। তবে কে বলতে পারে, সুদূর ভবিষ্যতে ক্রেতাদের জন্য Ekonk-এর প্রোডাকশন মডেল নিয়ে হাজির হল Vazirani Automotive!

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

Shuvro primarily writes about smartphone and automobile industry. He is an assistant editor for techgup. Shuvro has a bachelor degree in English literature. His interest also includes cosmopolitan affairs, scientific discoveries, and quizzing.