COVID-19 ভ্যাকসিন শংসাপত্র সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করতে বারণ করলো সরকার, জানুন কারণ

dont-post-covid-19-vaccine-certificate-government-warns-know-why

জীবনে ভালো বা খারাপ যাই ঘটুক না কেন, তা সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করার প্রবণতা আমাদের অনেকেরই রয়েছে, আর এটাই Twitter, Facebook, Instagram বা WhatsApp-এর মতো সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলির বিপুল জনপ্রিয়তা বৃদ্ধির অন্যতম প্রধান কারণ। সাম্প্রতিককালে দেশে করোনার দ্বিতীয় সংক্রমণের যে ভয়াবহ দাপট চলছে তার হাত থেকে বাঁচতে অন্যতম হাতিয়ার হল টিকাকরণ, এবং ভ্যাকসিনের পরিমাণ অপ্রতুল হওয়ায় সীমিত সংখ্যক মানুষই টিকা পাচ্ছেন যা যুদ্ধজয়ের থেকে কোনো অংশে কম নয়। তাই COVID-19 ভ্যাকসিনের প্রথম এবং দ্বিতীয় ডোজ নেওয়া সম্পন্ন হয়ে গেলে CoWIN পোর্টাল বা Aarogya Setu অ্যাপ থেকে কোভিড ভ্যাকসিন শংসাপত্র (COVID vaccine certificate) ডাউনলোড করে তা সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করছেন বহু সংখ্যক মানুষ।

এই শংসাপত্রের দ্বারা প্রমাণিত হয় যে, আপনার টিকাকরণ প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হয়েছে এবং আপনার এই মারণ ভাইরাসের দ্বারা সংক্রামিত হওয়ার সম্ভাবনা খুব কম, যা দেশের এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে সত্যিই এক নিদারুন আনন্দের খবর। ফলে আনন্দে অনেকেই এই শংসাপত্র সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করছেন, কিন্তু জেনে রাখুন এটা করা উচিত নয়। সম্প্রতি সরকার সবাইকে অনলাইনে ভ্যাকসিন শংসাপত্র পোস্ট করার বিষয়ে সতর্ক করে জানিয়েছে যে, টিকাগ্রহণের পর CoWIN বা Aarogya Setu থেকে পাওয়া শংসাপত্র কখনোই সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করবেন না। কিন্তু কেন?‌

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন শংসাপত্রে নাম, জন্মতারিখ, ভ্যাকসিনের বিশদ, বয়স, লিঙ্গ এবং আরও অনেক কিছু সহ বেশ কয়েকটি ব্যক্তিগত গুরুত্বপূর্ণ তথ্যের উল্লেখ থাকে। তাই এরকম জরুরি তথ্যসমৃদ্ধ ভ্যাকসিন সার্টিফিকেট পাবলিক প্ল্যাটফর্মে শেয়ার করা কখনোই উচিত নয়, কারণ হ্যাকাররা এর অপব্যবহার করে মানুষকে প্রতারিত করতে পারে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের পক্ষ থেকে সাইবার সুরক্ষা ও সাইবার নিরাপত্তা সচেতনতামূলক টুইটার হ্যান্ডেল CyberDost-এ এই প্রসঙ্গে একটি সতর্কীকরণ বিজ্ঞপ্তি পোস্ট করে আপামর জনগণকে ভ্যাকসিন শংসাপত্র অনলাইনে পাবলিক প্ল্যাটফর্মে পোস্ট না করার আহ্বান জানানো হয়েছে। টুইটে উল্লেখ করা হয়েছে, “কোভিড-১৯ টিকাকরণ শংসাপত্রে আপনার নাম এবং অন্যান্য ব্যক্তিগত বিবরণ রয়েছে। আপনার টিকাকরণের শংসাপত্রটি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলিতে শেয়ার করা এড়িয়ে চলুন, কারণ সাইবার হ্যাকাররা আপনাকে প্রতারিত করতে এটির অপব্যবহার করতে পারে।”

প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি, কোভিড ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজের পরে ভারত সরকার একটি অস্থায়ী শংসাপত্র জারি করে যাতে দ্বিতীয় ডোজের তারিখ, নাম, বয়স এবং আরও অনেক তথ্যের উল্লেখ থাকে। দ্বিতীয় ডোজের পরে চূড়ান্ত ভ্যাকসিন শংসাপত্র জারি করা হয়। এই শংসাপত্রটি ডাউনলোড করার জন্য আপনাকে CoWIN পোর্টালে যেতে হবে, এরপর OTP-র সাহায্যে আপনার রেজিস্ট্রেশন নাম্বারটি এন্টার করতে হবে। তারপরে আপনি শংসাপত্রটি ডাউনলোড করার অপশন পাবেন।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।