আবারো Play Store-এ মিলল ‘ট্রোজান’ ভাইরাসের হদিশ, এই অ্যাপগুলি ফোনে থাকলে সাবধান!

dangerous-trojan-virus-found-google-play-store-again-alert-from-these-30-apps

আপনি কি অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ব্যবহার করেন? কিংবা আপনার মুঠোফোনে রয়েছে প্রচুর অ্যাপ? তাহলে দাঁড়ান, কারণ আপনার সাবধান হওয়ার সময় উপস্থিত! ডক্টরওয়েবের গত জুন মাসের সমীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী, Google Play Store (গুগল প্লে স্টোর)-এর অনেক অ্যাপে ভাইরাসের খোঁজ মিলেছে। আর যে সে ভাইরাস নয়, বেশিরভাগ অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল অ্যাপে মিলেছে ট্রোজান (Trojan) ভাইরাস। এক্ষেত্রে ম্যালওয়্যার অ্যানালিসিস্টরা Play Store-এ কয়েক ডজন ভাইরাস অ্যাপ খুঁজে পেয়েছেন, যার মধ্যে প্রধানত অ্যাডওয়্যার ট্রোজান ম্যালওয়্যার রয়েছে। তবে এছাড়াও স্ক্যামারদের ব্যবহৃত ভুয়ো অ্যাপ এবং ডেটা চুরির অন্যান্য অ্যাপের সন্ধানও পেয়েছেন গবেষকরা।

লক্ষ লক্ষ মানুষ ভাইরাস অ্যাপগুলি ডাউনলোড করেছেন

গত মে মাসের তুলনায় জুন মাসে অ্যান্ড্রয়েড স্পাইওয়্যারের কার্যকলাপ ২০ শতাংশ কমেছে বলে জানা গিয়েছে। গবেষকদের মতে অ্যাডওয়্যার ট্রোজানের ক্ষতিকারক কার্যকলাপও অনেকটা হ্রাস পেয়েছে। তবে তারা গুগল প্লে স্টোরে ৩০টির কাছাকাছি দূষিত অ্যাপও আবিষ্কার করেছেন, যার মধ্যে অ্যাডওয়্যার ট্রোজান রয়েছে। মুশকিল এটাই যে, ৯.৮৯ মিলিয়নেরও বেশি মানুষ অ্যাডওয়্যার অ্যাপগুলি ডাউনলোড করেছেন। এখন আমরা এই ইমেজ-এডিটিং সফটওয়্যার, ভার্চুয়াল কীবোর্ড, কলিং অ্যাপ বা ওয়ালপেপার কালেকশন হিসেবে থাকা অ্যাপগুলির কয়েকটির নাম আপনাদের সামনে তুলে ধরছি; এগুলি যদি পাঠকদের কারো ফোনে থাকে তবে এখনই ডিলিট করুন।

এই সমস্ত অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপে পাওয়া গেছে ট্রোজান ম্যালওয়্যার

১. Beauty Filters,

২. Corrections & Cutouts,

৩. Art Filters,

৪. Design Maker,

৫. Photo Editor & Background Eraser,

৬. Photo Editor: Blur Image,

৭. Photo & Exif Editor,

৮. Filter Effects,

৯. Photo filters & effects,

১০. Emoji Keyboard: Stickers & GIF,

১১. Neon Theme Keyboardd,

১২. FastCleaner,

১৩. Photo Editor: Art Filters,

১৪. Funny Wallpapers – Live Screen,

১৫. Cache Cleaner,

১৬. FastCleaner

ট্রোজান ম্যালওয়্যার কী?

ট্রোজান একরকম একটি পরিচিত ম্যালওয়্যার ভাইরাস, যা কম্পিউটার বা মোবাইলের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকারক। এটি ডিভাইসে সহজেই অ্যাক্সেস করতে পারে এবং নানারকম কোড বা প্রোগ্রাম এক্সিকিউট করে ইউজারের তথ্য চুরির চেষ্টা করে।

সবার আগে খবর পেতে Google News-এ ফলো করুন