Cyborg GT 120: দেশীয় প্রযুক্তিতে নির্মিত উচ্চগতির ইলেকট্রিক স্পোর্টস বাইক, 180km রেঞ্জ, পিকআপও দারুণ

cyborg-gt-120-electric-sports-bike-unveiled-specifications-features-4-68kwh-battery-180km-range-125km-top-speed

গুরুগ্রামস্থিত ইভি স্টার্টআপ ইগনিট্রন মোটোকর্প (Ignitron MotoCorp) ভারতে তাদের নতুন ইলেকট্রিক মোটরসাইকেলের উপর থেকে পর্দা সরিয়েছে। সংস্থাটি সাইবর্গ (Cyborg) ব্র্যান্ড নামের অধীনে ইতিমধ্যেই একটি বৈদ্যুতিক ক্রুজার (Cyborg Yoga) ও কম্প্যাক্ট ডার্ট-বাইক (Cyborg Bob-) সামনে এনেছে। আর তাদের নতুন মডেলটি হল একটি উচ্চ-গতির ব্যাটারিচালিত ফুল-ফেয়ার্ড স্পোর্টস বাইক। যার নামকরণ হয়েছে Cyborg GT 120। সংস্থা দাবি করেছে, Cyborg GT 120 সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি। এটি এআই বা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স নির্মিত এবং নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিভিন্ন ফিচারের সাথে এসেছে।

ইগনিট্রন মোটোকর্প আরও জানিয়েছে, Cyborg GT 120-এ দুর্দান্ত রাইডিংয়ের অভিজ্ঞতা মিলবে। বৈদ্যুতিক স্পোর্টস বাইকের নাম শুনলে নাক সিঁটকানো ব্যক্তিদের দৃষ্টিভঙ্গী বদলে দেবে। Cyborg GT 120 ইলেকট্রিক মোবিলিটি সেগমেন্টে গেম চেঞ্জার হিসেবে প্রমাণিত হবে বলেই মত প্রস্তুতকারী সংস্থার।

সাইবর্গ জিটি ১২০ স্পেসিফিকেশন, ফিচার্স (Cyborg GT 120 Specifications, Features)

সাইবর্গ জিটি ১২০ যে একটি ইলেকট্রিক স্পোর্টস বাইক সেটা একঝলকে বাইরে থেকে বোঝার উপায় নেই। ব্যাটারি প্যাকটি ফেয়ারিংয়ে ঢাকা থাকায় একটি ট্রু রেসিং বাইকের স্টাইলিশ ডিজাইন ফুটিয়ে তুলতে সুবিধা হযেছে ইগনিট্রন মোটোকর্প-এর।

সাইবর্গ জিটি ১২০ একটি ৪.৬ কিলোওয়াট আওয়ার ক্যাপাসিটির ব্যাটারি প্যাকের সঙ্গে এসেছে। একবার চার্জ দিলে পাড়ি দেওয়া যাবে ১৮০ কিলোমিটার পথ। আকার-আয়তনে বড় ও ওজন বেশি হওয়ার জন্য ব্যাটারিটি ফিক্সড, রিমুভেবল নয়। আবার এটি ওয়েদার-প্রুফ ও শক-প্রুফ। ফলে ব্যাটারি প্যাকটি যেমন টেকসই এবং শক্তপোক্ত, তেমনই খারাপ আবহাওয়াতেও নিশ্চিন্ত মনে রাইডিং করা যাবে। ১৫ অ্যাম্পিয়ার হোম ফাস্ট চার্জারের মাধ্যমে ব্যাটারিটি ৫ ঘন্টার মধ্যে সম্পূর্ণ চার্জ করা যাবে।

সাইবর্গ জিটি ১২০-এর সর্বোচ্চ গতিসীমা ঘন্টা প্রতি ১২৫ কিলোমিটার৷ ২.৫ সেকেন্ডে ০ থেকে ৪০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় গতিবেগ ওঠে। এতএব, ইলেকট্রিক বাইক হলেও পিকআপ দারুণ। রাইডার তার প্রয়োজন বা রাইডিং স্টাইলের উপর ভিত্তি করে তিনটি রাইড মোডের মধ্যে নির্বাচন করতে পারবে – ইকো, নর্মাল, এবং স্পোর্ট। রেসিং বাইক কিন্তু ইলেকট্রিক বলে আওয়াজ বার হবে না, এমন মনে হলে চিন্তার কারণ নেই৷ কারণ সংস্থা বলেছে, এতে বিভিন্ন সাউন্ডের ব্যবস্থা আছে। যা অন করা মাত্রই পেট্রলচালিত মোটরবাইকের মতো সাইবর্গ জিটি ১২০ ইলেকট্রিক বাইকও গর্জে উঠবে।

Cyborg GT 120-এর হার্ডওয়্যার সেটআপের মধ্যে কম্বি ব্রেক সিস্টেম (সিবিএস), ডিস্ক ব্রেক (ফ্রন্ট), রিজেনারেটিভ ব্রেকিং, টেলিস্কোপিক ফ্রন্ট ফর্ক এবং ফুল অ্যাডজাস্টেবল রিয়ার মনোশক সাসপেনশন রয়েছে।

ব্লুটুথের সাহায্যে কানেক্ট করে স্মার্টফোনের মাধ্যমেই ই-বাইকটিতে হরেক পরিবর্তন করা সম্ভব। এলইডি ডিজিটাল কনসোলে বাইকের অবশিষ্ট চার্জ, গতি-সহ নানা তথ্য ফুটে উঠবে। Cyborg GT 120-এর বিশেষ ফিচারগুলির মধ্যে রয়েছে জিও লোকেট/জিও ফেন্সিং, ইউএসবি চার্জিং, কীলেস ইগনিশন, রিভার্স মোড, পার্কিং অ্যাসিস্ট, ইত্যাদি। আর সবথেকে বড় কথা, সাইবর্গ জিটি ১২০-এর মোটর, ব্যাটারি, এবং পুরো বাইকের উপরে ৫ বছরের ওয়ারেন্টি পাওয়া যাবে।

সাইবর্গ জিটি ১২০ দাম, লভ্যতা (Cyborg GT 120 Price, Availability)

সাইবর্গ জিটি ১২০-এর দাম বা বুকিং সম্বন্ধীয় তথ্য এখনও ইগনিট্রন প্রকাশ করেনি। এই নিয়ে সামনের মাসে বিস্তারিত তথ্য জানানো হবে বলে আশা করা যায়। বাইকটি ব্ল্যাক ছাড়াও পার্পেল কালারে উপলব্ধ হবে।

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

Shuvro primarily writes about smartphone and automobile industry. He is an assistant editor for techgup. Shuvro has a bachelor degree in English literature. His interest also includes cosmopolitan affairs, scientific discoveries, and quizzing.