Realme থেকে Xiaomi, ১০০০০ টাকার কমে এই পাঁচটি মোবাইল ফোন আপনার জন্য সেরা হবে

১০০০০ টাকার কমের এই ফোনগুলিতে ৪ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম, ৬,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটি পর্যন্ত ব্যাটারি, অ্যাডভান্স প্রসেসর ও 'হাই-কোয়ালিটি' ক্যামেরা সেটআপ পাওয়া যাবে

আপনি যদি ১০,০০০ টাকারও কম দামে ফিচারে ভরা স্মার্টফোন কেনার কথা ভেবে থাকেন, তাহলে এই প্রতিবেদন আপনার জন্যই। আজকাল প্রায়শই দেখা যায় যে, বাজেট কম হওয়ার দরুন বহু ক্রেতারা বাজেট-রেঞ্জ স্মার্টফোন কেনার দিকে ঝুঁকছেন। তবে ডিভাইসের দাম কম থাকায়, ফিচার ও পারফরম্যান্সের ক্ষেত্রে আপোষ করার কথা ভাবেন অনেকে। তবে আজ আমরা আপনাদের ভারতের বাজারে বিদ্যমান এমন ৫টি সেরা স্মার্টফোনের খোঁজ দেব, যেগুলির দাম ১০,০০০ টাকার মধ্যেই থাকবে। উপরন্তু, ফিচার হিসাবে উন্নত ডিসপ্লে প্যানেল, ৪ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম, ৬,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটি পর্যন্ত ব্যাটারি, অ্যাডভান্স প্রসেসর ও ‘হাই-কোয়ালিটি’ ক্যামেরা সেটআপ পাওয়া যাবে। তাহলে চলুন বাজেট সেগমেন্টের শীর্ষ ৫টি স্থান দখলকারী স্মার্টফোনগুলির ব্র্যান্ড এবং এগুলির ফিচারের বিশদ জেনে নেওয়া যাক।

১০,০০০ টাকার নিচে উপলব্ধ সেরা ৫টি স্মার্টফোনের তালিকা

Realme Narzo 30A: রিয়েলমি নারজো ৩০এ ফোনের ৩ জিবি র‌্যাম ভ্যারিয়েন্টের দাম ৮,৯৯৯ টাকা রাখা হয়েছে। ফিচারের কথা বললে, এতে রয়েছে ৬.৫ ইঞ্চির এইচডি প্লাস মিনি ড্রপ নচ ডিসপ্লে। এটি অক্টা কোর মিডিয়াটেক হেলিও জি৮৫ প্রসেসর সহ এসেছে। অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে এতে অ্যান্ড্রয়েড ১০ ভিত্তিক রিয়েলমি ইউআই পাওয়া যাবে। ফটোগ্রাফির জন্য নারজো সিরিজের এই ফোনের পিছনে ডুয়েল ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এই ক্যামেরাগুলি হল ১৩ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর এবং ২ মেগাপিক্সেল মনোক্রোম পোর্ট্রেট সেন্সর। সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য এতে ৮ মেগাপিক্সেল এইচডি এআই ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে। আবার এই ফোনে আছে ৬,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি, যার সাথে ১৮ ওয়াট কুইক চার্জ সাপোর্ট করে।

Motorola Moto E7 Plus: মোটোরোলার এই ফোনের ৪ জিবি র‌্যাম অপশনের দাম থাকছে ৯,৪৯৯ টাকা। ফিচার হিসাবে, মোটো ই৭ প্লাস ফোনে ৬.৫ ইঞ্চির ম্যাক্স ভিশন এইচডি প্লাস (১৬০০x৭২০ পিক্সেল) ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। উন্নত পারফরম্যান্সের জন্য এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৪৬০ প্রসেসর এবং এড্রেনো ৬১০ জিপিইউ। মোটো ই৭ প্লাস, LED ফ্ল্যাশ লাইট সহ ডুয়েল রিয়ার ক্যামেরার সাথে এসেছে। যার প্রাইমারি সেন্সর ৪৮ মেগাপিক্সেলের এবং সেকেন্ডারি সেন্সর ২ মেগাপিক্সেলের। আবার ভিডিও কলিং ও সেলফি তোলার জন্য, ডিভাইসের ডিসপ্লেতে থাকা ওয়াটারড্রপ নচের মধ্যে ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। পাওয়ারের কথা বললে এই ফোনে ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে, যা ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। কোম্পানি দাবি অনুযায়ী, এই ব্যাটারি দুদিনের ব্যাটারি ব্যাকআপ দেবে। ফোনটি ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরের সাথে এসেছে।

Xiaomi Poco C3: শাওমির সাব-ব্র্যান্ড পোকোর এই ফোনের ৪ জিবি র‌্যাম ভ্যারিয়েন্টের বিক্রয় মূল্য ৯,৪৯৯ টাকা। ফিচারের কথা বললে, পোকো সি৩, ৬.৫৩ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (৭২০×১,৬০০ পিক্সেল) LCD ডিসপ্লে সহ এসেছে। এই ডিভাইসে অক্টা-কোর মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫ প্রসেসর ও পাওয়ারভিআর জিই৮৩২০ গ্রাফিক্স ব্যবহার করা হয়েছে। আর অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে এতে অ্যান্ড্রয়েড ১০ ভিত্তিক এমআইইউআই ১২ কাস্টম ওএস বিদ্যমান। এছাড়া, ফটোগ্রাফির জন্য পোকো সি৩ ফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে। এগুলি হল, ১৩ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর বর্তমান। সেলফি এবং ভিডিও কলিংয়ের জন্য এতে ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা পাওয়া যাবে। উক্ত স্মার্টফোনে ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে, যা ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সমর্থন করে।

Moto G10 Power: মোটোরোলার এই স্মার্টফোনের বিক্রয় মূল্য ৯,৯৯৯ টাকা। এই দাম ফোনের ৪ জিবি র‌্যাম ভ্যারিয়েন্টের। এবার আসা যাক ফিচারের প্রসঙ্গে। ডুয়েল সিমের মোটো জি১০ পাওয়ার ফোনে আছে ৬.৫১ ইঞ্চির এইচডি প্লাস ওয়াটার ড্রপ নচ IPS LCD ডিসপ্লে। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ অপারেটিং সিস্টেম দ্বারা চালিত। মাল্টিটাস্কিং ও উন্নত পারফরম্যান্স অফার করার জন্য এতে অক্টা কোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৪৬০ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনের পিছনে কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এই ক্যামেরাগুলি হল, ৪৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড এঙ্গেল লেন্স, ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর এবং ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর। আবার ডিভাইসের সামনে আছে ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। ফোনটি ২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং ও ৬,০০০ এমএএইচ ব্যাটারির সাথে এসেছে। আইপি৫২ রেটিং প্রাপ্ত এই ফোনে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর উপলব্ধ।

Realme C25: রিয়েলমি সি২৫ স্মার্টফোনের ৩ জিবি র‌্যাম ভ্যারিয়েন্টের দাম থাকছে ৮,৯৯৮ টাকা। এই ফোনে, ৬.৫ ইঞ্চির এইচডি প্লাস (৭২০x১,২৮০ পিক্সেল) IPS ওয়াটার ড্রপ নচ ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। আবার এতে ব্যবহার করা হয়েছে মিডিয়াটেক হেলিও জি৭০ প্রসেসর। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক রিয়েলমি ইউআই ২.০ কাস্টম ওএস দ্বারা চালিত। রিয়েলমি সি ২৫ ফোনের পিছনে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এই ক্যামেরারগুলি হল ১৩ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স ও ২ মেগাপিক্সেল ব্ল্যাক এন্ড হোয়াইট লেন্স। সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য এতে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এই ফোনে পাওয়া যাবে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সহ ৬,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি। আবার, সিকিউরিটির জন্য ফোনে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর ও ফেস আনলক ফিচারের সুবিধা পাওয়া যাবে।

স্মার্টফোন, গাড়ি-বাইক সহ প্রযুক্তি দুনিয়ার সব গুরুত্বপূর্ণ খবর সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের Google News ও Twitter পেজ, সঙ্গে অ্যাপ ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।