২০ হাজার টাকার কমে এর থেকে ভালো 5G স্মার্টফোন আর পাবেন না, দেখে নিন তালিকা

আপনারা যারা ২০ হাজার টাকার কমে একটি দুর্দান্ত স্মার্টফোন কিনতে ইচ্ছুক, তারা আমাদের প্রতিবেদনটি পড়ুন

সাশ্রয়ী মূল্যের স্মার্টফোনের চাহিদা ভারতে ব্যাপক। আর এই উত্তরোত্তর বাড়তে থাকা চাহিদার কথা মাথায় রেখে স্মার্টফোন নির্মাতা সংস্থাগুলিও একের পর এক কম দামি তথা ফিচারে ঠাসা স্মার্টফোন আনছে। তাই ভারতের বাজারে ২০,০০০ টাকার কমে একাধিক উল্লেখযোগ্য মডেল বিদ্যমান আছে। আর এই দামে শুধুমাত্র 4G নয়, সাথে ‘নেক্সট জেনারেশন’ 5G কানেক্টিভিটির স্মার্টফোনও পাওয়া যাচ্ছে। এরমধ্যে Samsung Galaxy F23 5G, Vivo T1 5G, Moto G71 5G, Redmi Note 11T 5G, iQOO Z3, Realme 9 Pro, Redmi Note 11 Pro + 5G এবং Realme 9 SE 5G হ্যান্ডসেটগুলি উল্লেখযোগ্য। উল্লেখিত প্রত্যেকটি স্মার্টফোনে আপনারা – উন্নত ডিসপ্লে প্যানেল, ডুয়েল বা ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ, অ্যাডভান্স প্রসেসর ও ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজি সমর্থিত ৫,০০০ এমএএইচ পর্যন্ত ক্যাপাসিটির শক্তিশালী ব্যাটারি পেয়ে যাবেন। সর্বোপরি, ৮ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম ও সর্বাধিক ১২৮ জিবি স্টোরেজ উপলব্ধ থাকছে প্রতিটি মডেলে। তাই আপনারা যারা সাশ্রয়ী মূল্যে একটি দুর্দান্ত স্মার্টফোন কিনতে ইচ্ছুক, তারা আমাদের প্রতিবেদন থেকে এই হ্যান্ডসেটগুলির দাম ও ফিচার সম্পর্কে জেনে নিন।

২০,০০০ টাকার কমে উপলব্ধ স্মার্টফোনের তালিকা

Samsung Galaxy F23 5G : স্যামসাং গ্যালাক্সি এফ২৩ ৫জি ফোনে আছে ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের একটি ৬.৬ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস ইনফিনিটি-ইউ ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লেকে সুরক্ষিত রাখার জন্য কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ ব্যবহার করা হয়েছে। পারফরম্যান্সের জন্য এটি কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৫০জি অক্টা-কোর প্রসেসর সহ এসেছে। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক ওয়ান ইউআই ৪.১ কাস্টম স্কিনে রান করে। ফটোগ্রাফির জন্য Samsung Galaxy F23 5G ফোনের পিছনে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এগুলি হল ৫০ মেগাপিক্সেল Samsung ISOCELL JN1 প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর। এছাড়া সেলফি এবং ভিডিও চ্যাটের জন্য ফোনের সামনে ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা সেন্সর দেওয়া হয়েছে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য উক্ত স্মার্টফোনে ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির আছে, যা ২৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে।

দাম : Samsung Galaxy F23 5G স্মার্টফোনের ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ১৬,৯৯৯ টাকা। এটিকে একোয়া ব্লু ও ফরেস্ট গ্রীন কালারে পাওয়া যাবে।

Vivo T1 5G : ভিভো টি১ ৫জি ফোনে দেখা যাবে একটি ৬.৫৮ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০×২৪০৮ পিক্সেল) আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে, যার রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ এবং টাচ স্যাম্পলিং রেট ২৪০ হার্টজ। হ্যান্ডসেটটি অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক ফান টাচ ওএস১২ কাস্টম স্কিনে চলে। ফাস্ট পারফরম্যান্সের জন্য এতে স্ন্যাপড্রাগন ৬৯৫ ৫জি প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। আবার ফটোগ্রাফির জন্য এতে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ থাকবে। এগুলি হল ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ২ মেগাপিক্সেল সেকেন্ডারি সেন্সর এবং ২ মেগাপিক্সেল সেন্সর। একইভাবে সেলফি এবং ভিডিও কলের জন্য, ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা থাকছে এতে। ভিভো টি১ ৫জি ফোনে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে।

দাম : Vivo T1 5G স্মার্টফোনের ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ অপশনের দাম ১৯,৯৯০ টাকা। এটিকে দুটি কালার অপশনে পাওয়া যাবে – স্টারলাইট ব্ল্যাক ও রেইনবো ফ্যান্টাসি।

Moto G71 5G : মোটোরোলার এই স্মার্টফোনে দেখা যাবে একটি ৬০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের ৬.৪ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০x২৪০০ পিক্সেল) ম্যাক্স ভিশন ডিসপ্লে, যার এসপেক্ট রেশিও ২০:৯। এই ডিসপ্লের ডিজাইন পাঞ্চ হোল, যার কাটআউটের মধ্যে ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা অবস্থিত। আবার ডিভাইসের ব্যাক প্যানেলে আছে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ। এগুলি হল, ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স ও ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর। মোটো জি৭১ ৫জি ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে অক্টা কোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৯৫ প্রসেসর। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক এমওয়াইউইএই (MYUI) কাস্টম স্কিনে চলবে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এতে ৩০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। সিকিউরিটি জন্য উক্ত ফোনে সাইড-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার উপস্থিত।

দাম :৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ সহ আসা Moto G71 5G স্মার্টফোনকে ১৮,৯৯৯ টাকায় লঞ্চ করা হয়েছিল। এটিকে – নেপচুন গ্রীন, আর্কটিক ব্লু ও আইরন ব্ল্যাক কালারে কেনা যাবে।

Redmi Note 11T 5G : ডুয়েল সিমের রেডমি নোট ১১টি ৫জি ফোনে আছে ৬.৬ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪০০ পিক্সেল) IPS LCD ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৩ প্রটেকশন সহ এসেছে এবং ৯০ হার্টজ অ্যাডাপ্টিভ রিফ্রেশ রেট ও ২০:৯ এসপেক্ট রেশিও সাপোর্ট করে। মাল্টিটাস্কিং ও ফাস্ট পারফরম্যান্সের জন্য ডিভাইসে মালি জি৫৭ এমসি২ জিপিইউ সহ অক্টা কোর মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৮১০ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক এমআইইউআই ১২.৫ কাস্টম স্কিন চালিত। এতে ৩ জিবি পর্যন্ত এক্সটেন্ডেড র‌্যাম সাপোর্ট করে। ফটোগ্রাফির জন্য রেডমির এই ফোনে ডুয়েল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এগুলি হল ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর ও ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড শুটার। আবার ফোনটির ডিসপ্লেতে থাকা পাঞ্চ-হোল কাটআউটের মধ্যে থাকছে ১৬ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। পাওয়ার ব্যাকআপের কথা বললে, এই ৫জি ফোনে ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে, যার সাথে ৩৩ ওয়াট প্রো ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে।

দাম : Redmi Note 11T 5G স্মার্টফোনের ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ১৮,৯৯৯ টাকা। এটি – একোয়ামেরিন ব্লু, স্টারডাস্ট হোয়াইট ও ম্যাট ব্ল্যাক কালারে উপলব্ধ।

iQOO Z3 : অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক ফানটাচ ওএস ১১.১ কাস্টম স্কিন চালিত আইকো জেড৩ ৫জি ফোনে ৬.৫৮ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (২৪০৮x১০৮০ পিক্সেল) ওয়াটার-ড্রপ নচ ডিসপ্লে আছে। এই ডিসপ্লে ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট, ৪০১পিপিআই পিক্সেল ডেন্সিটি এবং ৯০.৬১% স্ক্রিন-টু-বডি রেশিও অফার করে। উন্নত পারফরম্যান্স প্রদানের জন্য এটি কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৬৮জি প্রসেসরের সাথে এসেছে। ফটোগ্রাফির জন্য এই ৫জি স্মার্টফোনের পিছনে ট্রিপল ক্যামেরা ইউনিট বর্তমান। এগুলি হল, ৬৪ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ১২০-ডিগ্রি ফিল্ড-অফ-ভিউ সহ ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড লেন্স ও ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স। সেলফি ও ভিডিও কলিংয়ের জন্য এতে ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। আর পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ফোনে ৪,৪০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে, যার সাথে ৫৫ ওয়াট ফ্ল্যাশ চার্জ সাপোর্ট করবে।

দাম : iQOO Z3 স্মার্টফোনের দাম ১৯,৯৯০ টাকা। এই বিক্রয় মূল্য ফোনটির ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ অপশনের। এটিকে – সাইবার ব্লু ও এস ব্ল্যাক কালারে লঞ্চ করা হয়েছে।

Realme 9 Pro : রিয়েলমি ৯ প্রো স্মার্টফোনে রয়েছে ৬.৪ ইঞ্চির (১০৮০x২৪০০ পিক্সেল) সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে, যার রিফ্রেশ রেট ৯০ হার্টজ এবং এসপেক্ট রেশিও ২০:৯৷ এতে ৬ এনএম প্রসেসিং নোড ভিত্তিক অক্টা-কোর মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৯২০ প্রসেসর আছে৷ ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক রিয়েলমি ইউআই ৩.০ কাস্টম ওএসে রান করে। ক্যামেরা ফ্রন্টের কথা বললে, উক্ত ডিভাইসে – ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল সেকেন্ডারি সেন্সর এবং ২ মেগাপিক্সেল সেন্সর সহ ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা ইউনিট দেওয়া হয়েছে। আর ফোনের সামনে ১৬ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা উপস্থিত থাকছে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য, এই স্মার্টফোনে ৪,৫০০এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি রয়েছে, যা ৬০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সমর্থন করে।

দাম : Realme সংস্থার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট অনুসারে, Realme 9 Pro স্মার্টফোনের ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ অপশনের দাম ১৮,৯৯৯ টাকা রাখা হয়েছে। এটিকে – মিডনাইট ব্ল্যাক, অরোরা গ্রীন, সানরাইজ ব্লু এবং ফ্রি ফায়ার লিমিটেড এডিশন কালার অপশনের সাথে নিয়ে আসা হয়েছে।

Redmi Note 11 Pro+ 5G : রেডমি নোট ১১ প্রো প্লাস ৫জি ফোনের সামনে আছে ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের একটি ৬.৬৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০ x ২৪০০ পিক্সেল) অ্যামোলেড ডিসপ্লে, যার সর্বোচ্চ ব্রাইটনেস ১২০০ নিট। এই ডিসপ্লের ডিজাইন পাঞ্চ হোল স্টাইল, যার কাট আউটের মধ্যে ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা পাওয়া যাবে। আর ফোনটির পিছনে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এগুলি হল ১০৮ মেগাপিক্সেল Samsung HM2 প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো শুটার। ফাস্ট পারফরম্যান্সের জন্য এই ৫জি ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে অক্টা কোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৯৫ প্রসেসর। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক এমআইইউআই ১৩ কাস্টম স্কিনে রান করবে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এই ফোনে পাওয়া যাবে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি, যা ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। সিকিউরিটির জন্য এই ফোনে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর উপলব্ধ।

দাম : Xiaomi-র অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে, Redmi Note 11 Pro+ 5G স্মার্টফোনের ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ অপশনকে ১৯,৯৯৯ টাকায় এনলিস্ট করা হয়েছে। এটিকে – মিস্টিরিয়াস ব্ল্যাক, ফরেস্ট গ্রীন ও টাইমলেস পার্পেল কালারে পাওয়া যাবে।

Realme 9 SE 5G : সংস্থার ‘ফাস্ট এভার’ স্পিড এডিশন স্মার্টফোন রূপে আগত রিয়েলমি ৯ এসই ৫জি ফোনে ৬.৬ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪১২ পিক্সেল) ডিসপ্লে আছে। এই ডিসপ্লে ১৪৪ হার্টজ রিফ্রেশ রেট এবং ৬০০ নিট পিক ব্রাইটনেস অফার করে। ফাস্ট পারফরম্যান্সের জন্য, এই ৫জি ফোনে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৭৮জি প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক রিয়েলমি ইউ আই ২.০ (Realme UI 2.0) ইউজার ইন্টারফেস দ্বারা চালিত। এতে ৫ জিবি ভার্চুয়াল র‌্যাম সাপোর্ট করে। ক্যামেরা ফ্রন্টের কথা বললে, উক্ত স্মার্টফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ উপস্থিত। এগুলি হল, ৪৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, এফ/২.৪ অ্যাপারচার সহ একটি অনির্দিষ্ট মনোক্রোম পোট্রেট সেন্সর এবং ম্যাক্রো ক্যামেরা। সেলফি তোলার জন্য এতে একটি ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে। আর পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য, আলোচ্য হ্যান্ডসেটে ৩০ ওয়াট কুইক চার্জ সাপোর্ট সহ ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে৷

দাম : Realme সংস্থার অফিসিয়াল ওয়বেসাইটে, Realme 9 SE 5G ফোনের ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ অপশনকে ১৯,৯৯৯ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে। এটিকে – স্টারি গ্লো ও আজুর গ্লো কালার ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে।

সবার আগে খবর পেতে Google News-এ ফলো করুন