Earn Money Online Apps: আপনার দ্বিতীয় আয়ের উৎস হবে এই ৫টি অ্যাপ, বাড়ি বসেই ফোনের সাহায্যে ইনকাম করুন

এই প্রতিবেদনে উল্লেখিত ৫টি সেরা 'মানি আর্নিং' অ্যাপ ব্যবহার করে নিজেদের অবসর সময়কে কাজে লাগিয়ে ঘরে বসেই আয় করতে পারবেন

best-5-money-earning-apps-earn-pocket-money-from-home-with-these-apps

Top 5 Money Earning Apps: অ্যাপ ছাড়া ফোন অচল বললে খুব ভুল বলা হয়না। এখনকার দিনে প্রায় সবার স্মার্টফোন নানাবিধ অ্যাপে ঠাঁসা থাকে। যার মধ্যে কিছু অ্যাপ বিনোদনের জন্য, আবার কিছু পেমেন্ট করা বা গেম খেলার জন্য ব্যবহৃত হয়ে থাকে। কিন্তু আপনাদের মধ্যে কারোর মোবাইলে কি এমন কোনও অ্যাপ আছে যা টাকা উপার্জনে (earn money apps) সাহায্য করতে পারে। অনেকেরই হয়তো বিশ্বাস হচ্ছে না যে, এমনও অ্যাপ্লিকেশন আছে যা টাকা এবং ডেটা ব্যয় করানোর পরিবর্তে কোনো রোজগারের পন্থাও হতে পারে। হয়তো কেউ আপনাকে এই সম্পর্কে কখনও কিছু বলেনি বলেই বিশ্বাস হচ্ছে না। কিন্তু এই তথ্য একশো শতাংশ সত্য! আপনারা যারা অফিস থেকে প্রাপ্ত ‘ফিক্সড স্যালারি’ বাদেও অর্থ উপার্জনের দ্বিতীয় রাস্তা খুঁজচ্ছেন, তারা আমাদের এই প্রতিবেদনে উল্লেখিত ৫টি সেরা ‘মানি আর্নিং’ অ্যাপ (best 5 money earning apps) ব্যবহার করে নিজেদের অবসর সময়কে কাজে লাগিয়ে ঘরে বসেই আয় করতে পারবেন। হয়তো খুব মোটা অঙ্কের টাকা রোজগার করা যাবে না, তবে হাতখরচা বা অতিরিক্ত মাসিক ব্যয়ের টাকা তুলে নিতে পারেন আপনারা। তাহলে আসুন ৫টি সেরা অর্থ উপার্জনকারী অ্যাপ সম্পর্কে বিশদে জেনে নেওয়া যাক এবার।

৫টি সেরা অর্থ উপার্জনকারী অ্যাপের তালিকা (List of 5 Best Money Making Apps)

১. রোজ ধন (Roz Dhan)

রোজ ধন হল একটি রিয়েল-টাইম ক্যাশ-ইন-কাইন্ড মানি আর্নিং প্ল্যাটফর্ম, যা ব্যবহারকারীদের তাদের বাড়ি থেকেই অর্থ উপার্জন করার সুবিধা প্রদান করে। এই অ্যাপের মাধ্যমে, আপনারা নানাবিধ ছোট ছোট কাজে অংশগ্রহণ করে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। তবে, এই অ্যাপে অর্থ উপার্জনের সবচেয়ে সহজ এবং দ্রুততম উপায় হল সার্ভেতে যোগদান করা। এক্ষেত্রে প্রতিটি কাজ আলাদা আলাদা রিওয়ার্ড অফার করা হয়ে থাকে।

২. মেশো (Meesho)

এটি হল মূলত একটি ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম। তবে ফ্লিপকার্ট বা অ্যামাজনের মতো শপিং পোর্টালগুলির থেকে মেশো আলাদা। কারণ, এখানে কেনাকাটার করার পাশাপাশি রিসেলিং বা প্রোডাক্ট বিক্রিও করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। বিশেষত, আপনাদের মধ্যে যারা বর্তমানে কলেজে পড়ছেন বা গৃহিণী, তাদের জন্য ঘরে বসে আর্থিক উপার্জনের একটি দুর্দান্ত বিকল্প হতে পারে এই অ্যাপ। মেশোর মাধ্যমে যেকোন পণ্য যেকোন ব্যক্তির কাছে রিসেল করা সম্ভব। শুধু তাই নয়, এখানে আপনি নিজের মার্জিন স্বয়ং সেট করতে পারবেন।

৩. টাস্ক বক্স (Task bucks)

টাস্ক বক্স হল ভারতের সর্বোচ্চ আয়কারী অ্যাপ। কেননা, আপনারা অ্যাপে থাকা রেফারেল বিকল্প ব্যবহার করেই প্রতিদিন ৭০ টাকা পর্যন্ত উপার্জন করতে পারেন। এছাড়া, এই অ্যাপের মাধ্যমে আপনি বিনামূল্যে পেটিএম ক্যাশ (Paytm Cash), ফোন রিচার্জ, ইন্টারনেট রিচার্জ সহ মোবিকুইক মানি (MobiKwik Money) এবং পোস্টপেইড বিল পেমেন্টের মাধ্যমে প্রতি মাসে ৫০০ টাকা পর্যন্ত উপার্জনও করতে পারবেন। আর এই অর্জিত টাকা আপনারা ফোন রিচার্জ করে অথবা মোবিকুইক (MobiKwik) বা পেটিএম ওয়ালেট (Paytm Wallet) -এ ট্রান্সফার করতে পারবেন। তবে আগেই বলে দিই, এই মানি আর্নিং অ্যাপ্লিকেশনটি শুধুমাত্র অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের জন্যই উপলব্ধ।

৪. গুগল ওপিনিয়ন রিওয়ার্ডস (Google Opinion Rewards)

গুগল ওপিনিয়ন রিওয়ার্ডস -ও একটি অর্থ উপার্জনকারী অ্যাপ। এই অ্যাপের মাধ্যমে সার্ভে করার মাধ্যমে আপনারা টাকা রোজগার করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে, একটি অ্যাকাউন্ট সেটআপ এবং এনরোল করতে হবে। এরপর, আপনি সার্ভে -তে যোগদান করতে পারেন এবং পরিবর্তে গুগল প্লে ক্রেডিট অর্জন করতে পারেন। এই ক্রেডিট ব্যবহার করে আপনারা গেম কিনতে পারবেন। শুধু তাই নয় – শপিং করা, সিনেমার টিকিট কাটা, মিউজিক অ্যালবাম কেনা সহ অন্যান্য প্লে স্টোর অ্যাপ খরিদ করার জন্যও এই ক্রেডিট ব্যবহার করা যাবে।

​৫. ওয়াঙ্ক (Wonk)

ওয়াঙ্ক বর্তমানে একটি অতি জনপ্রিয় অ্যাপে পরিণত হয়েছে। অনলাইন টিউটরিং সহ নানাবিধ পরিষেবা এখানে উপলব্ধ। ফলে আপনারা অনলাইন ক্লাসে শিক্ষকতার কাজ পেতে পারেন এই অ্যাপের মাধ্যমে। যার দরুন প্রতি ঘণ্টায় ২৫০ টাকা থেকে ১,০০০ টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন আপনারা।

স্মার্টফোন, গাড়ি-বাইক সহ প্রযুক্তি দুনিয়ার সব গুরুত্বপূর্ণ খবর সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের Google News ও Twitter পেজ, সঙ্গে অ্যাপ ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।