Best 4 Flagship Smartphone: শাওমি, স্যামসাং, ওয়ানপ্লাস সহ সেরা ৪টি ফ্ল্যাগশিপ ফোনের লিস্ট দেখে নিন

আজ আমরা ৫৫,০০০ টাকা মধ্যে উপলব্ধ ৪টি সেরা ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনের হদিস দেব

Best flagship Smartphones of 2022: ভারতীয় স্মার্টফোন বাজারে এখন একের পর এক প্রিমিয়াম সেগমেন্টের অধীনে অসংখ্য স্মার্টফোন লঞ্চ করা হচ্ছে। মূলত গ্রাহক-বেসের চাহিদাকে মাথায় রেখেই বিভিন্ন টেক সংস্থাগুলি বর্তমানে ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন আনার প্রতি বিশেষ মনোনিবেশ করেছে। এক্ষেত্রে, Xiaomi, Vivo, OnePlus, Samsung এর মতো একাধিক সুপরিচিত ব্র্যান্ডগুলি চলতি বছরের প্রথম দুটি কোয়ার্টার জুড়ে তাদের পোর্টফোলিওতে একাধিক অ্যাডভান্স ফিচারের প্রিমিয়াম হ্যান্ডসেটকে সংযুক্ত করেছে। সেক্ষেত্রে আপনারা যারা এমনি একটি ফিচারে ভরা হাই-এন্ড স্মার্টফোন কিনতে চান, তাদের সুবিধার্থে আজ আমরা ৫৫,০০০ টাকা মধ্যে উপলব্ধ ৪টি সেরা ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনের হদিস দেব। আর জানিয়ে রাখি, প্রতিবেদনে উল্লেখিত প্রত্যেকটি সাশ্রয়ী মূল্যের ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস ‘টপ-অফ-দ্য-লাইন’ হার্ডওয়্যার ও ক্যামেরা ফ্রন্ট অফার করে। চলুন ২০২২ সালে লঞ্চ হওয়া ৪টি সেরা ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনের দাম ও ফিচারের তালিকা দেখে নেওয়া যাক৷

৫৫,০০০ টাকার নিচে উপলব্ধ ৪টি সেরা ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনের তালিকা

Vivo X80 : চলতি বছরের মে মাসে আগত ভিভো এক্স৮০ সিরিজের এই স্ট্যান্ডার্ড মডেলে একটি ৬.৭৮ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪০০পিক্সেল) AMOLED ডিসপ্লে দেখা যাবে। এই ডিসপ্লের এসপেক্ট রেশিও ২০:৯ এবং রিফ্রেশ রেট সর্বোচ্চ ১২০ হার্টজ। নিরাপত্তার জন্য এতে একটি আন্ডার-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর রয়েছে। আবার উৎকর্ষমানের পারফরম্যান্স অফার করার জন্য এই স্মার্টফোনে মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৯০০০ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক ফানটাচ ওএস স্কিন দ্বারা চালিত। আবার উক্ত স্মার্টফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা ইউনিট উপস্থিত। এগুলি হল – OIS সাপোর্ট সহ ৫০ মেগাপিক্সেল Sony IMX866 RGBW প্রাইমারি সেন্সর, ১২ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড সেন্সর এবং ১২ মেগাপিক্সেল পোর্ট্রেট সেন্সর৷ আর ডিভাইসের সামনে একটি ৩২ মেগাপিক্সেলের সেলফি শ্যুটার দেখা যাবে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এই ফোনে ৪,৫০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে, যার সাথে ৮০ ওয়াট ফ্ল্যাশ চার্জ ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজি সমর্থন করে।

দাম : Vivo X80 স্মার্টফোনকে ৫৪,৯৯৯ টাকার প্রারম্ভিক মূল্যের সাথে লঞ্চ করা হয়েছিল। কিন্তু, অনলাইন শপিং সাইটগুলিতে উপলব্ধ একাধিক অফারের সাথে এটিকে এখন ৪৮,০০০ টাকায় পকেটস্থ করে নেওয়া যাবে। এই দাম ফোনের ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ অপশনের।

OnePlus 9RT : গত জানুয়ারি মাসে আত্মপ্রকাশ করা ডুয়েল সিমের ওয়ানপ্লাস ৯আরটি ফোনে রয়েছে কর্নিং গরিলা গ্লাস প্রটেকশন সহ একটি ৬.৬২ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪০০ পিক্সেল) Samsung E4 AMOLED ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লে, ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট, ২০:৯ এসপেক্ট রেশিও, ১,৩০০ হার্টজ টাচ স্যাম্পলিং রেট, ১,৩০০ নিট পিক ব্রাইটনেস, ১০০% DCI:P3 কালার গ্যামেট এবং HDR10+ টেকনোলজি সাপোর্ট করে। সিকিউরিটির জন্য এতে ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর উপলব্ধ। ফাস্ট পারফরম্যান্স অফারের জন্য উক্ত ফোনে অক্টা-কোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর সমন্বিত আছে। ছবি তোলার জন্য এই ফোনের রিয়ার প্যানেলে ডুয়েল LED ফ্ল্যাশ সহ ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ উপস্থিত। এগুলি হল – OIS সাপোর্ট সহ ৫০ মেগাপিক্সেল Sony IMX766 প্রাইমারি সেন্সর, ১২৩° ফিল্ড-অফ-ভিউ সহ ১৬ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স ও ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর। আর সেলফি ক্লিক করার জন্য ডিসপ্লেতে থাকা পাঞ্চ হোল কাটআউটের মধ্যে ডুয়েল LED ফ্ল্যাশ সহ ১৬ মেগাপিক্সেল Sony IMX471 ফ্রন্ট সেন্সর দেখা যাবে। এই ফোনে ৪,৫০০ এমএএইচ পাওয়ারের ডুয়েল সেল ব্যাটারি আছে, যা ৬৫টি র‌্যাপ চার্জ ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে।

দাম : OnePlus 9RT স্মার্টফোনের ৮ জিবি র‌্যাম বিকল্পের বিক্রয় মূল্য ৪২,৯৯৯ টাকা।

Xiaomi 11T Pro : চলতি বছরের প্রথমার্ধে লঞ্চ হওয়া শাওমি ১১টি প্রো ৫জি ফোনে গরিলা গ্লাস ভিক্টাস প্রটেকশন সহ একটি ৬.৬৭ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০ x ২৪০০ পিক্সেল) ১০ বিট ট্রু কালার AMOLED ডিসপ্লে আছে। এই ডিসপ্লে, ১২০ হার্টজ ডায়নামিক রিফ্রেশ রেট, ৪৮০ হার্টজ টাচ স্যাম্পলিং রেট, ১,০০০ নিট পিক ব্রাইটনেস ও ডলবি ভিশন সাপোর্ট করে। উন্নত পারফরম্যান্সের জন্য শাওমির এই ৫জি ফোনে এড্রেনো ৬৬০ জিপিইউ ও কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এতে ৩ জিবি ভার্চুয়াল র‌্যামের সাপোর্ট পাওয়া যাবে। ফটোগ্রাফির জন্য উক্ত ফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এগুলি হল – ১০৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা সেন্সর, ১২০° ফিল্ড-অফ-ভিউ সহ ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড লেন্স এবং অটোফোকাস সহ ৫ মেগাপিক্সেল টেলিম্যাক্রো ক্যামেরা সেন্সর। সেলফি ও ভিডিও কলিংয়ের জন্য ফোনের সামনে ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা উপস্থিত। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ফোনটি ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি অফার করবে। এই মডেলটি সাইড-ফেসিং ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার সহ এসেছে।

দাম : Xiaomi 11T Pro এর বেস ভ্যারিয়েন্টের দাম ৩৯,৯৯৯ টাকা রাখা হয়েছে।

Samsung Galaxy S21 FE : জানুয়ারি মাসে আগত স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২১ এফই ৫জি ফোনে কর্নি গরিলা গ্লাস ভিক্টাস প্রোটেকশন সহ একটি ৬.৪ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস ডায়নামিক AMOLED ২এক্স ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। এই ডিসপ্লের ডিজাইন পাঞ্চ-হোল স্টাইল এবং এটি ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট ও ২৪০ হার্টজ টাচ স্যাম্পলিং রেট অফার করবে। অন্যদিকে, ফাস্ট পারফরম্যান্স ও মাল্টিটাস্কিংয়ের জন্য স্যামসাংয়ের এই ফোনটি এক্সিনস ২১০০ প্রসেসর সহ এসেছে। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক ওয়ান ইউআই ৪.০ কাস্টম ওএস দ্বারা চালিত। আবার এই ৫জি ফোনে – ১২ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ১২ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স ও ৮ মেগাপিক্সেল টেলিফটো শুটার সহ ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এছাড়া, ফোনের পাঞ্চ হোল কাটআউটের মধ্যে থাকছে ৩২ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২১ এফই ৫জি স্মার্টফোন, ৪,৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি সহ এসেছে, যা ২৫ ওয়াট সুপার-ফাস্ট ওয়্যারড ফাস্ট চার্জিং, ১৫ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং এবং রিভার্স চার্জিং টেকনোলজি সমর্থন করে। আইপি৬৮ সার্টিফায়েড এই ফোনে সিকিউরিটির জন্য ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার উপস্থিত।

দাম : ভারতে Samsung Galaxy S21 FE স্মার্টফোনকে ৫৪,৯৯৯ টাকায় লঞ্চ করা হয়েছিল। তবে আপনারা যদি Amazon বা অন্যান্য ই-কমার্স সাইট থেকে উক্ত ফ্ল্যাগশিপ ফোনটি কেনেন, তবে কুপন ও কার্ড অফারের লাভ উঠিয়ে মাত্র ৪৫,০০০ টাকা খরচ করে ডিভাইসটি কিনে নিতে পারবেন।

সবার আগে খবর পেতে Google News-এ ফলো করুন