Bajaj EV Plan: ইলেকট্রিক টু-হুইলারের বাজারে রাজ করবে বাজাজ, প্রতি বছর নতুন ই-স্কুটার, বাইক লঞ্চের পরিকল্পনা

bajaj-to-launch-a-new-chetak-branded-electric-scooter-bike-every-year

ইলেকট্রিক টু-হুইলারের বাজার দাপিয়ে বেড়াতে আগামী পাঁচ বছর বেশ কিছু নতুন মডেল বাজারে আনার পরিকল্পনা করছে বাজাজ অটো (Bajaj Auto)।
সম্প্রতি সংস্থার ম্যানেজিং ডিরেক্টর এক সর্বভারতীয় সংবাদমধ্যমের সাক্ষাৎকারে জানান, আগামী তিন-বছরের মধ্যে প্রতি বছর একটি করে নতুন বৈদ্যুতিক দু’চাকা গাড়ি লঞ্চ করার পরিকল্পনা করা হয়েছে।

রাজীবের কথায়, সেটি ইলেকট্রিক স্কুটার বা বাইক যাই হোক না কেন, বাজাজের চেতক (Chetak) সাব-ব্র্যান্ডের অধীনে আসবে। ব্যাটারিচালিত টু-হুইলারগুলি বিভিন্ন পাওয়ারট্রেন অপশনে আসবে‌। সেগমেন্টেও আলাদা হবে‌। কোনওটার দাম আমজনতার হাতের নাগালের মধ্যে থাকবে। আবার বাকিগুলি প্রিমিয়াম হতে পারে।

আবার সংস্থার প্রথম ই-স্কুটার চেতকের নতুন সংস্করণ এ বছরই বাজারে আত্মপ্রকাশ করবে। ইতিমধ্যেই আপকামিং মডেলটির ট্রায়াল চালু হয়েছে। দেশের সড়কপথেও ক্যামোফ্ল্যাজ অবস্থায় দর্শন পাওয়া গিয়েছে‌। নতুন মডেলের মোটর বেশি শক্তিশালী হলেও একটু ছোট ব্যাটারির সাথে আসবে বলে জানা গিয়েছে‌। স্পাই শট অনুযায়ী, এতে আরও শার্প ডিজাইন থাকবে।

বর্তমানে বাজাজের লক্ষ্য, বছরে ৫০,০০০ ইলেকট্রিক স্কুটার উৎপাদন। এখন সংস্থার বার্ষিক উৎপাদন ক্ষমতা ৮,০০০ থেকে ৯,০০০ ইউনিট হলেও নতুন ম্যানুফ্যাকচারিং প্ল্যান্টে সৌজন্যে আগামী কয়েক বছরের মধ্যে তা ২.৫ লক্ষে পৌঁছবে বলে মনে করছে বাজাজ। গত জানুয়ারিতে পুনের নতুন ইভি ডেডিকেটেড আর্কুদি ফেসিলিটিতে ৩০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে বাজাজ। ২০২২-এর জুনে সেখান থেকে প্রথম ইলেকট্রিক ভেহিকেল রোলআউট করা হবে। সেটি যে নতুন চেতক, তা নিঃসন্দেহে বলা যায়।

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।