প্রায় ৫ লক্ষ টাকার চুরি যাওয়া জিনিসপত্র খুঁজে দিয়ে রাতারাতি হিরো Apple AirTag

apple-airtag-helps-recover-valuables-stolen-products-australia

Apple AirTag এর সহায়তায় এক ব্যক্তি ফিরে পেলেন চুরি হয়ে যাওয়া মূল্যবান সামগ্রী। সম্প্রতি ঘটনাটি প্রকাশ্যে এসেছে। অস্ট্রেলিয়ায় ছুটি কাটাতে গিয়ে ওই ব্যক্তির জিনিসপত্র সহ লাগেজ চুরি হয়ে যায়। যদিও ওই লাগেজের জিনিসপত্রের সাথে Apple AirTag লাগানো ছিল, যা এগুলিকে খুঁজে পেতে সাহায্য করে। আসুন পুরো ঘটনাটি জেনে নেওয়া যাক।

গ্রাহাম টেইট দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ায় ছুটি কাটাতে গিয়ে যে হোটেলে ছিলেন, সেখানেই রাতে তার গাড়ি ভাঙচুর করে চুরি হয়ে যায় প্রায় ৭,০০০ ডলার (প্রায় ৫.৪২ লক্ষ টাকা) মূল্যের বেশ কিছু মূল্যবান জিনিসপত্র। আইটেমগুলির মধ্যে একটি Sony ক্যামেরা, একটি নোটবুক, একটি ওয়ালেট এবং একটি GoPro অন্তর্ভুক্ত ছিল।

সৌভাগ্যক্রমে টেইট তার ল্যাপটপের পিছনে এবং সোনি ক্যামেরার সঙ্গে অ্যাপল এয়ারট্যাগ লাগিয়ে রেখেছিলেন। ফলে, তিনি ফাইন্ড মাই অ্যাপ ব্যবহার করে আইটেমগুলি ট্র্যাক করতে সক্ষম হন। তিনি অ্যাপে দেখেন সেগুলি ওই হোটেলেরই অন্য একটি ঘরে আছে। পুলিশে খবর দেওয়া হয় এবং তাদের সহায়তায় টেইট তার জিনিসগুলি ফিরে পান। অভিযুক্ত ব্যক্তিকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

এই খবরটি Apple AirTag-এর প্রয়োজনীয়তা ও ইতিবাচক দিকগুলিকে চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল। আপনাকে জানিয়ে রাখি, Apple AirTag ব্যবহারকারীদের গোপনীয়তা রক্ষার প্রচেষ্টাও করে। কারণ কোনো জায়গায় গোপনে AirTag আপনার রেঞ্জের মধ্যে এলেই নোটিফিকেশন পাঠিয়ে সতর্ক করে।

প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি, ব্যক্তিগত ব্যবহারের জিনিসপত্রে Apple AirTag লাগানো থাকলে এবং সেটি আপনার iPhone, iPad এ কানেক্ট করা থাকলে, আপনি সহজেই সেই সামগ্রিটির লোকেশন জানতে পারবেন। সেটি আপনার বাড়ি বা গাড়ির চাবি, ল্যাপটপ, পার্স, ব্যাকপ্যাক যে কোনো জিনিসই হতে পারে।

গেম খেলতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।